ডেরেক স্যারের ক্লাস করলেন রাজ-সায়ন্তিকারা, ডু’জ-ডোন্টস বুঝিয়ে দিলেন মাস্টারমশাই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একদা কুইজ মাস্টার বলেই তাঁর পরিচিতি সীমবদ্ধ ছিল। সেই তিনি ডেরেক ও ব্রায়েন এখন দুঁদে রাজনীতিক। তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার নেতা তথা দলের প্রধান মুখপাত্র। আপাত ভাবে ধরে নেওয়াই যেতে পারে যে কোন কথাটা কোথায় বলবেন, কোন বিষয়ে কী ট্যুইস্ট দেবেন—দলের মধ্যে সেটা তিনিই ভাল পারেন বলেই হয়তো তাঁকে সেই দায়িত্ব দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বুধবার তাঁকে নবাগতদের ‘ক্লাস’ নিতেও দেখা গেল তৃণমূল ভবনে। এ দিন সকালে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন টলিউডের অভিনেত্রী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পরই দেখা যায়, তৃণমূল ভবনের একটি ঘরে পরিচালক রাজ চক্রবর্তী, সায়ন্তিকা, রণিতা, পিয়া, সৌরভ দাস সহ টলিপাড়ার অভিনেতা, অভিনেত্রীদের নিয়ে বসেছেন ডেরেক। পরে সেই ছবি টুইট করেছেন রাজ চক্রবর্তী। তাতে লিখেছেন, ডেরেক মাস্টারমশাইয়ের সেশন চলছে, জীবনের নতুন অধ্যায়ের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি।

রাজ চক্রবর্তী উত্তর ২৪ পরগনার বীজপুরে তৃণমূলের প্রার্থী হবেন বলে রাজ্য রাজনীতিতে গুঞ্জন রয়েছে। বীজপুরের বর্তমান বিধায়ক হলেন মুকুল রায়ের ছেলে শুভ্রাংশু রায়।

সূত্রের খবর, ডেরেক আজ তাঁদের বুঝিয়েছেন, সভা, সমাবেশ, রোড শো-তে গেলে কী কথা তাঁরা বলবেন, কোনটা তাঁরা বলবেন না। রাজ, সায়ন্তিকারা রাজনীতির পিচে নতুন। কোন বল খেলতে হবে, কোনটা জাজমেন্ট দিয়ে ছেড়ে দিতে হবে বুঝে উঠতে তাঁদের সময় লাগাটাই স্বাভাবিক। দেব, মিমি, নুসরতরা এখন তা মোটামুটি বুঝে গিয়েছেন।

তৃণমূলের এক নেতার কথায়, ডেরেক যে শুধু রাজ চক্রবর্তীদের ক্লাস নিচ্ছেন তা নয়। তৃণমূল ভবনে নিয়মিত প্রেস কনফারেন্সের সময়ে দেখা যাবে কালো মোটা ফ্রেমের চশমা পরে ডেরেক পাশে বসে রয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জমানায় ‘সাফল্যের’ তথ্য পরিসংখ্যান তুলে ধরা, মোদী জমানার ‘ব্যর্থতার’ হিসাব নিকেশ নিয়ে গবেষণা করা ইত্যাদি সবই ডেরেকের পৌরোহিত্যে হচ্ছে। বলতে গেলে, এ সব ব্যাপারে ব্যাক গ্রাউন্ড নোট ডেরেকই বানিয়ে দেন। মুখপাত্ররা অনেকেই তাতে চোখ বুলিয়ে স্রেফ আউড়ে যান মাত্র।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More