কেঁদেই ফেললেন দীপিকা, ‘ছপক’-এর ট্রেলর লঞ্চের অনুষ্ঠানে আবেগপ্রবণ অভিনেত্রী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মঙ্গলবারই রিলিজ হয়েছে দীপিকা পাড়ুকোনের আগামী ছবি ‘ছপক’-এর ট্রেলর। পরিচালক মেঘনা গুলজার এবং কো-স্টার বিক্রান্ত মাসের সঙ্গে মুম্বইয়ে ট্রেলর লঞ্চের অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন দীপিকা নিজেও। কিন্তু অনুষ্ঠানের মাঝেই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন অভিনেত্রী। অন ক্যামেরাও কেঁদে ফেলতেও দেখা যায় দীপিকাকে। মেঘনার দিকে মাইক বাড়িয়ে দীপিকা বলেন যাতে আলোচনা এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। পরিচালক মেঘনাও দীপিকাকে সান্ত্বনা দিয়ে হাল ধরেন অনুষ্ঠানের।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে ট্রেলর লঞ্চের অনুষ্ঠানে দীপিকা পাড়ুকোনের কেঁদে ফেলার ভিডিও। নেটিজেনরা বলছেন, “অভিনেত্রীর আবেগ দেখেই বোঝাই যাচ্ছে নতুন ছবি ছপক তাঁর হৃদয়ের খুব কাছের। শুধু অভিনয় করতে হয় বলেই এই ছবিতে কাজ করেননি দীপিকা। বরং ছবির প্রতিটা মুহূর্ত মিশে গিয়েছে তাঁর আত্মার সঙ্গে। নইলে এভাবে কেউ আবেগতাড়িত হয়ে প্রকাশ্যে কেঁদে ফেলতে পারেন না।” মেঘনা গুলজারের ছবি ‘ছপক’-এ অ্যাসিড অ্যাটাক সারভাইভার লক্ষ্মী আগরওয়ালের চরিত্রে অভিনয় করেছেন দীপিকা। পর্দায় তাঁর চরিত্রের নাম মালতী। পরিচালকের কথায়, “মালতী আশার প্রতীক, উৎসাহের প্রতীক।“

ইতিমধ্যেই ট্রেলর দেখে মুগ্ধ দর্শক মহল। পেলব মেকআপ, আলোর ঝলকানি নয় বরং অ্যাসিডে ঝলসে যাওয়া কুঁচকানো চামড়া, তামাটে রঙয়েই বাজিমাত করেছেন দীপিকা। এক্সপ্রেশন থেকে অভিনয়, একজন অ্যাসিড আক্রান্ত জীবনে প্রতিনিয়ত ঠিক কী কী ঘটনার সম্মুখীন হন, সেইসবই নিখুঁত ভাবে পর্দায় তুলে ধরেছেন অভিনেত্রী। অ্যাসিড আক্রান্ত হওয়ার পরমুহূর্তে জ্বালাপোড়ায় আর্তনাদ, আইনি লড়াই লড়তে চাওয়ার অদম্য ইচ্ছে, আত্মবিশ্বাস ভর করে ন্যায় পাওয়া, সবশেষে জয়ের হাসি হাসা—-ট্রেলরে প্রতিটি মুহূর্তেই দীপিকা একদম পারফেক্ট। নেটিজেনরা বলছেন, চরিত্রের জন্য দীপিকাকে বেছেই সঠিক নির্বাচন করেছেন মেঘনা গুলজার।

আরও পড়ুন- ছপক: অ্যাসিড আক্রান্তের যন্ত্রণা, জীবনের লড়াই, ট্রেলরেই কাঁপিয়ে দিলেন দীপিকা

এর আগে দীপিকা নিজেও বলেছিলেন ছবির গল্পটা তাঁর হৃদয় ছুঁয়েছিল। তাই মেঘনাকে হ্যাঁ বলতে একটুও সময় নষ্ট করেননি তিনি। অভিনেত্রী এও জানিয়েছিলেন যে এই চরিত্র তাঁর কাছে খুবই চ্যালেঞ্জিং। নিজের অভিনয় দক্ষতায় মালতীকে পর্দায় নিখুঁত ভাবে ফুটিয়ে তোলাটাই তাঁর কাছে চ্যালেঞ্জ। সদ্য রিলিজ হওয়া ট্রেলর দেখে মুগ্ধ নেটিজেনরা। সকলেই একবাক্যে বলছেন, “এই ছবিতে দীপিকা একাই একশ। ট্রেলরেই কাঁপিয়ে দিয়েছেন তিনি। সিনেমায় যে বাজিমাত করবে সে আন্দাজ করাই যাচ্ছে।”

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More