চাঁদের পিঠ থেকে নুড়ি-মাটি কুড়িয়ে আনতে রওনা দিচ্ছে চিনের চন্দ্রযান, চার দশকে এই প্রথম

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আগামী সপ্তাহে চাঁদে মহাকাশযান পাঠাচ্ছেন চিনের মহাকাশবিজ্ঞানীরা। চাঁদের মাটি খুঁড়ি নুড়ি-পাথর-মাটি সংগ্রহ করে আনার কাজ করবে সেটি। এই যানে কোনও মহাকাশচারী থাকছেন না। চিনের মহাকাশবিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই চন্দ্রাভিযান সফল হলে চার দশকের মধ্যে এই প্রথম কোনও মহাকাশচারী ছাড়া শুধু যন্ত্রের মাধ্যমেই চাঁদের মাটি থেকে নমুনা সংগ্রহের কাজে সফল হবে চিন।

চিনের চন্দ্রদেবতার নামানুসারে এই যানটির নাম রাখা হয়েছে চ্যাং’ই-৫। জানা গিয়েছে, চ্যাং’ই-৫ চাঁদের কক্ষপথে প্রবেশ করার পরে তা থেকে দুটি রোবোটিক যন্ত্র অবতরণ করবে চাঁদে। তারই মধ্যে একটি যন্ত্র চাঁদের মাটি খুঁড়বে। আর অন্য যন্ত্রটি সেই খোঁড়া অংশ থেকে নমুনা সংগ্রহের কাজ করবে। এর পরে কক্ষপথে দাঁড়িয়ে থাকা চন্দ্রযান মারফত সেই নমুনা পৃথিবীতে পাঠিয়ে দেবে তারা। সেই নমুনা নিয়ে চলবে আরও গবেষণা।

পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহ চাঁদ নিয়ে গবেষণা চলছে সেই কত বছর ধরে। চাঁদের প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য কী, তার প্রকৃত চেহারাই বা কেমন, কীভাবে জন্ম এ উপগ্রহের, তার মাটির নীচে কোন কোন সম্পদ লুকিয়ে, তা নিয়ে কৌতূহলের শেষ নেই মহাকাশবিজ্ঞানীদের।

সেই সত্তর দশকে রাশিয়া অর্থাৎ তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়ন পরপর বেশ কয়েকটি মহাকাশযানে নভোশ্চারীদের পাঠিয়েছিল চাঁদে। তথ্য বলছে, সেই মহাকাশযানগুলি চাঁদের মাটি থেকে অন্তত ৩৮২ কেজি নুড়ি-বালি নিয়ে পৃথিবীতে ফিরেছিল। তবে চিন কিন্তু রাশিয়ার তুলনায় অনেকটাই পিছিয়ে আছে চন্দ্র অভিযানের ব্যাপারে।

এবার সে জন্যই চাঁদ নিয়ে গবেষণায় জোর দিয়েছে জিনপিং সরকার। তারই ফল আসন্ন চ্যাং’ই-৫ অভিযান। সব ঠিক থাকলে, চাঁদের যে এলাকা ঝঞ্ঝাপ্রবণ সেই ‘ওশিয়ান অফ স্টর্মস’ থেকে দু’কেজি নমুনা সংগ্রহ করবে এই চন্দ্রযানটি।

তবে এটি কেবলই শুরু। এর পরে চন্দ্র গবেষণায় আরও বড় পরিকল্পনা আছে চিনের। আগামী ১০ বছরের মধ্যে চাঁদের দক্ষিণ মেরু অর্থাৎ যেদিকটা প্রায় অন্ধাকার, সেদিকে বেশ কয়েকটি রোবোটিক বেস স্টেশন তৈরি করা হবে চিনের তরফে। এর ফলে ২০৩০-এর মধ্যে চাঁদে চিনের মহাকাশচারী পাঠানোর ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা হয়ে যাবে।

আগামী সপ্তাহের চ্যাং’ই-৫ অভিযান সফল হলে আমেরিকা এবং রাশিয়ার পরেই এমন চন্দ্র অভিযানে সাফল্যের তালিকায় নাম লেখাবে চিন।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More