রাজায় রাজায় যুদ্ধ হচ্ছে, সাধারণ মানুষের প্রাণ না যায়! কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত দেখে প্রতিক্রিয়া কংগ্রেসের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে গিয়ে কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাতের যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করল কংগ্রেস। প্রবীণ কংগ্রেস নেতা তথা রাজ্য বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান এদিন বলেন, “কেন্দ্র-রাজ্য ইগোর লড়াই হচ্ছে। কাজের কাজে মনে না দিয়ে রাজায় রাজায় যুদ্ধ চলছে। আমাদের আশঙ্কা এতে সাধারণ মানুষের প্রাণ না যায়।”

এদিন মান্নান সাহেব বলেন, কেন্দ্র-রাজ্য কেউই ধোয়া তুলসীপাতা নয়। গোটা দেশে যখন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার মেঘ ঘনিয়েছিল, তখন কেন্দ্রের মন ছিল স্রেফ রাজনীতি। মধ্যপ্রদেশে সরকার অন্যায় ভাবে ভেঙে তখনও সেখানে সরকার গড়তে মশগুল কেন্দ্রে শাসক দল। লক ডাউনের আগে শপথ নেওয়ার ব্যবস্থা করা হল। তারও আগে দেখেছি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ভারতে আমন্ত্রণ জানিয়ে নিজের প্রচারের বন্দোবস্ত করতে ব্যস্ত প্রধানমন্ত্রী।

প্রবীণ কংগ্রেস নেতার অভিযোগ, এদিকে বাংলাতেও তথৈবচ অবস্থা। সরকার তথ্য গোপন করছে। তাতে আরও বিপজ্জনক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। মানুষ বিভ্রান্ত। শুধু তা নয়, রেশনের চাল, গম, চিনি বন্টন নিয়েও জেলায় জেলায় গণ্ডগোল ও অনিয়মের খবর পাওয়া গিয়েছে। লকডাউন না মেনে বহু জায়গায় রাস্তায় নেমেছে প্রশাসন সে ব্যাপারে উদাসীন ছিল। প্রকৃত কাজের তুলনায় এখানেও প্রচারে ব্যস্ত প্রশাসন।

রাজ্য বিধানসভার বিরোধী দলনেতা বলেন, কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী আগেই বুঝিয়ে দিয়েছেন সংকটের এই পরিস্থিতিতে কংগ্রেস সরকারের পাশে থাকতে চায়। বাংলায় কংগ্রেসের অবস্থানও তাই। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতেও সেই বার্তা দেওয়া হয়েছে। তাঁর কথায়, বর্তমান পরিস্থিতির দাবি হল, কেন্দ্র-রাজ্য সু-সমন্বয় করে কাজ করবে। মানুষকে এই বিপদ থেকে রক্ষা করবে। এবং কোনও ভাবেই জেদ ধরে বা রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়ে পরস্পরের সঙ্গে লড়াই করবে না।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More