রোজ দুধে স্নান করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, দক্ষিণ ভারতে!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: জনপ্রিয়তার নিরিখে অভিনয় জগতের তারকাদের থেকে কোনও অংশে কম যান না রাজনীতির কারবারিরা।  টুকরো টুকরো বেশ কিছু নজিরও দেখা গেছে সদ্য শেষ হওয়া লোকসভা নির্বাচনের সময়ে।  কেউ কফি মাগ, শাড়ি তো কেউ আবার সুসজ্জিত হয়েছেন ভক্তের শরীরে ট্যাটু রূপে।  ভরতবর্ষে মোদী হোন বা মমতা জনপ্রিয়তার প্রতিযোগিতায় একে অন্যকে টক্কর দেবেন, সেটাই তো স্বাভাবিক।  কিন্তু এই তৃতীয় বিশ্বের দেশে মার্কিন প্রেসিডেন্টের মূর্তি তৈরি করে তাকে দুধ দিয়ে পুজো করা হতে পারে, কখনও স্বপ্নেও ভেবেছেন কি?

হ্যাঁ, এমনটাই করে ফেলেছেন বাসা কৃষ্ণা।  তেলেঙ্গানার জনগাঁও জেলার কোন্নে গ্রামের বাসিন্দা কৃষ্ণা।  এই কৃষক নাকি ওই গোটা এলাকায় ট্রাম্পভক্ত হিসেবে যথেষ্টই পরিচিত! ১৪ই জুন বিতর্কিত এই মার্কিন প্রেসিডেন্টের জন্মদিনে কৃষ্ণা তাঁর ৬ ফুট লম্বা একটা মূর্তি তৈরি করে ফেলেছেন।  এখানেই থামেননি তিনি, সেই মূর্তিতে দুধ দিয়ে নিয়মিত পুজোও করেছেন।  আর সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আসতেই ভাইরাল হয়েছেন কৃষ্ণা।

একটি ইংরেজি দৈনিকের কাছে কৃষ্ণা বলেছেন, রোজ সকালে তিনি তাঁর পুজোর ঘরে ট্রাম্পের পুজো করেন।  প্রথা মেনে তিলক লাগান ট্রাম্পের ছবিতে।  ঠিক যেভাবে আর পাঁচজন ভারতীয় দেবদেবীকে শ্রদ্ধা জানান, সেভাবেই ট্রাম্পের ছবিতে হলুদ দেন, ফুল দেন, আরতিও করেন!

তবে ঠিক কী কারণে তাঁর এই ট্রাম্পভক্তি, তা জানতে চাওয়ায় কৃষ্ণা বলছেন, ২০১৭ এর ফেব্রুয়ারিতে কানসাসে একটি বারে তেলেঙ্গানার সফ্টওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার শ্রীনিবাস কুচিভোটলা খুন হন বর্ণবিদ্বেষী এক প্রাক্তন মার্কিন নৌসেনার হাতে।  তারপর থেকেই তিনি মনে করতে থাকেন, আমেরিকানদের জানা উচিত ভারতীয়রা কতটা উদার হতে পারে, তারা হিংসা একেবারেই পছন্দ করে না।  আর তাই রোজ ট্রাম্পকে পুজো করেন তিনি।  যাতে তাঁর এই পুজোর কথা ডোনাল্ড ট্রাম্পের কানে পৌঁছয়।  আর সহজেই তিনি উপলব্ধি করেন ভারতীয়রা আসলে কতটা ভালো মানুষ।

তাঁকে যখন প্রশ্ন করা হয় যে, তিনি শুধুমাত্র জনপ্রিয়তা এবং প্রচারের লোভেই এই পথ বেছে নিয়েছেন কি না ?  সেই বক্তব্য নস্যাৎ করে দিয়ে তিনি জানিয়েছেন, “একেবারেই তা নয়, বরং ভারত আমেরিকার সুসম্পর্কও যাতে তৈরি হয়, সেটাও তাঁর এই পুজোর আরেকটা কারণ। ” আর এই কারণকে মাথায় রেখেই তিনি ট্রাম্পের মূর্তিতে রোজই পুজো চালিয়ে যাবেন।

এ দেশে এমন ঘটনা কিছুদিন আগেও দেখা গেছে বটে, তবে তা দেশের প্রধানমন্ত্রীকে নিয়েই।  এক মাস আগে, কর্ণাটকের রায়চুর জেলার বাসিন্দা বাসবরাজ ভারতীয় জনতা পার্টির প্রচারের জন্য সারা পিঠ জুড়ে নরেন্দ্র মোদীর একটি বিশাল উলকি আঁকান।  প্রায় ১৫ ঘণ্টা ধরে সেই উল্কিটা করান তিনি।  তাঁর পুরো পিঠ জুড়ে এখন প্রধানমন্ত্রী মোদী চশমা পড়ে এক গাল দাড়ি নিয়ে হাসছেন।

এত কিছুর পরে নিশ্চয় আপনার একটাই লাইনই মনে পড়ছে, সত্য সেলুকাস…..

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More