নোবেলের দম্ভ চুরমার, নতুন গানের ভিডিওয় লাইকের চেয়ে বহুগুণ বেশি ডিসলাইক! দর্শকরা ‘তামাশা’ করছেন যেন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একদিকে নোভেল করোনাভাইরাসের আতঙ্ক, আর অন্যদিকে বাংলাদেশের গায়ক নোবেলকে নিয়ে বিতর্ক। এই দুইয়ের মাঝে যেন নেটিজেনরা দম ফেলার ফুরসত পাচ্ছেন না।

সদ্য প্রকাশ পেয়েছে বাংলার রিয়্যালিটি শো ‌‌‘সারেগামাপা’র বিতর্কিত গায়ক মইনুল আহসান নোবেলের নতুন গান ‘তামাশা’। কিন্তু গানটিতে লাইকের বহু গুণ বেশি ডিসলাইক দিয়েছেন দর্শকরা। এই অপছন্দের প্রকাশ বেড়েই চলেছে হু হু করে। আজ, রবিবার সকাল ১০টায় ‘নোবেল ম্যান’ নামে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে গানটি প্রিমিয়ার করে মুক্তি দেন গায়ক। এখনও পর্যন্ত গানটিতে লাইক পড়েছে ২০ হাজার ও ডিসলাইক পড়েছে ১ লক্ষ ২০ হাজারেরও বেশি।

এর কারণ হিসেবে গানটির মান যতটা না আলোচ্যের বিষয়, তার চেয়েও বেশি করে খোদ নোবেলই হয়ে উঠেছেন শ্রোতামহলের অপ্রিয় মানুষ। কারণ তাঁর মহিলাদের প্রতি কুমন্তব্য ও দূরাচার এবং যে দেশের রিয়্যালিটি শো দিয়ে তাকে সবাই চেনে সেই দেশের প্রধানমন্ত্রীর প্রতি লাগাতার অপমান।

আজকের প্রকাশিত গানটিতে দেখা যাচ্ছে নোবেলের বর্তমান স্ত্রী মেহরুবা সালসাবিল রয়েছেন। গানটিতে তাঁরা মাস্ক পরে চুমু খাওয়ার চেষ্টা করছেন। করোনার বার্তা রয়েছে ‘তামাশা’ গানে। গানের প্রচারের জন্য বাংলাদেশ-ভারতব্যাপী বিতর্ক তৈরি করেছিলেন নোবেল। অপমান করেছিলেন দেশের লেজেন্ড শিল্পীদের। যার জন্য শ্রোতারা আরও ক্ষিপ্ত।

কিন্তু যে গানের জন্য এত কিছু, সেই গানের মিউজিক ভিডিও দেখেই হতাশ হয়েছে দর্শক শ্রোতারা। তাই গানটির জন্য নোবেল পাচ্ছেন ডিসলাইক ও কু-মন্তব্য। কেউ কেউ বলছেন লেজেন্ডদের বিখ্যাত গান গেয়ে পরিচিতি পাওয়া হয়তো সহজ, কিন্তু নিজে ভাল মৌলিক গান গাইতে অনেক সাধনা করতে হয়। ছোট মুখে বড় কথা বলে ভাইরাল হলেই দর্শকদের প্রিয় হওয়া যায় না।

নোবেল জানিয়েছেন, তিনি চেয়েছিলেন ‘তামাশা’ গানের ভিডিও বড় করে কোথাও শ্যুট করতে। কিন্তু করোনার জন্য লকডাউন হওয়ার কারণে পুরোটাই নিজের বাড়িতে শ্যুট করেছেন নোবেল। ইচ্ছে ছিল কোনও নামী মহিলা মডেল মহিলাকে নেবেন, সেখানেও জল ঢেলেছে লকডাউন। তাই নিজের স্ত্রীকেই নিয়েছেন তিনি। গানের কথা ও সুর করেছেন কৌশিক জিহান, আয়োজনে টিম নোবেল। মিউজিক ভিডিওটি পরিচালনা করেন নাজমূল হাসান।

গানটিতে দেখা যাচ্ছে সকালে ঘুম ভাঙছে নোবেলের। মিউজিক ভিডিওতে তিনি গায়ক এবং নায়ক। ঘুম ভেঙে পোষ্য ছোট্ট বিড়ালকে আদর করে বাথরুমে যাচ্ছেন। অর্ধনগ্ন নোবেলকে স্নান করতেও দেখা যাচ্ছে। ব্রেকফাস্টে পাউরুটি টোস্ট আর ডিমের পোচ। এর পরে বান্ধবীর ছবি দেখে ব্ল্যাক এন্ড হোয়াইটে ফ্ল্যাশব্যাকে আসছে বান্ধবীর সঙ্গে কিছু আবেগঘন মুহূর্ত। দরজায় কলিং বেল বেজে উঠল। দরজা খুলতেই মাস্ক পরে গার্লফেন্ড হাজির। গার্লফ্রেন্ডকে ঘরে ঢোকানোর আগে স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার। তার পরে কাছে আসা, গভীর চুম্বন করতে চাওয়া, কিন্তু বাধা মাস্ক। তাই গার্লফেন্ড অখুশি হয়ে ঘর ছাড়ছে। নোবেল ফিরে যাচ্ছে গিটার হাতে, সঙ্গে প্রিয় পোষ্য।

