বিজেপি নেতা শিবপ্রকাশকে নোটিশ, ধর্ষণ মামলায় ডাকল বেহালা পুলিশ

ওই মহিলা বিজেপি কর্মীর অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১৮ সালে রাজ্য বিজেপির তৎকালীন সংগঠন সম্পাদক অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতারও করে পুলিশ। পরে ওই মহিলাকে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতিতে জামিন পান তিনি। কথা মতো বিয়ে হলেও পরে এক সঙ্গে থাকতে নারাজ হন অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায়।

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাজ্য বিজেপির ভারপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় নেতা শিবপ্রকাশকে ধর্ষণ মামলায় নোটিশ পাঠাল পুলিশ। ২০১৮ সালে এক মহিলা বিজেপি কর্মীকে ধর্ষণের মামলায় আগামী সাতদিনের মধ্যে হাজিরার নির্দেশ দিয়ে নোটিশ জারি করেছে বেহালা থানা।

আরও পড়ুন

‘জয় শ্রীরাম’ না বলায় সপাটে চড়, প্রৌঢ় অটো চালককে বেধড়ক মার রাজস্থানে

উল্লেখ্য, ওই মহিলা বিজেপি কর্মীর অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১৮ সালে রাজ্য বিজেপির তৎকালীন সংগঠন সম্পাদক অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায়কে দিল্লি থেকে গ্রেফতারও করে পুলিশ। পরে ওই মহিলাকে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতিতে জামিন পান তিনি। কথা মতো বিয়ে হলেও পরে এক সঙ্গে থাকতে নারাজ হন অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায়। সেই সময়ে এই মামলা কিছুটা ধামাচাপা পড়ে গেলেও ফের তা নিয়ে পদক্ষেপ করল কলকাতা পুলিশ। নোটিশে বলা হয়েছে, শিবপ্রকাশকে বেহালা থানার তদন্তকারী অফিসার প্রসেনজিৎ পোদ্দারের সঙ্গে আগামী সাতদিনের মধ্যে দেখা করতে হবে।

জানা গিয়েছে, করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকেই দিল্লিতে রয়েছেন বিজেপির এই কেন্দ্রীয় নেতা। তাই দিল্লি বিজেপির ঠিকানাতেই নোটিশ পাঠিয়েছে পুলিশ। ওই মহিলা বিজেপি কর্মীর অভিযোগে বারবারই উঠে আসে শিবপ্রকাশের নাম। ৭ অগস্ট বেহালা থানা নোটিশ পাঠিয়েছে। বেহালা থানা এলাকার বাসিন্দা ওই মহিলার অভিযোগ অনুযায়ী ২০১৮ সালের অগস্ট থেকে আইপিসির ৩৭৬, ৪১৭, ৪০৬, ৩১৩ ধারায় মামলা চলছে। এই মামলায় ইতিমধ্যেই চার্জশিটও পেশ করা হয়। তাতেও শিবপ্রকাশের নাম রয়েছে।

এই নোটিশ সম্পর্কে তাঁর মতামত জানতে একাধিকবার ফোন করেও যোগাযোগ করা যায়নি ‌বিজেপি নেতা শিবপ্রকাশের সঙ্গে। তবে রাজ্য বিজেপি সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই এনিয়ে আইনি পরামর্শ নেওয়া শুরু হয়েছে। উল্লেখ্য, এই মামলার প্রেক্ষিতেই রাজনীতি ছাড়তে হয় অমলেন্দু ‌চট্টোপাধ্যায়কে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More