লাইভ: ‘আমার বাড়ির মেয়ে কয়লা চোর?’: সাহাগঞ্জে মমতা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দু’দিন আগে সাহাগঞ্জের এই মাঠেই সভা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আজ বুধবার সেই মাঠেই সভা করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর বক্তৃতায় হাইলাইটস:

  • কী মা বোনেরা খেলা হবে? আমি বলছি হ্যাঁ হবে। আমি থাকব গোল রক্ষক।
  • কদিন আগে প্রধানমন্ত্রী এখানে এসেছিলেন, তিনি অনেক বড় নেতা। নেতাজির সুভাষ চন্দ্র বসুর থেকেও বড়। উনি দু’দিকে দুটো ট্রান্সপারেন্ট গ্লাস (টেলি প্রম্পটার) রেখে বক্তৃতা করেন। আমি তা করি না।
  • প্রধানমন্ত্রী বলে গেলেন, এখান মা-বোনেরা নাকি সুরক্ষিত নয়! আমি বলি বিজেপিতে কি মা-বোনেরা সুরক্ষিত?
  • তারকেশ্বর লাইন, মেট্রো সম্প্রসারণ সব আমি করে গেছি। আর তুমি ফিতে কেটেছো। মানুষ সব দেখতে পেল, করল কে, ফিতে কাটল কে, দালালি করল কে?
  • দেশের প্রধানমন্ত্রী মিথ্যা কথা বলছেন? ভাবা যায়!
  • এই দেশে এখন দুটো নেতা। একটা নেতা হলেন হোঁদল কুতকুত। আরেকটা নেতা হলেন, কিম্ভূতকিমাকার। আমি জানি না এর হিন্দি, ইংরেজি কী?
  • আমার উপর বিজেপির খুব রাগ। আপনারা আমাকে মারতে পারেন, খুন করতে পারেন, সব করতে পারেন।
  • কিন্তু বলুন তো মা-বোনেরা, আপনি আমার ঘরে ঢুকে গিয়ে একটা বাইশ তেইশ বছরের বাচ্চা মেয়েকে, একটা বউকে, ঘরের কন্যাকে কয়লা চোর বলছেন? আর কয়লা চোরদের নিজে কোলে তুলে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।
  • আমার বাড়ির মা-বোনেরা কয়লা চোর? তোমার সারা গায়ে ময়লা। নোটবন্দির ময়লা। সেই টাকা গেল কোথায় নরেন্দ্র মোদী জবাব দাও। কোল ইন্ডিয়া বিক্রি হচ্ছে কেন, নরেন্দ্র মোদী জবাব দাও।
  • ২০১৬ সালে আমরা ডানলপকে অধিগ্রহণ করতে চাইলাম। সে জন্য চিঠি দিলাম। সেটা আমাদের করতে দিল না। এই ডানলপ মাঠে মিটিং করার আগে আপনাকে বলা উচিত ছিল, এটা কেন বন্ধ করে রেখে দিয়েছেন।
  • ডানলপের মালিকের নাম কী? পবন রুইয়া। আপনারা কি জানেন, তার বিরুদ্ধে এত কেস, তার বিরুদ্ধে এত মামলা, আর তার বাড়িতে বিজেপি নেতারা থাকেন! শরৎ বোস রোডে রুইয়ার বাড়িতে থাকেন।
  • কথায় কথায় উনি বলেন তৃণমূল কংগ্রেস তোলাবাজ। আপনি কী? আপনি তো সবথেকে বড় দাঙ্গাবাজ, সব থেকে বড় ধান্দাবাজ।
  • পাঁচ টাকা দশ টাকা যারা তোলে তাদের বলে তোলাবাজ। যারা দেশকে বেচে দেন, তাঁদের কী বলা হবে? তাঁরা কি ‘ক্যাটমানি’ খান, নাকি ব়্যাটমানি খান? গরিব লোকেরা খেলে হয় কাটমানি, আপনাদের মতো কোটিপতিরা খেলে হয় ব়্যাটমানি। বড় বড় কথা।
