শরিক এডিএমকে-র সঙ্গে বিজেপির মতবিরোধ, দু’দিনের তামিলনাড়ু সফরে অমিত শাহ

দ্য ওয়াল ব্যুরো : শনিবার সন্ধ্যায় চেন্নাইতে গেলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তাঁকে অভ্যর্থনা জানানোর জন্য বহু সংখ্যক বিজেপি সমর্থক জড়ো হয়েছিলেন বিমানবন্দরে। পথে গাড়ি থেকে নেমে সমর্থকদের উদ্দেশে হাত নাড়েন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, দু’দিনের তামিলনাড়ু সফরে অমিত শাহ দলের কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। আগামী বছরে তামিলনাড়ুতে বিধানসভা নির্বাচন হবে। তার আগে দলের নির্বাচনী কৌশল স্থির করবেন অমিত শাহ।

এদিন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চেন্নাইয়ে মেট্রো রেলের দ্বিতীয় পর্যায়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। সেই প্রকল্পে খরচ হবে ৬৭ হাজার কোটি টাকা। প্রোটোকল ভেঙে তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ই পালানিস্বামী বিমানবন্দরে অমিত শাহকে স্বাগত জানাতে গিয়েছিলেন। উপমুখ্যমন্ত্রী ও পনিরসেলভাম, আরও কয়েকজন মন্ত্রী এবং রাজ্যের বিজেপি এল মুরুগনও বিমানবন্দরে গিয়েছিলেন।

বিজেপি সূত্রে দাবি করা হয়েছে, এডিএমকে-র সঙ্গে তাদের জোট ভাঙবে না। এডিএমকে কিন্তু অমিত শাহের সফরকে বিশেষ গুরুত্ব দিতে নারাজ। তাদের বক্তব্য, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সরকারি সফরে এসেছেন।

সম্প্রতি ‘ভেত্রি ভেল যাত্রা’ নিয়ে এডিএমকে-র সঙ্গে বিজেপির সংঘাত বাধে। বিজেপি ৬ নভেম্বর থেকে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত মুরুগা দেবের আরাধনায় ভেত্রি ভেল যাত্রা করতে চেয়েছিল। কোভিড সংকটের মধ্যে এডিএমকে সরকার সেই যাত্রার অনুমতি দেয়নি। বিজেপি তখন অভিযোগ করে, কোনও কোনও দল হিন্দুবিরোধী মানসিকতা থেকে এই যাত্রায় বাধা দিয়েছে।

এরপর বিজেপির একটি প্রচার ভিডিওয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে এডিএমকে-র প্রতিষ্ঠাতা এমজিআরের একটি ভিডিও ক্লিপ ব্যবহার করা হয়। তাতে অসন্তুষ্ট হয় এডিএমকে।

তামিলনাড়ুতে বিধানসভা ভোট হতে আর ছ’মাসও বাকি নেই। দুই গুরুত্বপূর্ণ নেতা, এম করুণানিধি ও জে জয়ললিতার মৃত্যুর পরে প্রথমবার তামিলনাড়ুতে বিধানসভা নির্বাচন হচ্ছে। বিজেপি চায়, এই সুযোগে দক্ষিণের একটি গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যে যত বেশি সংখ্যক আসন পেতে। কর্নাটক বাদে দক্ষিণের অন্যান্য রাজ্যে এখনও তেমন সংগঠন গড়ে তুলতে পারেনি বিজেপি।

এডিএমকে এখনও বিজেপিকে বন্ধু দল বলে মনে করে। রাজ্যসভায় এনডিএ-র বেশ কয়েকটি বিলকে তারা সমর্থন করেছে। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে অবশ্য বিজেপি-এডিএমকে জোট তামিলনাড়ুতে ভাল ফল করতে পারেনি।

কিছুদিন আগে শোনা গিয়েছিল, অমিত শাহ চেন্নাইতে গেলে তাঁর সঙ্গে দেখা করবেন করুণানিধির বড় ছেলে এম কে আলাগিরি। তিনি ভোটের আগে নতুন দল গড়তে পারেন। সেজন্য তাঁকে বিজেপি সাহায্য করবে। খুব শীঘ্র আলাগিরি বিজেপির শীর্ষ নেতা অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করতে পারেন বলে জানা যাচ্ছে।

এক সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে আলাগিরি বলেন, “আমি আমার সমর্থকদের সঙ্গে কথা বলছি। আমরা ভেবে দেখছি, নতুন দল তৈরি করব না ভোটের আগে অপর কোনও দলকে সমর্থন করব?” বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগের কথা উড়িয়ে দিয়ে আলাগিরি বলেন, “এসবই বানানো গল্প। বিজেপির কেউ আমার সঙ্গে কথা বলেনি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমার সঙ্গে দেখা করতে যাবেন কেন?”

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More