তারকার হাত ধরেও ফোটেনি পদ্ম, তবুও রাজনীতির ময়দানে থাকছেন শ্রাবন্তী,পায়েল, তনুশ্রী,পার্নোরা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বঙ্গের ভোট রঙ্গের ক্লাইম্যাক্স স্পষ্ট। ভোর্টের মার্কশিটে একেবারে ডবল সেঞ্চুরী করে বাংলার মসনদে তৃতীয়বারের জন্য বসছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে গেরুয়া শিবিরের তারকা ম্যাজিক কার্যত ধুয়ে মুছে গেছে এই নির্বাচনে। তবে পরাজিত তারকা প্রার্থীরা এই নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে নানারকম মতামত প্রকাশ করেছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। কেউ কেউ তৃণমূলকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, আবার কেউ তো শাসকদলের অরজাকতা নিয়ে মুখ খুলেছেন।

বেহালা পশ্চিমের বিজেপির তারকা প্রার্থী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় রাজনীতির ময়দানে নবাগতা, কিন্তু বিজেপি তাঁকেই হেভিওয়েট নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিপরীতে প্রার্থী করে। কিন্তু বেহালা পশ্চিমে পদ্মফুল ফোটাতে পারেননি শ্রাবন্তী। তিনি ভোটের রেজাল্টের পরে ধন্যবাদ জানান বেহালা পশ্চিমের মানুষকে, আবার সেই সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূল কংগ্রেসকে শুভেচ্ছা জানান।

শ্রাবন্তীর মতো একই পথে হাঁটেন বেহালা পূর্বের বিজেপির তারকা প্রার্থী পায়েল সরকারও। যদিও তিনিও তৃণমূলের রত্না চট্টোপাধ্যায়কে সেই ভাবে কম্পিটিশন দিতে পারেননি। কিন্তু ফল ঘোষণার পরে পায়েল জানান যে রাজনীতির ময়দান তিনি ছাড়বেন না। তৃণমূল কংগ্রেসের সরকারকে শুভেচ্ছা জানান এবং একসঙ্গে মানুষের জন্য কাজ করার বার্তা দেন। অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তীও সেই একই পথে হেঁটেছেন।

তবে এই তিন অভিনেত্রীর থেকে একটু ভিন্ন পথে পা বাড়ালেন অভিনেত্রী পার্নো মিত্র। তিনি ভোটের ফলাফল পরবর্তী বাংলায় যে বিক্ষিপ্ত হিংসা ছড়িয়েছে, সেই নিয়ে শাসকদলের বিরুদ্ধে তোপ ডাকেন। তিনি লেখেন, “হোয়াট বেঙ্গল থিংকস টুডে, ইন্ডিয়া থিংক টুমোরো। বেঙ্গল ইস বার্নিং টুডে, উইল ইন্ডিয়া আলসো বার্ন টুমোরো?” সেই সঙ্গে তিনি সকলের কাছে অনুরোধ জানান এই হিংসা বন্ধ করার জন্য।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More