‘ভাল আছি’, হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন ওষুধের প্রশংসা করে জানালেন করোনা আক্রান্ত ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

দিন কয়েক আগেই ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেয়ার বোলসোনারোর কোভিড-১৯ টেস্ট পজিটিভ আসে। আইসোলেশনে রেখে তাঁর চিকিৎসা শুরু হয়। এবার তিনি নিজেই জানালেন ভাল আছেন।

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনাভাইরাস নিয়ে বাকি অনেক দেশের মতোই চিন্তায় ব্রাজিল। তবে প্রেসিডেন্ট ৬৫ বছরের জেয়ার বোলসোনারোকে নিয়ে চিন্তা কমেছে। তিনি ভাল আছেন বলে নিজেই জানিয়েছেন। তবে দেশে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। করোনা সংক্রমণের নিরিখে বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে ব্রাজিল। আমেরিকার পরেই। এখন পর্যন্ত ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৬৯,১৮৪।

দিন কয়েক আগেই ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেয়ার বোলসোনারোর কোভিড-১৯ টেস্ট পজিটিভ আসে। আইসোলেশনে রেখে তাঁর চিকিৎসা শুরু হয়। এবার তিনি নিজেই জানালেন ভাল আছেন। ফেসবুকে পোস্ট করে বোলসোনারো জানিয়েছেন, তিনি এখন বেশ ভাল আছেন। একই সঙ্গে তিনি হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন ওষুধ ব্যবহারের পক্ষে সওয়াল করেছেন। সঙ্গে তিনি এটাও জানিয়েছেন যে, বিতর্কিত ওই ওষুধের বিজ্ঞাপন করতে চাইছেন না তিনি।

আরও পড়ুন

চিন সীমান্তে উত্তেজনার মাঝে ২২টি অ্যাপাচে, ১৫টি চিনুক যুদ্ধবিমান এল ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে

বোলসোনারোকে নিজের সরকারি বাসভবন থেকে তাঁর সাপ্তাহিক ফেসবুক লাইভ পোস্টে দেখা যায়। ফেসবুক লাইভে তাঁকে সুস্থই দেখা গিয়েছে। অন্য সময়ে তাঁর ফেসবুক লাইভে সঙ্গে থাকেন মন্ত্রী ও পদস্থ অধিকারিকরা। এবার অবশ্য প্রেসিডেন্ট একাই ছিলেন। তাঁর সঙ্গে অন্য কাউকে দেখা যায়নি। বরাবর সাংকেতিক ভাষার অনুবাদক থাকেন লাইভে। এবার সেই ব্যবস্থাও ছিল না।

বোলসোনারো লাইভে বলেছেন, গত সপ্তাহে অসুস্থ বোধ করার পরে চিকিৎসকদের পরামর্শে তিনি প্রত্যেকদিন একটি করে হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন ট্যাবলেট খেতে শুরু করেন। সাধারণত ম্যালেরিয়ার চিকিৎসায় ব্যবহার করা হয় এই ওষুধ। বহু দেশেই কোভিড-১৯ চিকিৎসার কাজে ওই ওষুধ ব্যবহারের কথা বলা হয়। কিন্তু করোনাভাইরাস চিকিৎসায় এখনও পর্যন্ত এই ওষুধের কার্যকারিতা প্রমাণ হয়নি। এর ব্যবহার নিয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে বিজ্ঞানী মহলে মতবিরোধও রয়েছে।

নিজের সাপ্তাহিক ফেসবুক লাইভে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট অবশ্য ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের পক্ষে জোরাল সওয়াল করেছেন। তিনি এমনটাও বলেছেন যে, আমি স্পষ্টভাবে বলছি, আমি হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন ব্যবহার করেছি এবং এতে কাজ হয়েছে। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ। এই ওষুধের যাঁরা সমালোচনা করছেন, তাঁরা অনন্ত একটা কোনও বিকল্পের কথা বলুন।

করোনা সংক্রমণের শুরুর দিক থেকেই ব্রাজিলের চরম দক্ষিণপন্থী প্রেসিডেন্ট মহামারীর গুরুত্বকে খাটো করে দেখেছেন। ব্রাজিলের বিভিন্ন প্রদেশে জারি হওয়া বিধিনিষেধের সমালোচনাও করে এসেছেন। এখন তিনি নিজেই আক্রান্ত। তবে এটা স্বস্তির খবর যে, তিনি ক্রমশ সুস্থ হচ্ছেন।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More