শরীর ভাঙছে অমিতাভের, সইছে না পরিশ্রম, ফুটবল ম্যাচ দেখেই অবসর যাপন বিগ বি’র

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বেশ কয়েকদিন ধরেই অসুস্থ অমিতাভ বচ্চন। কী হয়েছে বিগ বি’র সঠিক ভাবে তা অবশ্য জানা যায়নি। তবে শরীর যে বেশ খারাপ একথা বোঝা গিয়েছে গত একমাসে। অক্টোবর মাসে তিনি ভর্তি হয়েছিলেন হাসপাতালেও। চলতি মাসে আবার টুইট করে জানিয়েছিলেন যে অসুস্থতার কারণেই ২৫তম কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে উপস্থিত থাকতে পারবেন না।

আরও পড়ুন- লতা মঙ্গেশকর অসুস্থ, ভর্তি মুম্বইয়ের ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে

তবে শরীরে তেমন জোর না থাকলেও অবসরে ফুটবল খেলা দেখতে ভোলেননি অমিতাভ। সম্প্রতি বিগ বি টুইট করেছেন একটি ছবি। সেখানে দেখা গিয়েছে বিছানার উপর শুয়ে রয়েছেন একজন। দেখা যাচ্ছে কেবল তাঁর মোজা পরা পা। সামনে টিভিতে চলছে ফুটবল ম্যাচ। এই ছবি শেয়ার করে অমিতাভ লিখেছেন বাড়িতে এখন রেস্ট নেওয়ার ফাঁকে এভাবেই সময় কাটাচ্ছেন তিনি। পাশাপাশি অভিনেতা এও জানিয়েছেন যে এবার শরীর তাঁকে জানা দিয়েছে একটু ধীরে কাজ করার কথা।

সদ্যই ৭৭-এ পা দিয়েছেন অমিতাভ। তবে আশির দোরগোড়ায় দাঁড়িয়েও ক্লান্তি নেই এই বর্ষীয়ান অভিনেতার। ক্যামেরার সামনে আজও প্রতি মুহূর্তে তিনি প্রমাণ করে দেন যে ‘এজ ইস জাস্ট এ ফ্যাক্টর’। তবে ইদানীং শরীর ভালো যাচ্ছে না তাঁর। গত ১৫ অক্টোবর মঙ্গলবার রাত ২টো নাগাদ মুম্বইয়ের নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। সেসময় শোনা গিয়েছিল লিভারের সমস্যা হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল অমিতাভকে। আলাদা কেবিনে রেখে তৎপরতার সঙ্গে চলছিল চিকিৎসা। সেখানে ঢুকতে দেওয়া হয়নি কাউকেই। যদিও হাসপাতাল সূত্রে দাবি করা হয়েছিল যে রুটিন চেকআপের জন্যই নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। তিনদিন হাসপাতালে থাকার পর বাড়ি ফেরেন বিগ বি।

১৯৮৩ সালে ‘কুলি’ ছবির শ্যুটিংয়ের সময় চোট পান অমিতাভ। তারপর থেকেই দীর্ঘদিন ধরে লিভারের সমস্যায় ভুগছেন অভিনেতা। কিছুদিন আগে বিগ বি নিজেই জানিয়েছিলেন তাঁর লিভারের মাত্র ২৫ শতাংশ ঠিকঠাক কাজ করে। বছর ২০ আগে একবার ‘ব্লাড ট্রান্সফিউশন’ করা হয়েছিল তাঁর। তারপর থেকেই ক্রমাগত বেড়েছে লিভারের সমস্যা। কয়েকদিন আগে অমিতাভ জানিয়েছিলেন, ২০০০ সালে টিউবারকিউলোসিসের চিকিৎসা হয়েছিল তাঁর। তিনি জানতেও পারেননি যে তারও ৮ বছর আগে থেকে এই রোগ বাসা বেঁধেছিল তাঁর শরীরে। এরপর হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসেও আক্রান্ত হয়েছিলেন অমিতাভ। তারপর থেকেই নিয়মিত চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণের মধ্যে থাকতে হয় তাঁকে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More