মহরত সেশনে নতুন শিখর ছুঁল সেনসেক্স, নিফটি

দ্য ওয়াল ব্যুরো : সম্বত নববর্ষের প্রথম দিনেই সেনসেক্স বাড়ল ৩৮৭.৯৩ পয়েন্ট। তা পৌছল ৪৩৮৩০.৯৩ এর ঘরে। এর ফলে নতুন রেকর্ড করল শেয়ার সূচক। এদিন তা বেড়েছে ০.৮৯ শতাংশ। এদিন বাজার খোলার পরেই সেনসেক্স পৌছায় ৪৩৮১৫.৪৫ এর ঘরে। শনিবার নিফটিও বেড়েছে ১০৮.৭৫ পয়েন্ট বা ০.৮৫ শতাংশ। তা পৌছেছে ১২৮২৮.৭০ এর ঘরে। রেকর্ড করেছে নিফটিও। এদিন মূলত বিভিন্ন ব্যাঙ্ক, আর্থিক পরিষেবা সংস্থা বিদ্যুৎ ও তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার শেয়ারের দাম বেড়েছে। তার ওপরে ভর করেই বেড়েছে শেয়ার সূচক।

শেয়ার বাজার তেজি ছিল শুক্রবারও। এদিন সেনসেক্স ১৯৪.৯৮ পয়েন্ট বা ০.৪৫ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। তা পৌঁছয় ৪৩৬৩৭.৯৮ এর ঘরে। নিফটি ৬০.৩০ পয়েন্ট বা ০.৪৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে পৌঁছয় ১২৭৮০.২৫ এর ঘরে।

শনিবার নিফটিতে নথিভুক্ত সংস্থাগুলির মধ্যে ভারত পেট্রলিয়াম, ইচার মোটর্স, বাজাজ ফিনসার্ভ এবং টাটা স্টিলের শেয়ারের দাম ১.৬৬ থেকে ৪.৩৪ শতাংশ বেড়েছে। নিফটি ব্যাঙ্ক ইনডেক্স অর্থাৎ নিফটিতে নথিভুক্ত ১২ টি বড় ঋণদাতা ব্যাঙ্কের সূচক বেড়েছে এক শতাংশ। সবচেয়ে বেশি লাভবান হয়েছে যে ব্যাঙ্কগুলি, তাদের মধ্যে আছে এসবিআই, এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক, অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক এবং ইন্ডাসইন্ড ব্যাঙ্ক। নিফটিতে নথিভুক্ত বিভিন্ন আর্থিক সংস্থার সূচক বেড়েছে প্রায় ৩৬ শতাংশ।

চলতি সপ্তাহেই অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার জন্য ‘আত্মনির্ভর ভারত-৩’ নামে প্যাকেজ ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তার পরিমাণ ২ লক্ষ ৬৫ হাজার কোটি টাকা।এছাড়া শীঘ্র করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার হবে আশা করে অনেকে বাজারে ঝুঁকি নিতে চাইছেন। ইতিমধ্যে কোভিডের ধাক্কা সামলে উঠেছে বিভিন্ন লার্জ ক্যাপ সংস্থা। তার মধ্যে আছে এসবিআই, এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক, ইন্ডিয়ান ওয়েল, লার্সেন অ্যান্ড টুব্রো এবং ভারতী এয়ারটেল।

গত মার্চে দীর্ঘ লকডাউন শুরুর পরে সেনসেক্স ও নিফটির ব্যাপক পতন হয়। দু’টি সূচকই সেই ধাক্কার দুই তৃতীয়াংশ সামলে উঠেছে। প্রতি বছর দেওয়ালি দিনে নতুন সম্বত শুরু হয়। ২০১৯ সালের দেওয়ালি থেকে শুরু হয়ে ২০২০ সালের দেওয়ালির আগের দিন শেষ হয়েছে সম্বত ২০৭৬। শনিবার অর্থাৎ ১৪ নভেম্বর থেকে শুরু হল সম্বত ২০৭৭।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More