সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন হার্টথ্রব শচীন-কন্যা সারা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সেলেব্রিটিদের জীবনযাত্রা, তাঁদের বাড়ির অন্দরমহলের খুঁটিনাটি খোঁজখবর নিয়ে সাধারণ মানুষের কৌতূহল বরাবরই ছিল। কোনও কোনও সেলেব্রিটি নিজেদের ব্যক্তিগত জীবনে কী করছেন, কোন নতুন সম্পর্কে জড়াচ্ছেন, কোথায় ঘুরতে যাচ্ছেন সবটাই সাধারণ জনগণের সামনে তুলে ধরতে ভালোবাসেন। আবার এমন কেউ কেউ আছেন যারা নিজেদের ব্যক্তিগত জীবনে এতটাই গোপনীয়তা বজায় রেখে চলেন যে তাঁদের ব্যক্তিগত জীবনের খবর পেতে পাপারাৎজিদেরও হিমসিম খেতে হয়। 

ক্রিকেট জগতের জীবন্ত কিংবদন্তি শচীন তেন্ডুলকর। তিনি কোনওদিনই আর পাঁচজনের মত নিজের ব্যক্তিগত জীবনকে সবার সামনে মেলে ধরেননি। আর সেভাবে প্রকাশ্যে আসেনি বলেই হয়তো এই ক্রিকেট স্টারের জীবনযাত্রা, তাঁর ছেলে-মেয়েরা কী করছেন, কোথায় যাচ্ছেন- সেসব জানার তীব্র ইচ্ছা আমাদের সকলেরই।

আর এই একটি ব্যাপারে সোশ্যাল মিডিয়াকে ধন্যবাদ না দিয়ে পারা যায় না। সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মগুলিতে আর পাঁচটা সাধারণ মানুষের মত বিশ্বের বড় বড় সেলেব্রিটিরাও যেমন আছেন, তেমনই আছেন তাঁদের সন্তানেরাও। ফলে স্টারকিডেরা কোথায় যাচ্ছেন, কী করছেন, তার কিছুই আজ আর গোপন নেই।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে ঝড় তুলেছেন শচীন-কন্যা সারা তেন্ডুলকর। এই সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে বর্তমানে সারার ফলোয়ার ১ মিলিয়ানেরও বেশি। কলেজে স্নাতকোত্তর পাশ করার খবরও যেমন তিনি ভাগ করে নেন ফলোয়ারদের সঙ্গে, তেমনই পরিবারের সঙ্গে, বাবার সঙ্গে কীভাবে সময় কাটাচ্ছেন- তার ছবিও শেয়ার করেন।

শুধু স্টার কিডই নয়, খুব কম বয়স থেকেই একজন ফ্যাশানিস্তা হিসাবেই নিজেকে মেলে ধরেছেন সারা। কখন কোন অনুষ্ঠানে কী পরা উচিত, বেড়াতে গেলে কেমন পোশাক পরা উচিত সবকিছুই যেন পরোক্ষভাবে নেটিজেনদের শিখিয়ে চলেছেন।

পোশাকে, আচারে একেবারেই উগ্র নন সারা। মায়ের মতই শান্ত সমাহিত চেহারা তার। শচীন একবার কথাপ্রসঙ্গে বলছিলেন, সারা নাকি তার মায়ের কার্বন কপি। মায়ের মত শুধু দেখতেই নয়, সাজগোজের রুচিটাও সে পেয়েছে তার মায়ের কাছ থেকেই।

সারার হাসির মূর্ছনায় ইতিমধ্যেই ঝড় উঠেছে অনেকের মনে। মাত্র ২৩ বছরের প্রাণবন্ত সারা ইতিমধ্যেই নেটিজেনদের মন জয় করে নিয়েছেন। ভীষণ সোবার তার ফ্যাশন স্টেটমেন্ট। ওয়েস্টার্ন ড্রেস থেকে শুরু করে ভারতীয় এথনিক পোশাক, সারার সাজ অনেকের মনেই দাগ কেটেছে।

সম্প্রতি সারাকে দেখা যায় অফ শোল্ডার সাদা টপের সঙ্গে ব্রাউন কালারের অ্যাবস্ট্র্যাক্ট আর্টের কাজ করা ট্রাউজার পরে। চুলে বেঁধেছেন হালকা খোঁপা! বন্ধুদের সাথে ঘুরতে গেলে এইধরনের সাজেই যাওয়া উচিৎ এমন ইঙ্গিতই কি দিচ্ছেন সারা!

আবার আম্বানি বাড়ির কোনও এক অনুষ্ঠানে তাকে দেখা যায় মনিশ মালহোত্রার ডিজাইন করা গোলাপি রঙের লেহেঙ্গায়। এই পোশাকেও তার থেকে চোখ ফেরাতে পারেননি অনেকে। লেহেঙ্গার সঙ্গে অল্প জুয়েলারি, আর সর্বদা হাসিমুখ। পোশাকের সঙ্গে মুখের এক্সপ্রেশনটাও যে সাজের এক অঙ্গ, তাও যেন খুব স্পষ্ট করেই বুঝিয়ে দিয়েছেন এই সদ্য তরুণী ফ্যাশন ডিভা। সব মিলিয়ে এইমুহূর্তে নেট দুনিয়ার নতুন সেনসেশন নিঃসন্দেহেই সারা তেন্ডুলকর

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More