Browsing Category

ব্লগ

মান্না দে’র মতো গান গাইতে বলায় রেগে গেছিলেন কিশোরকুমার

সুদেব দে হিন্দি সুগম সংগীতের জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র যদি হন আমার সেজকাকু মান্না দে, তাহলে অন্যজন নিঃসন্দেহে কিশোর কুমার। দুজন অসীম প্রতিভাধর সংগীতসাধক, কেমন ছিল তাঁদের দুজনের সম্পর্ক! এই দুই দিকপাল গায়ককে আজ কিছু কথা বলব আপনাদের। তবে…

মন কাড়তে এমন শীতে, বানিয়ে ফেলুন হরেক পিঠে

সাবিনা ইয়াসমিন রিংকু পিঠে তৈরি করা যে ভীষণ ঝামেলার কাজ, সেটা আজকের মহিলারা বুঝে গেছেন। জিনিসপত্র জোগাড় করা থেকে বানানো পর্যন্ত একটা আস্ত দিন গপ গপ গপাস করে গিলে নেয় পিঠের দল। আগে বাড়ির মেয়েরাই মাথা খাটিয়ে পিঠে বানানোর পাত্র তৈরি…

আমার সেজকাকু (একবিংশ পর্ব)

সুদেব দে সেজকাকুকে নিয়ে কিছু অজানা অভিজ্ঞতার কথা বলব এই পর্বে। দেশ বিদেশে কোটি কোটি বাঙালি- অবাঙালি শ্রোতা আছেন যারা আজও মান্না দে'র গানে মুগ্ধ। এই শ্রোতাদের বড়সংখ্যক আবার গানবাজনার ছাত্র। তাঁদের মধ্যে যাঁরা আমার এই লেখা পড়েন, নানা সময়ে…

বিরিয়ানির সঙ্গে বোরহানি, বানাবেন কীভাবে?

সাবিনা ইয়াসমিন রিংকু মৌসম এখন যাচ্ছেতাই রকমের সুহানি। করোনার মারাত্মক ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন বিদেশে বা ভারতে ঠিক কতটা ছড়ালো বা ছড়াতে পারে, সেসব নিয়ে প্রকৃতির কোনও হেলদোল নেই। আমাদেরও নেই। থাকলে নিশ্চয়ই নিয়ম করে মাস্ক পরতাম! স্যানিটাইজর…

লতা মঙ্গেশকরের জন্য কলকাতা থেকে দই কিনে নিয়ে যেতেন মান্না দে

সুদেব দে সেজকাকুর সঙ্গে আমার সম্পর্কটা ছিল বাবা-ছেলের মতো। গান শেখার মধ্যে দিয়েও নানা সময় তাঁর সাহচর্য পেয়েছি। গান শেখাতে গিয়ে গল্পচ্ছলে বিভিন্ন শিল্পীকে নিয়ে, বিভিন্ন কম্পোজারকে নিয়ে অনেক কথাই তিনি বলেছেন। সেসব কথা নেহাতই আমার শিক্ষার…

কৃষ্ণচন্দ্র দে’র কাছে নাড়া বেঁধে গান শিখেছিলেন শচীনদেব বর্মন

সুদেব দে গান শেখার ক্ষেত্রে শ্রুতি ব্যাপারটা খুব গুরুত্বপূর্ণ, গুরুজনেরা বলেন গাওয়ার থেকেও শোনা জরুরি। এই শোনার পাশাপাশি যদি জন্মগত প্রতিভায় শ্রোতার কণ্ঠস্বর ভালো হয়, আর বেসিক ইনটেলিজেন্স থাকে তাহলে শুনে শুনেই সঙ্গীতের অনেকখানি আয়ত্ত করে…

বাংলার হেঁশেল (ফুলকপির জোড়া রেসিপি)

সাবিনা ইয়াসমিন রিঙ্কু গ্রীষ্মকালের শাকসবজি শীতে খেয়ে মজা নেই। ঋতুর আনাজপাতি সেই নির্দিষ্ট ঋতুকে খেলে তবেই আসল স্বাদটা ঠিকঠাকভাবে পাওয়া যায়। অনেক বছর আগের কথা। তখন সারা বছর ফুলকপি, বাঁধাকপি পাওয়া যেত না। কোনও কোনও কৃষকভাই দুর্গাপুজোয় অষ্টমীর…

আমার সেজকাকু (বিংশ পর্ব)

