যৌনতা আমার কাছে শুধুই শারীরিক সুখ নয়, এর সঙ্গে জড়িয়ে থাকে আবেগও: দীপিকা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বছর দেড়েক হয়ে গেল গাঁটছড়া বেঁধেছেন দীপিকা পাড়ুকোন এবং রণবীর সিং। বিটাউনের ‘দীপবীর’ জুটি এখন হামেশাই থাকেন শিরোনামে। সোশ্যাল মিডিয়ার ট্রেন্ডিং থেকে শুরু করে পেজ থ্রি—–সব জায়গাতেই ‘ফেমাস কাপল’ দীপিকা-রণবীর। তাঁদের প্রেম নিয়েও আলোচনা হয় বিস্তর।

তবে এতকিছুর মধ্যেও রণবীর কাপুর এবং দীপিকার প্রেমের কাহিনি একটুও ফিকে হয়নি। কয়েকদিন আগে একটি বিজ্ঞাপনে একসঙ্গেও দেখা গিয়েছে তাঁদের। আর সম্প্রতি দীপিকার একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশ্যে আসার পর থেকে নতুন করে আলোচনা শুরু হয়েছে দুই তারকাকে নিয়ে। এর আগে নিজের অতীত এবং সেই সময়ের সম্পর্ক নিয়ে বোধহয় এতটা খোলাখুলি আলোচনা করতে দেখা যায়নি দীপিকাকে। অভিনেত্রী নিজেই একসময় জানিয়েছিলেন যে মানসিক অবসাদে ভুগতেন তিনি। জীবনের একটা বড় সময় নিজের সঙ্গে প্রতিদিন কঠিন লড়াই করতে হয়েছে তাঁকে। তবে দীপিকা যে তাঁর পুরনো সম্পর্কে মানসিক ভাবে ভীষণ রকম আঘাত পেয়েছিলেন সেকথা এর আগে সেই ভাবে প্রকাশ্যে আনেননি অভিনেত্রী।

সদ্যই একটি সাক্ষাৎকারে দীপিকা বলেছেন, “যৌনতা আমার কাছে শুধুই শারীরিক সুখ নয়। অবশ্যই তার সঙ্গে জড়িয়ে থাকে অনেকটা আবেগ। একটা সম্পর্কে থাকাকালীন আমি কখনও কাউকে ঠকাইনি। যদি ঠাকাতেই হয় তাহলে সম্পর্কে থাকার কী মানে। তার চেয়ে বরং সিঙ্গল থেকে মজা উপভোগ করাই ভাল। কিন্তু দুঃখের বিষয় যে সবাই এমনটা ভাবেন না।“

অতীতের সম্পর্কে যে বড়সড় আঘাত পেয়েছিলেন সেকথাও জানিয়েছেন দীপিকা। এবং বলেছেন, “আমি আবেগপ্রবণ। হয়তো তাই অতীতে আঘাত পেয়েছি। বোকা ছিলাম তাই একজনকে দ্বিতীয়বার সুযোগ দিয়েছিলাম। আশেপাশের সবাই বলেছিল ও আবার আমায় ঠকাবে। সেসব কথা কানেও নিইনি তখন। ও বারবার ক্ষমা চেয়েছিলাম আর তাতেই আমি গলে গিয়েছিলাম।“শোনা যায় বছর দুয়েক ডেট করেছিলেন এই দুই তারকা। এরপর ২০০৯ সালে ব্রেকআপ হয়ে যায় তাঁদের।

নিজের সাক্ষাৎকারে কারও নাম করেননি দীপিকা। তবে অভিনেত্রীর ভক্তদের দুইয়ে দুইয়ে চার করে নিতে অসুবিধে হয়নি। অনেকেই বলছেন এসব কথা বলা হয়েছে রণবীর কাপুরের উদ্দেশে। যদিও দীপিকা নিজে এ ব্যাপারে কোনও মন্তব্য করেননি। তবে তিনি বলেছেন, “সবার বারণ করা সত্ত্বেও ওকে দ্বিতীয়বার সুযোগ দিয়েছিলাম। তারপরেও বুঝেছিলাম আমায় ঠকানো হচ্ছে। এরপর অবশেষে ওকে হাতেনাতে ধরেছিলাম। গোটা ব্যাপারটা থেকে নিজেকে বের করে আনতে অনেকটা সময় লেগেছিল আমার। তবে হ্যাঁ একবার বেরিয়ে আসার পর আর ফিরে যাইনি। পিছনে ফিরে তাকানোর আর দরকার পড়েনি। ওই সময়টা জাহাজের মতোই স্রোতে ভেসে গিয়েছে।“

তারকা হলেও সম্পর্কে থাকার সময় আর পাঁচজন সাধারণের মতোই ভাবতেন দীপিকা। অভিনেত্রীর কথায়, “প্রথমবার প্রতারিত হওয়ার পর মনে হয়েছিল হয়তো আমারই কোনও ভুল হচ্ছে। কিংবা সম্পর্কটায় সবকিছু আর ঠিকঠাক নেই। পরে বুঝতে পেরেছিলাম আমাকে ঠাকানোটা ওর অভ্যাসে পরিণত হয়েছিল। সম্পর্কে থাকার সময় নিজের সবটা দিয়েছিলাম। বদলে কিছু পাবো আশাও করিনি। কিন্তু যখন বিশ্বাসটাই ভেঙে গেল সেদিন বুঝেছিলাম সমস্যা আমার নয় ওর। আর বিশ্বাস ভেঙে গেলে ফিরিয়ে আনা যায় না। ওই একটাই জিনিস তো সম্পর্ক গড়ে তোলার স্তম্ভ। সেটাই নড়বড়ে হয়ে গেলে সম্পর্ক তো ভাঙবেই।“

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More