১৪ দিনের সন্তানকে সঙ্গে নিয়েই অফিস শুরু গাজিয়াবাদের সরকারি কর্তার! কুর্নিশ নেটিজেনদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বছর দুয়েক আগের কথা। সদ্যোজাত সন্তানকে নিয়ে পার্লামেন্টের যোগ দিয়েছিলেন নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডের্ন। অধিবেশনের মাঝেই স্তন্যপানও করিয়েছিলেন তাকে। সে সময়ে ভাইরাল হয়েছিল দায়িত্ব ও মাতৃত্ব যুগপৎ পালনের এ দৃষ্টান্ত।

এবার বিদেশের মাটিতে নয়, এ দেশের বুকেই এমনটা ঘটল। ছোট্ট একরত্তি সন্তানকে বুকে নিয়ে কাজে যোগ দিলেন গাজিয়াবাদের মোদিনগরেরর আইএএস অফিসার সৌম্যা পান্ডে। কোভিড-কালে সন্তানের জন্ম দিয়েছেন তিনি। এ সময়ে কাজের দায়িত্বও পাহাড়প্রমাণ। আবার নতুন মা হিসেবে কর্তব্যও কি কম! তাই কোনওটাতেই ফাঁকি দিতে রাজি নন তিনি। তাই ১৪ দিনের ছোট্ট সন্তানকে সঙ্গে নিয়েই এসে পৌঁছেছেন দফতরে।

sdm saumya pandey: गाजियाबाद: औरों के लिए मिसाल बनीं IAS सौम्या पांडेय,  डिलिवरी के 22 दिन बाद ही जॉइन किया ऑफिस - ghaziabad ias officer arrived and  took charge just 22 days

সন্তানকে কোলে নিয়ে সৌম্যার কাজ করার একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। তার পরেই সামনে আসে, ২০১৭ ব্যাচের তরুণী অফিসার ২৬ বছরের সৌম্যার কর্তব্যপরায়ণতার কথা।

শিক্ষাজীবনে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ বি টেক-এ গোল্ড মেডেল পেয়েছিলেন সৌম্যা পান্ডে। তারপর প্রথমবারের চেষ্টাতেই আইএএস-এর পরীক্ষায় সেরা দশের মধ্যে তাঁর নাম উঠে আসে। বছরখানেক আগেই মোদিনগর উপজেলা আধিকারিক পদে দায়িত্ব নিয়েছিলেন তরুণী সৌম্য পান্ডে।

অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় করোনার আবহেও নিয়মিত কাজ করেছেন সাবধানতা অবলম্বন করে। এর পরে ১৭ সেপ্টেম্বর তিনি কন্যাসন্তানের জন্ম দেন। সকলকে চমকে দিয়ে মেয়ের জন্মের ১৪ দিন পরেই ১ অক্টোবর থেকে কাজে যোগ দেন। তার কয়েক দিন পরেই, আজ মঙ্গলবার ভাইরাল হয় সৌম্যার ছবি।

Modinagar Nagar Sdm Saumya Pandey Back To Work With Two Week Old Daughter  Photos Goes Viral She Says Duty Also Important With Family - गोद में दो  हफ्ते की बेटी लिए काम

এ নিয়ে প্রশংসা ও অভিনন্দনের বন্যা বয়ে গেলেও, তা নিয়ে বিশেষ হেলদোল নেই সৌম্যার। তিনি জাপানের উদাহরণ দিয়ে বলেন, সে দেশের মহিলারা ডেলিভারির পরেই কাজে যোগ দেন। মা ও বাচ্চা সুস্থ থাকলে এটায় কোনও ভুল নেই।

ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা যাচ্ছে, সৌম্যা তাঁর দুধের শিশুকে কোলে নিয়ে সরকারি অফিসে কাজ করছেন। এমনিতেই যেখানে দেশের সরকারি কর্মীদের বিরুদ্ধে হাজার অভিযোগের শেষ নেই, সেখানে সৌম্যার এই ছবি যেন প্রতিবাদ হয়ে জ্বলজ্বল করছে। এ ছবি বলছে, সরকারি চাকরি মানে তাঁর কাছে বাড়তি সুযোগ নেওয়া নয়, বরং বাড়তি দায়িত্ব নেওয়া। দেশের মানুষের প্রতি দায়বদ্ধতায় কোনও ফাঁক রাখা চলবে না বলেই মনে করেন তিনি।

শুধু তাই নয়, সরকারি অফিসে মহিলাদের মাতৃত্বকালীন ছুটি নিয়েও অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেন বহু পুরুষ সহকর্মী। এ নিয়ে শুনতে হয় বহু তির্যক মন্তব্যও। কিন্তু সৌম্যা সে সুযোগ তো দেনইনি, উল্টে দেখিয়ে দিয়েছেন, মাতৃত্বের সঙ্গে পেশাদারিত্বের কোনও বিরোধ নেই। চাইলে এই দুই-ই সামলানো যায় একসঙ্গে।

Ghaziabad: SDM Saumya Pandey Rejoins Work 14 Days After Giving Birth

এত ছোট শিশুকে নিয়ে করোনা আবহে অফিসে এলেও সৌম্যা অবশ্য যত্নে ও নিরাপত্তায় কোনও আপস করছেন না। তাঁর কাছে আসা প্রতিটা ফাইল তিনি স্যানিটাইজ করেন বারবার। নিজেও হাত পরিষ্কার করেন। মাস্ক ছাড়া কাউকে কাছে ঘেঁষতে দেন না।

সৌম্যা জানিয়েছেন, নতুন মা হিসেবে কাজে ফিরতে পেরে তিনি খুবই স্বচ্ছন্দ৷ গাজিয়াবাদ প্রশাসনও তাঁকে সবরকম ভাবে সাহায্য করেছে। দায়িত্বশীল এই নতুন মা ও কর্তব্যপরায়ণ তরুণ আধিকারিকের ভূমিকায় সৌম্যাকে কুর্নিশ করছে গোটা দেশ।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More