করোনা পরবর্তী জটিলতা নিয়ে রোগী ভর্তি বাড়ছে, উদ্বিগ্ন দিল্লির চিকিৎসক মহল

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কোভিড থেকে সেরে উঠলেও সুস্থ হচ্ছেন না আক্রান্তদের অনেকেই। ফের হাসপাতালে যেতে হচ্ছে। শ্বাসকষ্ট, জ্বরের মতো সমস্যাও দেখা দিচ্ছে। দিল্লিতে কোভিড-পরবর্তী জটিলতা নিয়ে ভর্তি হওয়া আক্রান্তদের নিয়ে জেরবার সেখানকার চিকিৎসকেরা।

সংক্রমণ কমলেও এই নয়া দুর্ভোগে সিদুঁরে মেঘ দেখছেন কেউ কেউ। সরকারি তরফেও সমস্যার কথা স্বীকার করা হয়েছে। প্রতিদিন গড়ে ২৫-৩০ জন রোগী কোভিড জিতেও ফের অসুস্থ হয়ে হাসপাতাল যাচ্ছেন। করোনার প্রথম ঢেউয়ের সময়েও পোস্ট কোভিড সিনড্রোম দেখা গেছিল। কিন্তু তখন তার উপসর্গ এত মারাত্মক ছিল না। শারীরিক দুর্বলতা, গায়ে-হাতে ব্যথা এবং কখনও কখনও জ্বর— মোটামুটি এই ছিল লক্ষণ। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে রোগীদের বাড়িতে রেখে চিকিৎসা করালেই তাঁরা সুস্থ হয়ে উঠছিলেন।

কিন্তু এবার সেই ছবি পুরোপুরি বদলে গেছে। রাজধানীর ম্যাক্স হাসপাতালের রেসপিরেটরি মেডিসিনের বিশেষজ্ঞ ডা. বিবেক নাঙ্গিয়া জানান, ‘আমাদের সেন্টারের ৭০-৮০ শতাংশ বেডেই কোভিডজয়ী রোগীরা ভর্তি হয়েছেন। সাধারণভাবে ৬৫ ঊর্ধ্ব কিংবা ধূমপানে অভ্যস্ত ব্যক্তিরা করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সেরে উঠলে তাঁদের ফুসফুসে ফাইব্রোসিস দেখা যায়। কিন্তু এ বছর প্রচুর সংখ্যক মাঝবয়সী এমনকী শিশুরাও সংক্রামিত হয়েছেন। আর তাঁদের পোস্ট কোভিড লক্ষণের মধ্যে শ্বাসকষ্ট অন্যতম। ফলে করোনামুক্ত হওয়ার পরেও অক্সিজেনের সাপোর্ট দিতে হচ্ছে।’

কিন্তু শুধু শ্বাসকষ্ট নয়। কোভিডের থাবা থেকে বেরিয়ে আসার পরেও অনেকের প্রবল জ্বর আসছে। দিল্লির অ্যাপোলো হাসপাতালের ইন্টার্নাল মেডিসিনের চিকিৎসক সুরঞ্জিত চ্যাটার্জি জানান, করোনামুক্তির ৪-৭ সপ্তাহ বাদেও প্রচুর রোগীর এই উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। ফার্স্ট ওয়েভের সময়েও জ্বর দেখা দিত। কিন্তু এবার তার জটিলতা অনেক বেশি। বাধ্য হয়ে অনেককে স্টেরয়েডও দিচ্ছেন চিকিৎসকেরা। ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের ভ্রূকুটি তো রয়েছেই। সেই সঙ্গে পোস্ট কোভিড অবস্থায় ফাঙ্গাল ও ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশনও রোগীদের শরীরে দানা বাঁধছে। সব মিলিয়ে আপাতত অ্যাপোলোর ৮০ শতাংশ বেডেই কোভিডমুক্ত আক্রান্তদের ভর্তি করতে হয়েছে। এমনকী কারও কারও শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি হওয়ায় আইসিইউ-তেও নিয়ে যেতে হয়েছে।

Leave a comment

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More