পর্ন কেলেঙ্কারিতে এখনই সমন নয় শিল্পাকে, তাঁর ভূমিকা খতিয়ে দেখছে মুম্বই পুলিশ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাজ কুন্দ্রার বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি কেলেঙ্কারি চক্রে জড়িত থাকার যে অভিযোগ উঠেছে, তাতে কি তাঁর স্ত্রী শিল্পা শেট্টিরও কোনও ভূমিকা আছে? এই প্রশ্ন ঘিরে কৌতূহল রয়েছে জনমানসে। রাজের বিরুদ্ধে নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য ক্রমশঃ সামনে আসছে। রাজ গ্রেফতার হয়েছেন অ্যাপে পর্নোগ্রাফি ছবি তৈরি ও স্ট্রিমিংয়ের অভিযোগে। মুম্বই পুলিশের দাবি, প্রাথমিক তদন্তে শিল্পার যুক্ত থাকার  কোনও ইঙ্গিত মেলেনি। যদিও অপরাধ দমন শাখা এখন তাঁর ভূমিকার ব্যাপারে খোঁজখবর, বিশ্লেষণ চালাচ্ছে। জনৈক অফিসার বলেছেন, প্রাথমিক তদন্তে পর্নোগ্রাফির চক্রে শিল্পার কোনও ভূমিকা থাকার তথ্য মেলেনি। তবে আমরা এখনও সব খতিয়ে দেখছি। শিল্পা, রাজের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ওই অ্যাকাউন্টগুলিতে পর্নোগ্রাফি ব্যবসা থেকে আসা কোনও অর্থ জমা পড়়েছে কিনা, দেখা হচ্ছে।

যেহেতু রাজই মামলার মূল চক্রী, তাই তদন্তের কেন্দ্রে তিনিই আছেন। এখনও অবধি শিল্পা শেট্টি কুন্দ্রাকে কোনও সমন পাঠানো হচ্ছে না। পুলিশ কর্তাটি আরও বলেন, সাড়ে সাত  কোটি টাকা নিয়ে তদন্ত চলছে। প্রাথমিক ভাবে ইঙ্গিত  মিলছে, পর্নোগ্রাফি অ্যাপে বিনিয়োগ ও  রাজস্ব বাবদ ওই অর্থ জমা হয়েছে।

অভিযোগ, রাজ তাঁর হটশটস অ্যাপটি ব্রিটেনের কোম্পানি কেনরিন প্রাইভেট লিমিটেডকে বিক্রি করে দিয়েছেন। কেনরিনের  মালিক তাঁর শ্যালক প্রদীপ বক্সি। কিন্তু অ্যাপটি মুম্বই থেকে নিয়ন্ত্রণ করতেন রাজই, জানিয়েছে পুলিশ। ২০১৯ সালে তিনি ২৫ হাজার ডলারে অ্যাপটি  বিক্রি করেন বলে জানিয়েছেন রাজ। ওই অ্যাপের মাধ্যমেই পর্নো ভিডিও স্ট্রিমিং করায় রাজ যুক্ত ছিলেন বলে অভিযোগ। হটশটস মোবাইল  প্ল্যাটফর্ম  থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

এদিকে রাজ ও তাঁর তথ্যপ্রযুক্তি সংক্রান্ত প্রধান রায়ান থর্পের ২৩ জুলাই পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। পুলিশ আগেই এই মামলায় ৯জনকে গ্রেফতার করেছে।

 

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More