  • সায়নী দুটো সামান্য কথা বলেছে। তাদের প্রতিদিন থ্রেট করেছে। দুটি অসভ্য লোক রয়েছে বিজেপির। যা-তা কথা বলেছে। কী অপমান না করেছে ওদের।
  • বিজেপি দলে মেয়েরা সুরক্ষিত নয়। ওই দলে মেয়েদের পাঠাবেন না। আমাদের দলে দেখবেন মেয়েদের সম্মান, নারীর সম্মান। মাকে আমরা সেলাম করি।
  • এখানে ২৪টা ক্লাস্টার হয়েছে। নতুন গ্রিন বিশ্ববিদ্যালয় হয়েছে। তারকেশ্বর উন্নয়ন পর্ষদ হয়েছে। এ ছাড়া গ্লোবাল বিজনেস সামিট থেকে বিপুল বিনিয়োগের প্রস্তাব পেয়েছি। সিঙ্গুরে আমরা ১১ একর জমির উপর অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রি তৈরি করছি। ডানকুনি থেকে শুরু করে রেললাইন ধরে শিল্প হতে হতে যাবে।
  • নরেন্দ্র মোদী মিথ্যা কথা বলে যাচ্ছেন। এখানে নাকি কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হয়নি। দারিদ্র দূরীকরণে বাংলা নম্বর ওয়ান। বাংলায় দেড় কোটি-দু’ কোটি লোককে চাকরি দিয়েছি। বাংলা একশো দিনের কাজে নম্বর ওয়ান, দক্ষতা বাড়ানোয় নম্বর ওয়ান।
  • মেয়েদের স্বরোজগার যোজনা তৈরি হয়েছে, তার নাম মাতৃবন্দনা। ২৫ হাজার কোটি টাকা রাখা রয়েছে।
  • আমরা বলি, আমরা করি। কদিন আগেও ৭২ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প ঘোষণা করেছি।
  • তুমি যদি রাজনৈতিক ভাবে লড়তে পারো, তা হলে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা কেন? শোনো, তৃণমূল কংগ্রেস এমন রাজনৈতিক দল, তুমি আমাকে এই আদি সপ্তগ্রামে যদি গাছ করে পোঁতো তা হলে দিল্লিতে গিয়ে মাথা তুলে দাঁড়াব।
  • মনে রাখবে, সুস্থ বাঘের থেকে আহত বাঘ ভয়ঙ্কর। মনে রাখবে আমরা হিংস্র নই, কিন্তু আমরা কুঁদো বাঘও নয়।
  • খেলা তো হবেই রে! এই খেলা থেকেই ঠিক হবে বিজেপি এ দেশে থাকবে কি থাকবে না। একজন দানব, আরেক জন দৈত্য। এক জন রাবণ অন্য জন দানব। দুটোতে মিলে দেশ চালাচ্ছে।
  • একেকটা লুটেরা কার কান কাটা, কার হাত কাটা, কারও পা কাটা, কারও নাক কাটা। দুর্গাপুরে কোন কোল মাফিয়ার হোটেল থেকে পার্টি চলছে।
  • আমাকে ধমকানোর চেষ্টা করছে। কিচ্ছু হবে না। এসো খেলা হবে। কজনকে গ্রেফতার করবে? জেল ফুটো করে বেরিয়ে আসবে? কজনকে গ্রেফতার করবে, ধামসা মাদল থেকে বেরিয়ে আসবে। এত প্রতিহিংসাপরায়ণ পার্টি গোটা দুনিয়ায় নেই।
  • অন্য পার্টিকে তোলাবাজ বলবেন, আর আপনার পার্টি কি ওয়াশিং মেশিন? এতো বড় সাহস মা বোনেদের কয়লা চোর বলছেন!
