শুধু মরুভূমি নয়, রাজস্থানে রয়েছে অভয়ারণ্যও! রইল ঠিকানা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মরুভূমি কিংবা শুধু ইতিহাস নয়, এর বাইরেও অনেক কিছু রয়েছে রাজস্থানে। ভারতের বেশ কয়েকটি অভয়ারণ্য রয়েছে এখানে। এখানেই দেখা যায় জীব বৈচিত্র্য, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। বাঘ থেকে আকাশের বিভিন্ন পাখি দেখতে চাইলেও আসতে হবে রাজস্থানে। পাখিপ্রেমীদের জন্য ভারতপুর জাতীয় উদ্যান যেমন রয়েছে তেমনই যাঁরা রোমাঞ্চ ভালবাসেন তাঁরা বাঘ দেখতে চাইলে ঘুরে আসতে পারেন রণথম্বোর জাতীয় উদ্যান থেকে।

সরিস্কা জাতীয় উদ্যান, আলওয়ার

আরাওয়ালি পাহাড়ে অবস্থিত এই বিশাল জাতীয় উদ্যানটি। এখানকার জঙ্গলটি যদিও হালকা কিন্তু এর ভেতরে রয়েছে টিলা, পাথুরে অঞ্চল। এটিও একটি বাঘের সংরক্ষণাগার। একসময় আলওয়ারের মহারাজা শিকারের জন্য এই অঞ্চলটিকে বেছে নিয়েছিলেন। এই বনাঞ্চলই রয়েল বেঙ্গল টাইগারের বাড়ি হিসেবে পরিচিত।

রণথম্বোর জাতীয় উদ্যান

রণথম্বোর সম্পর্কে কম বেশি সকলেই জানেন। এই অঞ্চলের আলাদা করে পরিচয়ের প্রয়োজন হয় না। বাঘের জন্যই বিশ্বের দরবারে এই জায়গাটি পরিচিতি লাভ করেছে। তবে কেবল বাঘ নয়, এখানে বিভিন্ন ধরনের পাখি দেখতেও বহু পর্যটক আসেন।

কুম্ভলগড় বন্যজীবন অভয়ারণ্য

৫৭৮ বর্গকিলোমিটার এলাকা জুড়ে রয়েছে এই অভয়ারণ্যটি। কুম্ভলগড় দুর্গ ও আরাবল্লী পর্বতমালাকে ঘিরে রয়েছে এই বিশাল বনাঞ্চল। এখানে রয়েছে নেকড়ে, চিতাবাঘ, ভল্লুক, ডোরাকাটা হায়েনা, বুনো বিড়াল, এমনকি নীলগাইও এখানেই দেখা যায়। এছাড়াও এখানে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের পাখি যেমন বুলবুল, পায়রা, ঘুঘু ইত্যাদি।

কেওলাদেও জাতীয় উদ্যান, ভারতপুর

কেওলাদে ঘানা জাতীয় উদ্যান (ভারতপুর পাখি অভয়ারণ্য) হল পাখির জন্য বিখ্যাত। এটি রাজস্থানের অন্যতম সেরা পর্যটন কেন্দ্র। সারা পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পর্যটকরা এখানে আসেন পাখি দেখতে। ইউনেস্কোর তরফ থেকে ১৯৭১ সালে একে ‘ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More