রাজধানীতে ভয়াবহ করোনা! কমনওয়েলথ গেমস ভিলেজে কোভিড সেন্টার করার ভাবনা কেজরিওয়ালের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ কার্যত সুনামীর মতো আছড়ে পড়েছে গোটা দেশে। আর ভাইরাসের সংক্রমণে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে রাজধানীতে। প্রায় প্রতিদিনই লাফিয়ে বাড়তে দিল্লির করোনা রোগীর সংখ্যা। পরিস্থিতি বিবেচনা করে করোনা মোকাবিলায় এবার তাই বড় ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

দিল্লির কমনওয়েলথ গেমস ভিলেজকে এবার করোনা রোগীদের চিকিৎসার কাজে লাগানো হবে, এদিন এমনটাই জানিয়েছেন কেজরিওয়াল। এছাড়া বিভিন্ন স্কুলগুলিকেও কোভিড সেন্টার হিসেবে ব্যবহার করা হবে বলে জানা গেছে। রবিবার ক্যাবিনেট সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। তখনই নয়া সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছেন তিনি।

কমনওয়েলথ গেমস ভিলেজে করোনা চিকিৎসার জন্য প্রায় ৬০০০ নতুন বেডের ব্যবস্থা করা সম্ভব হবে। কোভিড আবহে হাসপাতালগুলিতে বেডের অভাবই চিন্তায় ফেলেছে রাজধানীকে। দিন দিন যে হারে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, তাতে ভাইরাস মোকাবিলার লড়াইটা ক্রমশ কঠিন হয়ে উঠছে। শুধু বেড নয়, অক্সিজেন আর প্রয়োজনীয় ওষুধপত্রেরও অভাব দেখা দিয়েছে দিল্লির হাসপাতালগুলিতে।

এদিন সাংবাদিকদের কাছে অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেন, দিল্লির আইসিইউতে মাত্র ১০০টি বেড পড়ে আছে। এ ব্যাপারে তিনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনের সঙ্গেও কথা বলেছেন। করোনা মোকাবিলায় কেন্দ্রের সাহায্য চেয়েছেন কেজরিওয়াল। তিনি বলেন, “দিল্লিতে কেন্দ্র সরকারের অধীনে মোট ১০ হাজারটি বেড রয়েছে। যার মধ্যে মাত্র ১৮০০টি বেড করোনা রোগীদের জন্য দেওয়া হয়েছে। আমি বলেছি করোনার জন্য অন্তত ৭ হাজার বেডের ব্যবস্থা করা দরকার।”

আগামী দু-তিন দিনের মধ্যেই আরও ৬ হাজার বেডের ব্যবস্থা করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজধানীর করোনা পরিস্থিতি যে শোচনীয় তার ছবি আগেই সামনে এসেছে। গোটা শহরের ৯০ শতাংশ আইসিইউ বেড এখন ভরে গেছে করোনা রোগীতে। এমনকি জায়গায় জায়গায় একটি বেডে দুই থেকে তিনজনকে থাকতেও দেখা গেছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More