বড়দিনে তেলেঙ্গানার হারানো যুবককে মায়ের কাছে ফিরিয়ে দিল সন্দেশখালির পুলিশ

দ্য ওয়াল ব্যুরো, উত্তর ২৪ পরগনা : হারানো ছেলেকে ফিরিয়ে দিয়ে তেলেঙ্গানার মাকে বড়দিনের উপহার দিল বাংলার পুলিশ।

গত দু’দিন ধরে সন্দেশখালি থানার মনিপুর গ্রামে ঘোরাঘুরি করছিল বছর ২৬ এর এক যুবক। স্থানীয় মানুষজনের কাছ থেকে খবর পেয়ে সন্দেশখালি থানার পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। খিদে ও শীতে কাতর যুবককে খানিকটা সুস্থ করে তাঁর নাম পরিচয় জানার চেষ্টা করে পুলিশ। দক্ষিণের কোনও রাজ্যের ভাষায় তিনি কথা বলছেন, এটা বুঝতে পারলেও কিছুতেই তা বোধগম্য হচ্ছিল না সন্দেশখালি থানার পুলিশের।

সন্দেশখালির ওই এলাকা থেকে দক্ষিণের রাজ্যগুলিতে কাজ করতে যান বহু শ্রমিক। শেষপর্যন্ত তাঁদের শরণাপন্ন হয় পুলিশ। এই যুবকদের সাহায্য নিয়েই পুলিশ জানতে পারে ওই যুবকের নাম ভারতে রাকেশ। বাড়ি তেলেঙ্গানার নিজামাবাদে। নিজামাবাদের আম্বেদকর নগরের বাড়ি থেকে ফেব্রুয়ারি মাসে নিখোঁজ হয়েছিলেন তিনি।

এরপরেই সন্দেশখালি থানার পুলিশ যোগাযোগ করে তেলেঙ্গানা পুলিশের সঙ্গে। হোয়াটসঅ্যাপে তাঁর ছবিও পাঠায়। নিজামাবাদের পুলিশের কাছ থেকে ডাক পেয়ে থানায় যোগাযোগ করে ভারতে রাকেশের পরিবার। এরপর সেখানকার পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাকেশের জামাইবাবু বিতে লভা সন্দেশখালি থানায় পৌঁছোন। জানান, ছেলেকে হারিয়ে পাগলের মতো হয়ে গেছিলেন তাঁর শাশুড়ি। তাঁর খোঁজ মিলেছে এটুকু জানতে পেরেই ছেলেকে দেখার অপেক্ষায় অধীর হয়েছেন তিনি।

সঠিক পরিচয়পত্র ও উপযুক্ত নথি দেখিয়ে এ দিনই শালাকে নিয়ে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হয়েছেন জামাইবাবু। বড়দিনে এমন উপহার পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে বাংলার পুলিশকে ধন্যবাদ দিচ্ছে রাকেশের পরিবার।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More