সুদেব দে এবারের পর্বে কথা বলব এমন একটা গান নিয়ে, যেটা সেজকাকুর কণ্ঠে আজও বিপুল জনপ্রিয়। 'কফি হাউজের সেই আড্ডাটা আজ আর নেই'... এই বিখ্যাত গানটির নেপথ্যের কিছু গল্প, গল্প বলা ভুল, আসলে ঘটনা, আজ আপনাদের সামনে তুলে ধরব। আগেও বলেছি, মাননীয়…

মান্না দে’র ডিসিপ্লিন ছিল দেখার মতো

সুদেব দে কলম ধরতে বসে কখন কোন স্মৃতি মাথায় আঁকড়ে ধরে, আগে থেকে বোঝা মুশকিল। তাই ভেবেছি আজ আপনাদের বলব আমার ছেলেবেলায় দেখা আমার সেজকাকুর কথা। তাঁর দুটো জীবন আমি দেখেছি। একটি তাঁর কলকাতার জীবন, আর অন্যটি তাঁর বম্বের জীবন। আমাদের ছোটোবেলায়…

অনেক নামী-দামি ক্ল্যাসিকাল শিল্পীর পসার নষ্ট করার ক্ষমতা রাখতেন মান্না দে

সুদেব দে আমাদের দে পরিবার বরাবরই একান্নবর্তী যৌথ পরিবার।  মান্না দে, সম্পর্কে আমার বাবার সেজ ভাই, আমাদের সেজো কাকু। বাবারা ছিলেন চার ভাই। আমার বাবা শ্রী প্রণব দে তাদের মধ্যে সবার বড়। নিউ থিয়েটার্সের ২নম্বর স্টুডিওর মিউজিক ডিরেক্টর ছিলেন…

বাংলার হেঁশেল- চুনো মাছের দুই পদ

সাবিনা ইয়াসমিন রিংকু একটা ব্যাপার লক্ষ্য করেছেন কিনা জানি না! বহুকাল ধরেই রুই, কাতলা, মাগুর, পোলট্রির একইরকম স্বাদ ! কাদা কাদা। অথবা ছিবড়ে। অনেকক্ষণ ধরে দাঁতে পেষার পরেও মোলায়েম হয়ে মুখে মিলিয়ে যায় না। চেবানো সজনে ডাঁটার মতো মুখের একপাশে…

মান্না দে রাজার মতোই থাকতেন, চেষ্টা হয়েছিল কালি লাগানোর

সুদেব দে অনেকদিন ধরেই ভাবছিলাম কাকাকে নিয়ে লিখব। আমাদের জীবনে জড়িয়ে থাকা কাকার এত যে স্মৃতি, তা লিখে রেখে যাওয়া প্রয়োজন। গানবাজনার সূত্রে দেশে বিদেশে যেখানেই গেছি, এমনকি আমার শ্রোতাদের মধ্যেও দেখেছি কাকাকে নিয়ে বাঙালি অবাঙালি নির্বিশেষে…

আমার সেজকাকু (ঊনবিংশ পর্ব)

সুদেব দে আজ ২৪ অক্টোবর, এই দিনটি আমার কাছে খুবই দুঃখের। যে দুঃখের দিনগুলি এখনও পর্যন্ত আমার কাছে লিপিবদ্ধ আছে, তার মধ্যে অন্যতম এই দিন। যবে থেকে আসবে আসবে করে ২৪ অক্টোবর, তার আগে থেকেই আমি যে আপন মনে নীরবে কতবার কাঁদি, সে শুধু আমিই জানি।…

বাংলার হেঁশেল- ভালোবাসার গন্ধমাখা দুটো পদ

সাবিনা ইয়াসমিন রিংকু শহর এখন ছাতিম ফুলের গন্ধে মাতাল। উৎসব এখনও শেষ হয়নি। মাঝখানে একটু বিরতি। তাই হালকা খাওয়াদাওয়া। এরই ফাঁকে কেউ একজন এসে মনটাকে ভরিয়ে দিয়ে যায়। কে সে? সে কে? সে হল প্রেম। মাত্র দুটো অক্ষরের ছোট্ট একটা কথা। অথচ মাপার…

জলের অক্ষর পর্ব ১৮

কুলদা রায় ক. আমার দুপিসি। বড়পিসি খেপি পিসি। ছোটোপিসি পচি পিসি। নামের মতই তারা নির্মল। খেপি পিসি বাবার বড়। দুজনের মা বাল্যকালে মারা যান। তিনি ছিলেন হিরা বাড়ির সাতভাই চম্পার পারুল। ছিলেন শ্যামলা মেয়ে। ছিলেন মুখ বুজে কাজ করা বউ। তার স্বামী…

