৪৯ বছর পরে অলিম্পিক হকির সেমিফাইনালে ভারতীয় দল, মাঠে ফুল ফোটালেন মনপ্রীতরা

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারতীয় হকিতে চাক দে ইন্ডিয়া।

না-ই জিতুক এখনও সোনার পদক, কিন্তু অলিম্পিকের আলোয় উদ্ভাসিত ভারতীয় হকি দল। তারা সেমিফাইনালে জায়গা করে নিল ৪৯ বছর পরে। শেষ ১৯৮০ সালের অলিম্পিকে তারা সরাসরি ফাইনাল খেলেছিল। সেবার ভারত সোনা জেতে। তারও আগে ১৯৭২ সালের অলিম্পিকে ভারত শেষ চারে গিয়েছিল।

তারপর চার দশকের দীর্ঘদিনের শূন্যতা। অবশেষে ভারতীয় হকিতে সুসময় ফিরল। সেমিফাইনালে ভারতের সামনে বেলজিয়াম। সেই লড়াই নিঃসন্দেহে কঠিনই হবে।

রবিবার অলিম্পিকের আঙিনায় কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচে গ্রেট ব্রিটেনকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ভারতীয় ছেলেরা ইতিহাস সৃষ্টি করলেন। শুরু থেকেই ভাল খেলেছে তারা। খেলার তিনটি কোয়ার্টারেই তারা জিতেছে। যদিও শেষ কোয়ার্টারে গিয়ে ভারত একটি গোল হজম করেছে।

খেলার সাত মিনিটে গোল ভারতের! দুর্দান্ত শুরু ভারতের। দিলপ্রীত সিংয়ের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল ভারত। খেলার ১৬ মিনিটে ফের গোল ভারতের। হার্দিক বল ছিনিয়ে নিয়েছিলেন। গোল করতে কোনও ভুল করেননি গুজরন্ত।

দুই গোল হজম করে কিছুটা আক্রমণের ওঠার চেষ্টা করেছিল ব্রিটেন। খেলার দ্বিতীয় কোয়ার্টার থেকেই ব্রিটেন খেলায় ফেরার চেষ্টা করেছিল। তারা পেনাল্টি কর্ণার আদায় করলেও সেটি থেকে কাজে লাগাতে পারেননি। বরং ভারতীয় দলের রক্ষণ এতই জমাট ছিল যে বিপক্ষ কোনওসময়ই থিতু হতে পারেনি।

একটা সময় দারুণ চেপে ধরে ব্রিটেন, তাদের একের পর এক আক্রমণ রুখতে থাকেন গোলকিপার শ্রীজেশ। তিনি যেভাবে গোল দূর্গ রোধ করেছেন, কোনও প্রশংসাই যথেষ্ট নয়। যদিও ভারতের জয় সুনিশ্চিত করেছেন হার্দিক সিং, তিনি খেলা শেষ হওয়ার তিন মিনিট আগে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে যে গোলটি করেছেন, তা হাজার মাইল হেঁটেও দেখতে যাওয়া যায়!

চলতি আসরে ভারতীয় দল ভাল খেলেছে, একটি ম্যাচেই তারা বড় ব্যবধানে হেরেছিল। তারপর যেভাবে প্রত্যাবর্তন করেছে, দারুণ গর্বের বিষয়।

ভারতীয় দল : মনপ্রীত সিং (অধিনায়ক), শ্রীজেশ, অমিত রুইদাস, রুপিন্দর পাল সিং, হরমনপ্রীত সিং, সুরেন্দর কুমার, হার্দিক সিং, নীলকান্ত শর্মা, সুমিত, মনদীপ সিং এবং দিলপ্রীত সিং।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.