তামাশা গানের টিজারে অবশ্য ছিল, স্ত্রীকে চুম্বন দৃশ্য। সেটি নিয়েও বিতর্ক হওয়ায় গানটি থেকে এডিট করে বাদ দেওয়া হয়েছে দৃশ্যটি। স্বামীর গানের ভিডিওয় অভিনয় করে সালসাবিল বলেছিলেন, ‘ভাবিনি গানের ভিডিওতে মডেল হিসেবে কাজ করব। দেখা যাক আমাকে পর্দায় কেমন দেখায়।’

দেখুন গানটির ভিডিও।

https://youtu.be/lS8CGmZ1rWU

নোবেলের ‘তামাশা’ গানটিতে লাইকের চেয়ে যেমন ডিসলাইক বেশি তেমনই কয়েক হাজার মন্তব্যও রয়েছে নেতিবাচক। যেমন:

“নোবেল তুমি চরম বোকা। নিজে হাতে নিজের সম্মান নষ্ট করলে। এই গান ডিসলাইকের নতুন রের্কড গড়বে।”
“এত বিশ্রী গান, খালি কলসি বাজে বেশি।”
“কী যেন কইছিলি তুই লেজেন্ডদের গান শিখাবি, কেমনে মিউজিক করতে হয়।”
“ভাবছিলাম তামাশা গানটা খুবই সুন্দর হবে। আর তার জন্য নোবেলের পক্ষে থেকে সবার বিরুদ্ধে লড়াই করেছি। এখন দেখছি, সবাই ঠিক, নোবেল ভুল। আমাকে ক্ষমা করে দাও!”

এসবের পাশাপাশি অসংখ্য অশালীন ও কুমন্তব্যও রয়েছে।

কয়েক দিন আগেই দেশের লেজেন্ড শিল্পীদের নিয়ে অপমানজনক মন্তব্য করে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন মইনুল আহসান নোবেল। এই কারণে তাঁকে ঢাকার র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ান (র‍্যাব)এ-র দফতরেও ডাকা হয়েছিল। সেখানে নিজের ভুল স্বীকার করে দেশবাসীর কাছে ক্ষমাও চান গায়ক নোবেল। নিজের সঙ্গী পরিবর্তন নিয়েও ক’দিন আগে বিতর্কিত হন নোবেল। তার এই স্ত্রী তৃতীয় বিবাহ বলে ঝড় ওঠে, কিন্তু নোবেল দাবি করেন এটিই তাঁর প্রথম বিবাহ।

তবে তাঁর কাছে বহুগামী হওয়া দোষের নয় বলেই জানান তিনি। নোবেল বলেন, তিনি জীবনে অনেকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন কিন্তু সেটা বিয়ের আগে। এমনকি বিয়ের আগে তাঁর সম্পর্ক অগণিত বলেও দাবি করেন তিনি। বলেন, “আমার সঙ্গে এর আগে কোনও মেয়ের বিয়ে হয়নি। তবে আমার সঙ্গে অনেক মেয়ের রিলেশন ছিল। এত মেয়ের রিলেশন ছিল যে গুনে শেষ করা যাবে না। আর বয়সের কারণে এটা হয়ই। বিয়ের আগে সবার জীবনে এমন প্রেম থাকেই। কারও কম, কারও বেশি। আমার একটু বেশিই ছিল। এ অবস্থায় এখন যদি বলা হয় এটি আমার তৃতীয় বিয়ে, ঠিক নয়। অত্যাচার কারও ওপর করিনি। তৃতীয় বিয়ের খবরটি গুজব, বিভ্রান্তিকর।”

নোবেলের স্ত্রী-কে মারধরের বিষয়টি নিয়েও সরব হয়েছিলেন বাংলাদেশের সমাজকর্মী অমি রহমান পিয়াল। তাঁর দাবি, আগের দুই স্ত্রী-র মতোই তৃতীয় স্ত্রীকেও বেধড়ক মারধর করেন নোবেল। সোশ্যাল সাইটের পোস্টে পিয়াল লিখেছেন, “এই তো সপ্তাহ দুয়েক আগেই নিজের মা-বোনকে গভীর রাতে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছিলেন নোবেল। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামালায়। আর স্ত্রী? তাঁর কী অবস্থা? তাঁকে নিয়ম করে তিনবেলা মারধর করে বাংলাদেশের সুপারস্টার সিঙ্গার।” যদিও এই মিউজিক ভিডিও দেখলে এসব বিতর্ক বা অভিযোগ বোঝার উপায় নেই। মিঞা-বিবি দু’জনে রোম্যান্টিক মুডেই শ্যুট করেছেন নিজেদের ফ্ল্যাটে।

মইনুল আহসান নোবেলের অহংকার আর ঔদ্ধত্য প্রতিবারই তাঁকে রোষানলে ফেলে। নরেন্দ্র মোদীকে অযথা কুকথা থেকে বাংলাদেশের লেজেন্ড শিল্পীদের অপমানজনক মন্তব্য থেকে নিজের যৌন জীবনের কেচ্ছা– বাদ নেই কিছুই। তাই তাঁর নিজের দেশের লোকেরাই হাঁড়ি উপুড় করে অশালীন কমেন্টে ও নেগেটিভ ডিসলাইকে ভরিয়ে দিয়েছে নোবেলের তামাশা ভিডিওর কমেন্ট বক্স।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More