বাংলার হেঁশেল- অন্যরকম স্বাদে ওপারবাংলার ইলিশ রেসিপি

সাবিনা ইয়াসমিন রিংকু বর্ষাকাল এলে ঠিক কখন, কোন মুহূর্ত থেকে পূবালি বাতাস বইতে শুরু করবে! কখন গর্ভবতী ইলিশ লেজ নাচাতে নাচাতে সমুদ্র থেকে মোহনার দিকে ডিম পাড়তে পাড়ি দেবে! কখন জেলেরা ওৎ পেতে থাকবে আর ঝপাস করে জাল ফেলে খপাস করে ইলিশ ধরবে... এ…

বাংলার হেঁশেল- উৎসবের দিনের বাহারি পদ

সাবিনা ইয়াসমিন রিংকু পুজো আসছে। করোনার ভয় কাটিয়ে মানুষজন আশায় বুক বাঁধছেন। বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব হল দুর্গাপুজো। ধর্ম ছাপিয়ে উৎসবের আনন্দ প্রোজ্জ্বল হয়ে ওঠে দুর্গাপুজোয়। দূরদূরান্তে চাকরি করা মানুষরা এই উৎসবে বাড়ি ফেরেন। দেশের বাড়ি। বছরে হয়ত…

বাংলার হেঁশেল- ছুটির দিনের প্রাতরাশ

শমিতা হালদার পরোটা! নাম শুনলেই জিভে জল চলে আসে! নরম মুচমুচে তেকোনা পরোটা যে কি লোভনীয় তা বোধহয় যাঁরা খেয়েছেন তারাই জানেন। আর পরোটা খাননি এমন বাঙালি এই দুনিয়াতে আছে কি না তা আমার সন্দেহ আছে! একটু লাল করে ভাজা নরম তুলতুলে পরোটা সাথে সাদা…

বাংলার হেঁশেল- থোড় মোচার ঘরোয়া ম্যাজিক

সাবিনা ইয়াসমিন রিংকু কলাগাছ নিজের জীবনকে মানব-সেবার জন্যে উৎসর্গ করে দেয়। ফুল, ফল, কাণ্ড, আঁশ, পাতা... এমনকি কলা গাছের পুরো শরীরটাই মানুষের কাজে লাগে। কাঁচকলা, পাকা কলা, মোচা, থোড় খাওয়া যায়। পাতা মুড়িয়ে বানানো যায় চমৎকার পাতুরি। বাসনের…

দুর্গার বিজ্ঞান-পিতাকে আর কতকাল ভুলে থাকব আমরা?

ডা: গৌতম খাস্তগীর দিনটা বেশ মনে আছে। আমি ডাক্তারি পড়া শুরু করেছিলাম ১৯৭৮ সালে। সে বছরই ২৫ জুলাই ব্রিটেনে জন্ম নিল পৃথিবীর প্রথম টেস্টটিউব বেবি। চিকিৎসা বিজ্ঞানের যুগান্তকারী এক অধ্যায়। পত্র-পত্রিকায় তুমুল আলোচনা। সারা বিশ্বে বহু…

জলের অক্ষর পর্ব ১৭

কুলদা রায় আজ সকালে লাল ফোঁটা দেশি পুঁটি কিনতে হল। দুটো দেশি পুঁটি আর একটি তিত পুঁটির ফ্রোজেন ব্লক। সরপুঁটি ছিল না। কাল আসবে। রাজপুঁটি নেই। থাইপুঁটি আছে। থাইপুঁটির স্বাদ কম। বাড়ি গেলে বটতলার ভোরের বাজার থেকে দেশি পুঁটি কিনে আনতাম। দেখি মা…

বাংলার হেঁশেল- অতিথিদের মন ভোলাতে বিশেষ ৩ পদ

সাবিনা ইয়াসমিন রিংকু এই প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের সঙ্গে কথা বলে ভারী আরাম। যা বলার সামনাসামনি বলে। পেছনে কথা বলার সময় নেই। নেমন্তন্ন করলে বলে "শুধু মাটন কষা আর সাদা ভাত খাব। মিষ্টি ফিস্টি কিছু আনাবেন না কাকিমা। তবে আইসক্রিম খেতে পারি।" এই আগাম…

