আপনি কি পশুপ্রেমী! ঘুরে আসুন ভারত থেকে মাত্র ৪ঘণ্টা দূরত্বের আবুধাবি থেকে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দীর্ঘদিন ‘ডাকঘর’ নাটকের অমলের মতো দিন কাটানোর পর নিশ্চয়ই মনে মনে পরিকল্পনা করে ফেলেছেন, লকডাউন উঠে গেলেই সটান কোথায় বেড়াতে যাবেন! অনেক ভ্রমণপিপাসুরা বলেন, বেড়ানো নিয়ে আলোচনা করতে করতেই নাকি অর্ধেক ভ্রমণ হয়ে যায়। আর যাঁরা একটু ঘুরে বেড়াতে পছন্দ করেন, তাঁদের তো একেবারে হাঁসফাঁস করার দশা হয়েছিল এই গৃহবন্দি সময়ে। তবে আর মনখারাপ করবেন না, কারণ ধীরে ধীরে লকডাউন শিথিল হচ্ছে অনেক দেশেই। আসছে নতুন করে বেড়াতে যাওয়ার সুযোগও।

বেড়াতে যাওয়াটা আসলে নির্ভর করে রুচি, পছন্দ আর ইচ্ছের উপর। এক একজনের পছন্দ এক একরকম। তাই লকডাউন একটু শিথিল হওয়ার পর কেউ পাহাড়ে, কেউ সমুদ্রে, কেউ বা জঙ্গলে বেড়িয়ে পড়েছেন এখনই। তবে আপনি যদি জঙ্গল বা পশুপ্রেমী হন, তাহলে চাইলে ঘুরে আসতেই পারেন আবুধাবি থেকে। ভারত থেকে মাত্র ৪ ঘণ্টা দূরত্বেই এই শহর। যাওয়ার পরিকল্পনা থাকলে একঝলক দেখে নিন কোন কোন জায়গায় অবশ্যই যাবেন-

১. সাদিয়াত দ্বীপ –

সাদিয়াত দ্বীপের নীল সমুদ্রের প্রেমে নিশ্চিত পড়বেন। তবে একইসঙ্গে যাঁরা পাখি দেখতে ভালবাসেন তাঁরাও উপভোগ করবেন। দ্বীপের মূল আকর্ষণ হল হকসবিল কচ্ছপ। যা এই মুহূর্তে বিপন্ন প্রজাতির প্রাণী। রঙিন খোলসের জন্য এদের দিকে তাক করে থাকেন চোরা শিকারিরা। কিন্তু বিশেষ পরিকল্পনা করে এদের বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টা করছেন আবুধাবির লোকেরা। সাদিয়াত বীচের নরম বালিতেই এরা ডিম পাড়ে। আর সেই ডিম যাতে সুরক্ষিত থাকে,সে ব্যবস্থাও নেওয়া হচ্ছে।

২. স্যার বাণী ইয়াস আইল্যান্ড –

যাদের বন্যপ্রাণ পছন্দ, তাঁরা অবশ্যই আসুন স্যার বাণী ইয়াস আইল্যান্ডে। ১৭ হাজারের বেশি আলাদা আলাদা রকমের প্রাণী এখানে আপন মনেই ঘুরে বেড়ায়। চিতাবাঘ, শেয়াল, হরিণ, ফ্লেমিংগো, এগুলো তো দেখতে পাবেনই। এমনকি দ্বীপটাও উপভোগ করবেন। ডলফিন, হাঙর তো আছেই। এছাড়াও নানারকমের রঙিন মাছ, সামুদ্রিক প্রাণী দেখতে পাবেন এখানে।

৩. অল আইন পার্ক –

সিনেমার নায়িকাদের মতো জিরাফকে নিজে হাতে খাওয়াতে ইচ্ছে করে? চলে আসুন অল আইন পার্কে। এখানকার জিরাফরা রীতিমতো প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত। ফলে ভয়ের কিছুই নেই। নিজের হাতে লেটুস পাতা, গাজর এগুলো খাওয়াতে পারেন। আবার ভাগ্য ভাল থাকলে এই পার্কেই দেখতে পারবেন সাদা রঙের রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার, সিংহ। অন্যান্য জীবজন্তুও আছে। তবে এখানে সকালবেলায় সাফারিতে যেতে ভুলবেন না। নানা রকম বন্য প্রাণী তো দেখতে পারবেনই। সন্ধের পর সূর্যাস্তের দৃশ্যও উপভোগ করবেন।

৪. ম্যানগ্রোভ ন্যাশানাল পার্ক –

আবুধাবির অন্যতম জনপ্রিয় জায়গাই এই ম্যানগ্রোভ ন্যাশানাল পার্ক। সবুজ ম্যানগ্রোভের গভীর জঙ্গলে বোট নিয়ে ঘুরতেও পারবেন। আর এখানেই আছে ৬০টিরও বেশি প্রজাতির আলাদা রকমের পাখি। রঙিন ফ্লেমিংগো তো প্রত্যেকের নজর কাড়বেই।  নানা ওয়াটার অ্যাক্টিভিটির ব্যবস্থাও আছে। ফলে একটা গোটা দিন এই পার্কে দারুণ উপভোগ করবেন।

আবুধাবি আসবেন আর মরুভূমি দেখবেন না, তাও হয়! আর মরুভূমিতে এলে উটে চড়বেন না! সে ব্যবস্থাও আছে এখানে। উটে ওঠার আগে পর্যটকদের ট্রেনিং দেওয়ার ব্যবস্থা আছে এখানে। ফলে ভয়ের কারণ নেই। উটে চড়ে নিজেঈ মনে মনেই বলতে থাকবেন “ইহার চেয়ে হতেম যদি আরব বেদুইন…”!

ছবিঋণ: ইনস্টাগ্রাম

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More