যাঁরা প্রার্থনা করেছেন তাঁদের করজোড়ে নমস্কার, ধন্যবাদ: হাসপাতাল থেকে টুইট বার্তা অমিতাভের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বচ্চন পরিবারের চার সদস্য। ভাইরাস থাবা বসিয়েছে ছোট্ট আরাধ্যার শরীরেও। গত শনিবার সন্ধ্যায় বিগ বি নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় জানান যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তিনি। তার খানিক পরেই টুইট করেন জুনিয়র বচ্চন। জানান, বাবার মতো তাঁর কোভিড টেস্টের রিপোর্টও এসেছে পজিটিভ। শনিবার রাতেই অমিতাভ এবং অভিষেককে ভর্তি করা হয় মুম্বইয়ের নানাবতী হাসপাতালে।

রবিবার জানা যায়, কোভিড টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে ঐশ্বর্য এবং আরাধ্যারও। তবে করোনায় আক্রান্ত হননি জয়া বচ্চন। অন্যদিকে জানা গিয়েছে, হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ঐশ্বর্য এবং আরাধ্যা।

বচ্চন পরিবারের চার সদস্যের করোনা হওয়ার খবর পেতেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে তাঁদের মঙ্গল কামনায় শুরু হয়েছে যজ্ঞ। উজ্জয়িনীর মন্দিরে পুজো দিয়েছেন অমিতাভের ভক্তরা। কলকাতায় বিগ বি’র বিভিন্ন ফ্যান ক্লাবের পক্ষ থেকেও যজ্ঞ করা হয়েছে। এছাড়াও সোশ্যাল মিডিয়ায় উপচে পড়ছে শুভেচ্ছা বার্তা। তারকা থেকে আমজনতা সকলেই শাহেনশা এবং তাঁর পরিবারের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন।

ভক্তদের এত শুভেচ্ছা বার্তা পেয়ে অভিভূত বিগ বি। টুইট করে সকলকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন অমিতাভ। তিনি লিখেছেন, “অভিষেক, ঐশ্বর্য, আরাধ্যা এবং আমার জন্য যাঁরা প্রার্থনা করেছেন তাঁদের সকলের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।” আর একটি টুইটে বিগ বি লিখেছেন, “যাঁরা আমাদের জন্য প্রার্থনা করেছেন তাঁদের সকলকে হয়তো আলাদা করে ধন্যবাদ জানাতে পারছি না। তবে সকলকে করজোড়ে নমস্কার জানাচ্ছি। আপনাদের ভালবাসা এবং প্রার্থনার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।”

আপাতত বচ্চনদের চারটি বাংলো সিল করে দিয়েছে বৃহন্মুম্বই মিউনিসিপাল করপোরেশন। বাংলো সংলগ্ন এলাকা কন্টেইনমেন্ট জোনের আওতায় আনা হয়েছে। বচ্চনদের বাংলো এবং সংলগ্ন এলাকা স্যানিটাইজেশনের কাজও শুরু করেছে বিএমসি কর্তৃপক্ষ।

শনিবার রাতে নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি করা হয় অমিতাভ বচ্চনকে। রবিবার সকালে হাসপাতালের তরফে জানানো হয় বিগ বি’র অবস্থা স্থিতিশীল। সামান্য উপসর্গ ছাড়া আর কোনও সমস্যা নেই তাঁর। অভিষেকেরও কেবল মৃদু উপসর্গ রয়েছে। তিনিও ভাল আছেন।

বিগ বি’র এক চিকিৎসক জানিয়েছেন, গত কয়েকদিন ধরে শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভুগছিলেন অভিনেতা। এরপর শনিবার সন্ধ্যায় তাঁর কোভিড টেস্ট করানো হয়। রিপোর্ট আসে পজিটিভ। তবে ভালোই আছেন বিগ বি। গতকাল হাসপাতাল থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবিও শেয়ার করেছিলেন তিনি।

বচ্চন পরিবারের চার সদস্যের করোনা হওয়ার পর তাঁদের সংস্পর্শে আসা মোট ৫৪ জন কর্মীর সোয়াব টেস্ট করানো হয়। এঁদের মধ্যে ২৮ জনকে ইতিমধ্যেই কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। বাকি ছিলেন ২৬ জন। যাঁরা সকলেই বচ্চনদের ‘জলসা’ বাংলোয় কর্মরত। অমিতাভ-অভিষেকের সরাসরি সংস্পর্শে থাকায় এঁদের কোভিড টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ আসার প্রবল সম্ভাবনা ছিল। তবে এই ২৬ জন কর্মীর রিপোর্টই নেগেটিভ এসেছে। গতকাল এবং আজ দু’দিন পরপর সোয়াব টেস্ট হয়েছে এই ২৬ জনের। দু’দিনই রিপোর্ট এসেছে নেগেটিভ। তবে সুরক্ষার খাতিরে আপাতত ২ সপ্তাহ নিয়ম মেনে কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন এই ২৬ জন কর্মী।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More