বাংলার হেঁশেল- ডিমের জোড়া রেসিপি

শমিতা হালদার টিভিতে দেখা সেই অ্যাডটা মনে আছে? যেখানে বলা হত, সানডে হো য়্যা মনডে, রোজ খাও আন্ডে। প্রাতরাশে রোজ ডিম খাওয়ার অভ্যেস অনেকেরই। পোচ, সেদ্ধ, অমলেট, সানি সাইড আপ- একই ডিমের কত যে রূপ। আর প্রতি রূপেই তিনি সুপারডুপার হিট। ডিম এমনই এক…

বাংলার হেঁশেল- শাপলার তিন পদ

সাবিনা ইয়াসমিন রিংকু এখন এই বর্ষায় নদী নালায় বৃষ্টির জল থৈ থৈ করছে। খাল বিলের যৌবন যেন উপচে পড়ছে। সে কী খোলতাই রূপ! বদ্ধ জলাশয়েও ঢেউ নেচে নেচে খেলে বেড়াচ্ছে। সে রূপ আরও বেড়েছে শাপলার ফুটে ওঠাতে। মছলি যদি জলের রানি হয়, তাহলে এই ভরা শ্রাবণে…

বাংলার হেঁশেল- ভাপা মাছের জোড়া রেসিপি

শমিতা হালদার পাতে রোজ এক টুকরো মাছ না হলে ভোজনরসিক বাঙালির খাওয়াটা ঠিক জমে না। কথায় বলে না মাছে-ভাতে বাঙালি! কিন্তু আজকের এই ব্যস্ত জীবনে হাতে সময় খুব কম। তার উপর রোজ একঘেয়ে ঝোল, ঝাল, কালিয়া খেতে খেতেও অরুচি। আর তাই কম খাটনিতে চাই চটজলদি আর…

আমার সেজকাকু (অষ্টাদশ পর্ব)

সুদেব দে প্রচুর মানুষ আমার কাছে জানতে চান আমার সেজকাকু মান্না দে'র রোজকার জীবন নিয়ে। জানতে চান, অনুষ্ঠানের দিন উনি কীভাবে দিন কাটাতেন? কীভাবে প্রস্তুতি নিতেন? সেসব কথা কিছু কিছু করে গতপর্বে বলেছি। আজ কথা বলব সেজকাকুর হিউমারসেন্স নিয়ে। কাকু…

জলের অক্ষর পর্ব ১৬

কুলদা রায় ঈশ্বর নিজের হাতে কিছু লিখলে লিখতেন 'নীলকণ্ঠ পাখির খোঁজে' উপন্যাসটি। নিজে হতেন সোনাবাবু, জ্যাঠামশাই, মুশকিল আসানের লম্ফ পীর অথবা ঈশম। পুরনো অর্জুন গাছে লিখে রেখে যেতেন, 'আমরা ওপারে চলিয়া গেলাম'। হয়তো তখন ঈশম নদীর পাড় ধরে হেঁটে…

বাংলার হেঁশেল- পোস্ত দিয়ে কী না হয়

সাবিনা ইয়াসমিন রিংকু মেয়েদের তো সেভাবে নিজের ঘর বলতে কিছু হয় না। কারও কারও হয়ত হয়। পুরুষ শাসিত সমাজে সেটা ব্যতিক্রমী ঘটনা। আমাদের দেশে নিজের আলাদা পরিচয় গড়ে তুলতে ক'জন নারীই বা পারেন! জন্ম মুহূর্ত থেকে পরিবারের কোনও না কোনও সদস্যের কাছ থেকে…

আমার সেজকাকু (সপ্তদশ পর্ব)

সুদেব দে সেজকাকুকে নিয়ে কলম ধরে বেশ কিছু নতুন অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছি আমি। লেখা প্রকাশের পর অনেকে যেমন ভালোবাসা আর অভিনন্দন জানিয়েছেন, তেমনই দোষত্রুটিও ধরেছেন অনেকে। এইসব সমালোচনাকে মাথা পেতে গ্রহণ করেছি আমি। করেছি নিজের ভালোর জন্যই। আজকের…

বাংলার হেঁশেল- নিরামিষ ও আমিষ খিচুড়ি

শমিতা হালদার খিচুড়ি ছাড়া বাঙালির বর্ষাকাল জমে না। আকাশ কালো করে ঝরোঝরো ধারায় বৃষ্টি পড়বে, ঢিমেতালে বাড়ির মিউজিক প্লেয়ারটিতে বাজবে রবীন্দ্রনাথের কোনও গান, আর হেঁশেল থেকে ভেসে আসবে খিচুড়ি আর ইলিশ মাছ ভাজার স্বর্গীয় সুঘ্রাণ... বাঙালি যতই…