শনিবার, ফেব্রুয়ারি ১৬

ফের ভিনরাজ্যে কাজে গিয়ে যুবক খুন, এ বার গুজরাতের সুরাটে

দ্য ওয়াল ব্যুরো, বর্ধমান :  ভিন রাজ্যে কাজে গিয়ে ফের খুন হলেন এক বাঙালী যুবক।  মৃতের নাম সেখ শামসুদ্দিন (৩৮)।  বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের সাহাপুরে। গুজরাতের সুরাটে কর্মরত ছিলেন তিনি।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার  সুরাট শহরের রাস্তায় ছুরিকাহত হন শামসুদ্দিন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর। শামসুদ্দিনের স্ত্রী আঙ্গুরা বিবি জানান, ওইদিন সকাল ছ’টার সময়ে কারখানায় যাচ্ছিলেন তাঁর স্বামী। সেই সময়েই দুষ্কৃতীরা ছুরি নিয়ে তাঁর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। ওখানকার খড়দা থানার পুলিশ রক্তাক্ত অবস্থায় শামসুদ্দিনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

আট বছর ধরে সুরাটে এমব্রয়ডারির কাজ করতেন শামসুদ্দিন। আঙ্গুরা বিবি জানান বছর খানেক আগে পর্যন্ত তিনিও তাঁর স্বামীর সঙ্গে সুরাটে থাকতেন। সন্তান হওয়ার পরে বর্ধমানে ফিরে আসেন। তিনি বলেন, “যে বাড়িতে ভাড়া থাকতাম , সেখানকার একজনের সঙ্গে আমার স্বামীর ঝগড়া হয়েছিল। তখন সে খুনের হুমকি দিয়েছিল। বলেছিল লোক লাগিয়ে খুন করাবে। তারপর অবশ্য বছরখানেক আর কোনও অশান্তি হয়নি।” এ ঘটনার সঙ্গে ওই হুমকির কোনও যোগ রয়েছে কি না তা তদন্তের জন্য সে রাজ্যের পুলিশের কাছে দাবি জানিয়েছেন তিনি।

সামসুদ্দিনের একমাত্র সন্তানের বয়স এখন সাত মাস। শিশুটির জন্মের পরেই আঙ্গুরা বিবি সুরাট থেকে জামালপুরে চলে আসেন। তারপর থেকেই শামসুদ্দিন সুরাটে একাই থাকতেন। ছুটি পেলে বাড়ি আসতেন।

শুধুমাত্র শামসুদ্দিনই নন, গত এক বছরে ভিন রাজ্যে কাজে গিয়ে খুন হয়েছেন জামালপুরের আরও দুই যুবক। সোনার কাজ করতে এঁদের একজন গিয়েছিলেন মুম্বই। তামিলনাড়ুতে গিয়েছিলেন অন্যজন।

Shares

Comments are closed.