ব্রেকআপের পর চায়ের দোকান! ‘দিল টুটা আশিক চায়েওয়ালা’ ভাইরাল ইন্টারনেটে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ‘যে জন প্রেমের ভাব জানে না তার সঙ্গে নয় লেনাদেনা…’ কিংবা ‘এক কাপ চায়ে আমি তোমাকে চাই’

প্রেম রসের রসিক যে জন নয়, তাঁর সঙ্গে মনের লেনদেন চলে না! হৃদয় অবাধ্য হলেও তাকে বশ মানাতে হয়! আর মনকে বশে আনে বন্ধুবান্ধব আর চা! আসলে প্রেমের পূর্বরাগ থেকে বিরহের কাতরতা সব বোঝে চায়ের ভাঁড়। প্রেম-পলিটিক্স সব কিছুর চর্চা হয় চায়ের আড্ডাতে। হাজারও মন ভাঙা হৃদয়, একটু আরাম খোঁজে চায়ের উষ্ণতাতে।

এরকমই ভাঙা মন নিয়ে দেরাদুনের এক তরুণ শুরু করেন একটি চায়ের দোকান। ‘দিল টুটা আশিক চায়েওয়ালা’ নামের ক্যাফের নাম এখন সব ব্যর্থ থেকে সফল- সব প্রেমিকদেরই মুখে মুখে। আসলে মানুষের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ানোর থেকে অনেক ভাল চায়ের প্রেমে পড়া! এই উপলব্ধি নিয়েই ক্যাফেটি খোলেন ২১ বছরের দিব্যাংশু বাত্রা। লকডাউনের সময়ে তাঁর প্রেমিকার সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যায়, আর হৃদয় ভাঙার সেই যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে তিনি ‘ব্রেকআপ’কেই থিম হিসেবে বেছে নিয়েছেন নিজের ক্যাফের। তবে এই নতুন উদ্যোগটি নিতে এবং সবটা সাজিয়ে গুছিয়ে শুরু করতে তাঁর সময় লেগেছে ছয়মাসেরও বেশি। কিন্তু তাঁর দোকানের এই অভিনব থিম মন কেড়েছে অনেকেরই, যা ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে অত্যন্ত দ্রুতগতিতে।

দিব্যাংশু ও তাঁর ছোট ভাই রাহুল বাত্রা একসঙ্গে মিলে শুরু করেছেন এই ক্যাফে। তাঁরা নিজেদের সমস্ত জমানো অর্থ দিয়ে শুরু করেন এই চায়ের দোকান, যেটা উদ্বোধন করেন ১৬ ডিসেম্বর ২০২০তে। শুধু চা নয়, এখন মোমো, বিভিন্ন ধরনের পানীয়, স্ন্যাক্সও পাওয়া যায় এখানে। দেরাদুনের জিএমএস রোডের ওপরে রয়েছে ‘দিল টুটা আশিক চায়েওয়ালা’। খুব কম সময়ের মধ্যেই এই চায়ের দোকানটি হয়ে উঠেছে সেনসেশন।

বিশেষত টিনেজারদের মধ্যে এই দোকানটিকে নিয়ে চলছে ব্যাপক ক্রেজ। দোকানের ট্যাগ লাইনটা আরও বেশি করে মন কেড়েছে নেটিজেনদের। সকলেরই মুখে মুখে ঘুরছে, ‘মান লো মেরী রাই, ইশক সে বেহতার হ্যায় চায়ে’! প্রেমে দাগা খাওয়া যে কেউই নিজেকে মেলাতে পারবেন এই থিমের সঙ্গে! তাই হয়তো এঁদের ইনস্টাগ্রাম পেজে রয়েছে প্রচুর ফলোয়ার্স, আর ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয়েছে ‘দিল টুটা আশিক চায়েওয়ালা।’

যদি দেরাদুনের আসার প্ল্যান করে থাকেন তাহলে অবশ্যই আসবেন ‘দিল টুটা আশিক চায়েওয়ালা’তে। আর যদি ব্রেকআপ, মন ভাগ ভাঙার কষ্টে ভোগেন, তাহলে অবশ্যই মোক্ষম দাওয়াই হবে চা এবং এই দোকানের ট্যাগ লাইনগুলো।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More