সাইক্লোন নিভারের তাণ্ডবে তামিলনাড়ুতে মৃত ৩, প্রবল বৃষ্টিতে বন্যা

দ্য ওয়াল ব্যুরো : বুধবার রাত আড়াইটের সময় তামিলনাড়ুর উপকূলবর্তী শহর মারাক্কানামে আছড়ে পড়ে সাইক্লোন নিভার। তখন তার গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১৩০ কিলোমিটার। মাটিতে আছড়ে পড়ার পরে তা অতি প্রবল ঘুর্ণিঝড় থেকে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে। বিপদের আশঙ্কায় আগেই তামিলনাড়ু ও পুদুচেরির দু’লক্ষ মানুষকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। যদিও ঝড়ে তিনজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। তাঁদের দু’জন ঝড়ের মধ্যে দেওয়াল চাপা পড়েছিলেন। একজন গাছের তলায় চাপা পড়েছেন।

তামিলনাড়ুর রাজস্ব মন্ত্রী আর বি উদয়কুমার বলেন, “ঝড়ের আগেই আমরা উপযুক্ত ব্যবস্থা নিয়েছিলেম। ফলে প্রাণহানি বা সম্পত্তিহানি হয়েছে খুবই কম।” মুখ্যমন্ত্রী ই পালানিস্বামী আগেই রাজ্যের মানুষের কাছে আবেদন জানিয়েছিলেন, যথাসম্ভব ঘরে থাকুন। তিনি খুব শীঘ্রই দুর্গতদের জন্য ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করবেন।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হওয়া ঘূর্ণিঝড়ের ভয়ে দক্ষিণের রাজ্যগুলি আগেই বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করেছিল। চেন্নাই বিমানবন্দর, মেট্রো ও বাস পরিষেবাও বন্ধ রাখা হয়েছিল বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত। প্রবল ঝড়বৃষ্টিতে শহরের বহু জায়গায় গাছ উপড়ে পড়েছে। তামিলনাড়ুর কোনও কোনও অঞ্চলে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বৃষ্টি হয়েছে ৩০ সেন্টিমিটার। চেন্নাইয়ের বেশিরভাগ রাস্তা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে।

বুধবার থেকে পুদুচেরিতে বৃষ্টি হয়েছে ২০ সেন্টিমিটার। মুখ্যমন্ত্রী ভি নারায়ণস্বামী বলেছেন, পুরো পুদুচেরি জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। বহু গাছ ভেঙে পড়েছে। কেন্দ্রশাসিত পুদুচেরির বহু জায়গায় বিদ্যুৎ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এদিন সকালে টুইট করে বলেছেন, “আমরা তামিলনাড়ু ও পুদুচেরির পরিস্থিতির ওপরে নজর রাখছি। মুখ্যমন্ত্রী পালানিস্বামী ও মুখ্যমন্ত্রী নারায়ণস্বামীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তাঁদের বলেছি, কেন্দ্রীয় সরকার সবরকম সাহায্য করবে। ইতিমধ্যে ত্রাণের কাজে নেমেছে এনডিআরএফ।”

মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী টুইট করে বলেন, “তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এরাপাড্ডি কে পালানিস্বামী ও পুদুচেরির মুখ্যমন্ত্রী ভি নারায়ণস্বামীর সঙ্গে কথা বলেছি। তাঁদের বলেছি, সবরকম সাহায্য করা হবে। যাঁরা ঝড়ের গতিপথে রয়েছেন, তাঁদের নিরাপত্তার জন্য প্রার্থনা করি।”

এনডি আর এফের কর্তা এস এন প্রধান জানান, তামিলনাড়ু, পুদুচেরি ও অন্ধ্রপ্রদেশে ১২০০ ত্রাণকর্মী পাঠানো হয়েছে। ওড়িশার কটক, অন্ধ্রের বিজয়ওয়াদা এবং কেরলের ত্রিচুরে ত্রাণকর্মীদের আরও ২০ টি টিম রাখা হয়েছে। বুধবার নৌবাহিনী জানায়, সাইক্লোন নিভারের গতিবিধির ওপরে নজর রাখা হচ্ছে। তামিলনাড়ু ও পুদুচেরি সরকারের সঙ্গেও নৌবাহিনীর কর্তারা কথা বলেছেন। কয়েকটি জাহাজ, বিমান এবং ডাইভিং টিমকে ত্রাণের জন্য তৈরি রাখা হয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More