প্রয়াত ডক্টর সুকুমার হাঁসদা, রাজ্য বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার ছিলেন তিনি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রয়াত হলেন রাজ্য বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার ডক্টর সুকুমার হাঁসদা। আজ, বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা ২০ নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। গত এক সপ্তাহ যাবৎ ক্যানসারের সমস্যা নিয়ে বাইপাসের অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। মূলত প্রোস্টেটের সমস্যার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে। সেই সঙ্গে থাবা বসায় করোনাও। বেশ কিছুদিন যমে-মানুষে টানাটানির পরে আজ সকালে হাসপাতালেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

প্রথম জীবনে ঝাড়গ্রাম হাসপাতালের চিকিৎসক ছিলেন তিনি। এরপর তৃণমূলের আমলে তিনি রাজনীতির আঙিনায় পা রাখেন। ২০১১ সালে ঝাড়গ্রাম বিধানসভা থেকে জিতে বিধায়ক হন ডঃ সুকুমার হাঁসদা। তাঁকে রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন মন্ত্রীও করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু ২০১৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর তাঁকে আর মন্ত্রিসভায় রাখেননি মমতা।

এর পরে ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে আদিবাসী ভোটব্যাঙ্কে ব্যাপক ধস নামে তৃণমূলের। আর সেই সময়েই মারা যান রাজ্য বিধানসভার তৎকালীন ডেপুটি স্পিকার হায়দার আজিজ শফি। সেই ভোটের পরেই সুকুমার হাঁসদাকে বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার করা হয়েছিল। কিন্তু নিজের মেয়াদ শেষে মাস চারেক আগেই, ৬৭ বছর বয়সে প্রয়াত হলেন এই আদিবাসী চিকিৎসক নেতা।

তাঁর মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ রাজনৈতিক মহল। টুইটে শোকপ্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সুকুমার হাঁসদার আত্মার শান্তি কামনা করেন। শোকস্তব্ধ পরিজনদের সমবেদনাও জানান। পাশাপাশি ঘোষা করা হয়েছে, আজ সারাদিন সমস্ত সরকারি অফিসে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে প্রয়াত সুকুমার হাঁসদার শ্রদ্ধায়।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More