বাগুইআটিতে হাসপাতাল ঘুরেও মিলল না অক্সিজেন, অ্যাম্বুলেন্সেই মৃত্যু করোনা রোগীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনা রিপোর্ট আগেই পজিটিভ এসেছিল। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে দেখা দেয় প্রবল শ্বাসকষ্ট। বাধ্য হয়ে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করে হাসপাতালের দোরে দোরে ঘুরলেও মেলেনি সুরাহা। শেষমেশ সন্ধেবেলায় ওই অ্যাম্বুলেন্সে শুয়েই প্রাণ হারালেন করোনা আক্রান্ত রোগী। খোদ মহানগরী কলকাতার বুকে এমন অমানবিকতার ছবি প্রকাশ্যে এসেছে।

মৃত ব্যক্তি বাগুইআটির রঘুনাথপুরের বাসিন্দা। পেশায় অববরপ্রাপ্ত রেলকর্মী। দিন দুই আগে তিনি ও তাঁর স্ত্রীর কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে। বৃহস্পতিবার শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যাওয়ায় বাধ্য হয়ে অসুস্থ স্বামীকে হাসপাতালে ভর্তি করতে বেরিয়ে পড়েন স্ত্রী। তড়িঘড়ি অ্যাম্বুলেন্স মিলছিল না বলে তিনি চড়া দামে ভাড়া করতে বাধ্য হন। মহিলার অভিযোগ, সারা দিন কেটে গেলেও কোনও হাসপাতাল রোগীকে ভর্তি নেয়নি। এদিকে বেলা গড়াতে শারীরিক অবনতি শুরু হয়। সন্ধেবেলা ফিরতি পথে অ্যাম্বুলেন্সেই মারা যান ওই প্রবীণ ভদ্রলোক।

এদিকে স্বামীর মৃত্যুর পর মহিলার পাশে না দাঁড়িয়ে অ্যাম্বুলেন্স চালকও মৃতদেহ বাড়ির সামনে রেখে চম্পট দেয়। মহিলার অভিযোগ, তাঁর স্বামী রাস্তায় মারা গিয়েছেন শুনে কোনও চিকিৎসক ডেথ সার্টিফিকেট পর্যন্ত লিখে দিতে রাজি হননি। শুধু তাই নয়, বৃহস্পতিবার করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুর পর তাঁর সৎকারের কাজেও কেউ এগিয়ে আসেনি বলে জানিয়েছেন ওই মহিলা।

আতান্তরে পড়ে তিনি কী করবেন কিছুতেই বুঝে উঠতে পারছেন না। শুক্রবার সকালে গোটা বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর প্রশাসনিক গাফিলতির অভিযোগে রঘুনাথপুরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। অবশ্য ইতিমধ্যে অভিযোগ পেয়ে বাগুইআটি থানার পুলিশ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More