কেরলে ভয়ঙ্কর বিমান দুর্ঘটনা, দু’টুকরো হয়ে গেল এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস, মৃত দুই পাইলট সহ ১৫

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শুক্রবার কেরলের কোঝিকোড় ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনার কবলে পড়ল এয়ার ইন্ডিয়ার একটি এক্সপ্রেস বিমান। মারা গেলেন ১৫ জন। দুবাই থেকে আসছিল ফ্লাইট নাইন -১৩৪৪৷ ১৮৪ জন যাত্রী, দুই পাইলট ও পাঁচ কর্মী সহ মোট ১৯১ জন ছিলেন ওই বিমানে। যাত্রীদের মধ্যে ১০ জন ছিল শিশু। সন্ধ্যা সাতটা ৪০ মিনিটে  বিমানবন্দরের রানওয়েতে অবতরণের সময়ে পিছলে যায় বিমানটি। দুই পাইলটই মারা গিয়েছেন।

যাত্রীদের সকলকেই উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে আহত হয়েছেন ৫০ জন। ১৫ জনের অবস্থা গুরুতর। দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানটি ‘বন্দে ভারত’ মিশনে কাজ করছিল। করোনা অতিমহামারীতে আটকে পড়া যাত্রীরা সেই বিমানে চড়ে দুবাই থেকে ফিরছিলেন। প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে, অত্যন্ত খারাপ আবহাওয়ার কারণেই এই বিপর্যয়। যখন প্লেনটি ল্যান্ড করছিল, তখন প্রবল ঝড় বৃষ্টি হচ্ছিল। রানওয়ে থেকে স্কিড করে যায় বিমানটি। প্লেনটি দু’টুকরো হয়ে ৩৫ ফুট গর্তে পড়ে যায়। প্লেনের সামনের অংশটা সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

কোঝিকোড় বিমানবন্দর ম্যাঙ্গালুরুর মতোই টেবিলটপ এয়ারপোর্ট। সেখানেই ঘটে যায় দুর্ঘটনা। বিমানবন্দর সূত্রের খবর, কপাল ভাল প্লেনটিতে আগুন লেগে যায়নি। এত বড় দুর্ঘটনায় সে ঝুঁকি ছিল পূর্ণমাত্রায়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, দুর্ঘটনার খবর দুঃখজনক। আমি এনডিআরএফকে নির্দেশ দিয়েছি, তারা যেন দ্রুত ঘটনাস্থলে যায় ও ত্রাণকার্যে সহায়তা করে।

কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন বলেন, আমি পুলিশ ও দমকলকে ত্রাণকার্য চালানোর নির্দেশ দিয়েছি।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More