বছরের শেষ দিনে দাদু-নাতনি দুজনের ছবি পোস্ট করে কী জানালেন বিগ-বি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চনকে অনেকেই বলেন ‘দ্য কুলেস্ট গ্র্যান্ডফাদার’। কারণ, কাজের তুমুল চাপ সামলেও ব্যক্তিগত জীবনে তিনি পরিবারেরও একজন প্রাণোচ্ছল সদস্য। কখনও নাতির সঙ্গে, কখনও আবার নাতনির সঙ্গে চুটিয়ে মজা করেন। সে সব ছবি, বলাই বাহুল্য, তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও করেন। এত কাজের পরেও তরুণ প্রজন্মের ছেলেমেয়ের মতো তিনি ভীষণ অ্যাক্টিভ সোশ্যাল মিডিয়ায়।

গতকাল মধ্যরাতে যখন ভারতের বেশিরভাগ মানুষই ঘুমের ঘোরে আচ্ছন্ন, তখন বিগ বি টুইটারে একটি ছবি পোস্ট করেন। ছবিতে দেখা যাচ্ছে একটি স্টুডিওতে বসে আছেন স্বয়ং অমিতাভ বচ্চন, অভিষেক বচ্চন, ঐশ্বর্য রাই বচ্চন এবং বচ্চন পরিবারের কনিষ্ঠতম সদস্য আরাধ্যা বচ্চন। ছবির ক্যাপশনে বিগ বি লিখেছেন, “আগামীকাল সকাল থেকেই সকলে তুমুল হৈ হুল্লোড় শুরু করবেন। নতুন বছরের প্রথম দিনে সকলেই মেতে উঠবেন। এদিকে আমি পরিবারের সকলের সঙ্গে কাজে ব্যস্ত!”

অন্যদিকে একইসময় ইনস্টাগ্রামে আরও একটি ছবি পোস্ট করেছেন শাহেনশাহ। তবে এই ছবিতে রয়েছে কেবল দাদু আর নাতনি। ছোট্ট আরাধ্যা আর তার দাদুর দু’জনের মুখেই মাস্ক নামানো এবং দু’জনেই মাইকের সামনে। ছবির ক্যাপশনে বিগ বি লিখেছেন, “যখন দাদু আর নাতনি নতুন মিউজিক বানানোর জন্য মাইকের সামনে বসে!” তাহলে ঐশ্বর্য-কন্যা আরাধ্যাও কি এবার ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখতে চলেছে! গতকালের পোস্টের পর শুরু হয়ে গেছে তুমুল জল্পনা। অনেকেই আবার মন্তব্য করেছেন, “দাদুর হাত ধরে ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখছে যখন, সফল তো হবেই।”

করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক সারাবছরই মানুষকে তাড়া করে বেড়িয়েছে। এমনকি বিগ বি, অভিষেক, ঐশ্বর্য সকলেই আক্রান্ত হয়েছিলেন। শোনা গিয়েছিল আক্রান্ত হয়নি শুধু ছোট্ট আরাধ্যা । তবে একেবারেই দূরে সরে ছিল সকলের থেকে। সুস্থ হওয়ার পর দাদু, বাবা দু’জনেই কাজে ফিরেছেন। এখন তাই সুযোগ পেলেই তাঁদের সঙ্গে হইহই করতে ব্যস্ত থাকে আরাধ্যা। ছবি দেখে বোঝাও যাচ্ছে তাঁরা ভীষণ মজা করছেন কাজের মাঝে। কেউ কেউ মন্তব্য করে লিখেছেন, “আরাধ্যার কণ্ঠ শুনতে চাই। মিউজিক কবে লঞ্চ করবে তার অপেক্ষাই করব!”

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More