ইয়েস ব্যাঙ্কের টাকা তছরুপ, অনিল অম্বানীকে তলব করল ইডি

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ইয়েস ব্যাঙ্ক কেলেঙ্কারিতে তাঁর নাম উঠেছিল আগেই। এরপর ওই ব্যাঙ্কের টাকা তছরুপের দায়ে সোমবার রিলায়েন্স গ্রুপের প্রধান অনিল অম্বানীকে ডেকে পাঠাল এনফোর্সমেন্ট ডায়রেক্টরেট। তাঁকে মুম্বইতে ইডির অফিসে হাজির হতে বলা হয়েছে। ইয়েস ব্যাঙ্ক থেকে তাঁকে যে ঋণ দেওয়া হয়েছিল, সে বিষয়েই জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। অনিল অম্বানী বলেছেন, তিনি অসুস্থ। দেখা করার আগে তিনি আরও সময় চেয়েছেন।

একটি সূত্রে জানা যায়, রিলায়েন্সের অন্যান্য অফিসারকেও চলতি সপ্তাহের শেষে ডেকে পাঠানো হবে।

এর আগে ইয়েস ব্যাঙ্কের পুনরুজ্জীবনে নির্দিষ্ট প্রস্তাব দিয়েছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। গত শুক্রবার অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন জানিয়েছেন, সেই প্রস্তাব অনুমোদন করেছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। তাঁর কথায়, “রিজার্ভ ব্যাঙ্কের প্রস্তাবমতো স্টেট ব্যাঙ্ক আগামী দিনে ইয়েস ব্যাঙ্কের ইকুইটিতে ৪৯ শতাংশ বিনিয়োগ করবে। অন্যান্য বিনিয়োগকারীদেরও আহ্বান জানানো হচ্ছে।” এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা বৈঠকে বসে। তার পরে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের একথা জানান।

ইয়েস ব্যাঙ্কের পুনরুজ্জীবনে আরবিআই যে প্রস্তাব দিয়েছে, তাতে ইয়েস ব্যাঙ্কের ৪৯ শতাংশ শেয়ারের মালিক হবে স্টেট ব্যাঙ্ক। ওই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক আগামী তিন বছর ইয়েস ব্যাঙ্কের ২৬ শতাংশ হোল্ডিং নিজের হাতে রাখবে। ইয়েস ব্যাঙ্কের কোনও কর্মীকেই ছাঁটাই করবে না।

আরবিআই কিছুদিন আগে ইয়েস ব্যাঙ্ক থেকে একসঙ্গে ৫০ হাজার টাকার বেশি তোলা নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। অর্থমন্ত্রী বলেন, ইয়েস ব্যাঙ্কের পুনরুজ্জীবন নিয়ে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হবে। তারপর তৃতীয় কাজের দিনে সন্ধ্যা ছ’টায় উঠে যাবে নিষেধাজ্ঞা। তার সাত দিন পরে খালি করে দেওয়া হবে অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের অফিস। তৈরি হবে নতুন বোর্ড।

এদিন জানা যায়, ইয়েস ব্যাঙ্কের ইকুইটিতে ১ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক। প্রতিটি ১০ টাকা দরে ওই ব্যাঙ্ক ইয়েস ব্যাঙ্কের ১০০ কোটি ইকুইটি শেয়ার কিনবে। সম্পত্তির বিচারে দেশের সবচেয়ে বড় ঋণদাতা ব্যাঙ্ক এসবিআই বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, তারা ইয়েস ব্যাঙ্কের ৭২৫ কোটি শেয়ার কিনবে। তার প্রতিটির দাম ১০ টাকা।

বেশ কিছুদিন ধরে ইয়েস ব্যাঙ্কে আর্থিক সংকট চলছিল। দেশের পঞ্চম বৃহত্তম বেসরকারি ঋণদাতা ওই ব্যাঙ্কের ওপরে গত সপ্তাহে আরবিআই নিষেধাজ্ঞা জারি করে। ব্যাঙ্কের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রাক্তন ম্যানেজিং ডিরেক্টর রানা কাপুর টাকা তছরুপের দায়ে গ্রেফতার হন।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More