  • আগেরবার আমরা এখানে ভোট পাইনি, আমাদের নিশ্চয় কোনও ভুল-ত্রুটি ছিল। মানুষের রায়কে আমি সম্মান করি। কিন্তু বিজেপির মতো নিষ্ঠুর পার্টিকে ডেকে আনবেন না।
  • কংগ্রেস-সিপিএমের ফানুসটাকেও বাড়তে দেবেন না।
  • এবার ভোটের আগে টাকা দিতে এলে টাকাটা নিয়ে নেবেন, ভাল করে মাংস ভাত খেয়ে নেবেন। কিন্তু ভোটের সময় হিসেব উল্টে দেবেন। কারণ এই টাকা ওদের টাকা নয়, এটা জনগণের টাকা।
  • ফাইভস্টার হোটেলে ঘুমোচ্ছে, টেনস্টার হোটেলে ঘুমোচ্ছে, আর সেখান থেকে রান্না করে নিয়ে গিয়ে গরিবের ঘরে বলছে, থালা দাও, আমি ছবি তুলব, তাই বসে একটু খাব। এত ভাঁওতাবাজ, মিথ্যেবাজ, দাঙ্গাবাজ, প্রতিহিংসাপরায়ণ পার্টি কোথাও নেই!
  • ট্রাম্পকে দেখেছেন? তার থেকেও খারাপ হবে ওঁর হাল। হিংসা কখনও মানুষের ভাল করে না।
  • কৃষকদের তো লোন শোধ হয় না? শুধু দুজন শিল্পপতির লোন শোধ করেছে।
  • আপনাদের পার্টি কি ওয়াশিং মেশিন যে সব কালো ঢুকে পরিষ্কার হয়ে যাবে! সব কটা চোর। চোরের মায়ের বড় গলা।
  • আমরা ছোট্টবেলা থেকে রাজনীতি করছি। এটা আমার সেবার কাজ। মানুষের পরিবারই আমার পরিবার।
  • আমি সব জানি। কিন্তু আপনাদের সঙ্গে আমার তফাত, আমি খারাপ কথা খারাপ ভাষায় বলতে পারি না। আমায় একটা লাগাম রাখতে হয়।
  • তাই বলে যাই নরেন্দ্র মোদীজি এবং আপনার দানব বন্ধুজি, আর যাঁরা আছেন খুচরো চুনোপুঁটির দল, বড়বড় কথা বলে যাচ্ছেন, বড্ড বেশি বলছেন। দুটো মাস সহ্য করতে হবে, তার পরে দেখব কার কত জোর। পেশিবল নয়স গণতন্ত্রের জোর কার কত বেশি।
  • সারা ভারতবর্ষকে আপনারা বিক্রি করে দিয়েছেন। কেউ ভয়ে কথা বলতে পারে না। আমরা দশ বছর ধরে উন্নয়ন করেছি। অসংখ্য প্রকল্প করেছি।
  • আপনারা কিছু না করে মিথ্যে কথা বলে যাচ্ছেন। বলছেন বাঙ্গালা লে লেঙ্গে। বাঙ্গালা পানা অত সস্তা নেহি হ্যায়।
  • হুগলিতে একটা আসন পেয়েছে বলে নেচে নেচে বেড়াচ্ছে। ভাবছে তা ধিনতা ধিনতা, হুগলি নিয়ে যা।
  • অত সস্তা নয়, এই হুগলির প্রতিটা আসন তৃণমূল জিতবে। আমি মা-বোনেদের কাছে আবেদন জানিয়ে বলব, যা হয়েছে ভুলে যান। ওদের কথায় বিশ্বাস করবেন না। আদিসপ্তগ্রাম আমাদের দিন প্লিজ। বলাগড় দিন, চুঁচুড়া দিন, উত্তরপাড়া দিন, শ্রীরামপুর দিন, আরামবাগ দিন, খানাকুল দিন। যা আছে, আমাদের দিন।
  • বাংলাকে বাঁচতে দিন, এই মাটিতে বিজেপিকে কবর দিন।
  • বন্দে মাতরম। তৃণমূল কংগ্রেস জিন্দাবাদ। মা-বোনেরা তৃণমূল। জয়হিন্দ। জয় বাংলা।
আরও পড়ুন: মমতার মঞ্চে সায়নী, রাজ, কাঞ্চন, মনোজ, জুন মালিয়া
You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More