‘পুরুষের একচেটিয়া অধিকার, শক্তিশালী পেশী মেয়েদের থাকতে নেই!’ ক্ষুব্ধ ‘পুরুষালি’ তাপসী

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত ‘রশমি রকেট’-এ (Rashmi Rocket) পেশাদার স্প্রিন্টারের ভূমিকায় তাপসী পান্নুকে (taapsee pannu) নিয়ে শুরু হয়েছে নেট দুনিয়ায় কটাক্ষ, বিদ্রূপ। চরিত্রটিকে ফুটিয়ে তুলতে নারীসুলভ কমনীয়তা ঝেড়ে ফেলে চেহারায় বদল আনতে হয়েছে তাঁকে। সিনেমায় তাঁর চরিত্রটিকে লিঙ্গ নির্ধারণ (gender testing) পরীক্ষা করাতে হয়েছিল। আর সোস্যাল মিডিয়ায় অনেকে তাঁকে ‘পুরুষালি’ (manly) বলে খোঁচা দিয়েছেন। তাপসী অবশ্য যাবতীয় বিদ্রুপ, কটাক্ষ হেলায় উড়িয়ে পাল্টা প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন, শক্তিশালী মাসল (strong muscles) কি পুরুষের (man) একার অধিকার, মেয়েদের (woman) থাকতে নেই!

কেন মহিলাদের ফিটনেস (fitness) ধরে রাখতে গিয়ে আজও এত একঘেয়ে, বস্তাপচা কথাবার্তা শুনতে হবে, বিস্মিত তাপসী। এটা খুবই দুঃখজনক, বলেছেন  তিনি। মেয়েদের পেশী থাকতে নেই, কে এই নিয়ম চালু করল, তাঁর প্রশ্ন।

এর আগে তাপসী ওজন ঝরানোর চেষ্টা করার সময়কার একটি কাহিনি শুনিয়েছেন। বলেছেন, আমি এও শুনেছি, শুধু কার্ডিও করো, ওয়েটলিফটিং কোরো না। আমিও সেই বোকার মতো পরামর্শে তখন কান দিয়েছিলাম কেননা সেসময় ততটা সোজাসাপটা মনের মানুষ ছিলাম না যে, পাল্টা প্রশ্ন করব। কিন্তু সময় এগনোর সঙ্গে সঙ্গে বুঝতে পেরেছি, এসব একেবারে ভুল কথা।

 

কেন মেয়েদের নির্দিষ্ট একটা চেহারাই লােকে পছন্দ করে, বুঝতে পারেন না তিনি। তাপসী বলেছেেন, মাসল তৈরি হলেও একটা মেয়ের শরীর ছেলের শরীর হবে না। মেয়ের শরীরই থাকবে, কেননা তার গঠনের ধরনই  আলাদা।

রশমি রকেটে ছেলেদের মতো শরীরী গঠনের জন্য সমালোচনার পাল্টা তাপসী বলেছেন, লোকে হয়তো আমার বিকিনি পরা ছবি দেখতে বলে উঠত, ও কী বডি, সো হট! কিন্তু আমার কাছে তেমন শরীরই প্রশংসার যোগ্য যা কঠিন পরিশ্রমে গড়ে তোলা।

তাপসী বলেছেন, আমি বরং কারও ঈশ্বরপ্রদত্ত রোগা চেহারার তুলনায় বেশি প্রশংসা করব সেই শরীরের যা পরিশ্রম, ঘাম ঝরিয়ে তৈরি করা।

রশমি রকেট-এর পর তাপসীকে দেখা যাবে তাহির রাজ ভাসিনের সঙ্গে ‘লুপ লপেটা’য়।  এছাড়া ভারতীয় একদিনের মহিলা ক্রিকেট টিমের অধিনায়ক মিতালী রাজের বায়োপিক ‘সাবাস মিঠু’-তেও অভিনয় করবেন তিনি। থ্রিলার ‘দোবারা’-র কাজও তাঁর হাতে রয়েছে।

 

 

 

 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.