‘আমাদের হৃদয়ে সংহতিবোধ, একসঙ্গে জিতব’, কোভিড যুদ্ধে ভারতকে হিন্দিতে ফেসবুক পোস্টে বার্তা ফরাসি প্রেসিডেন্টের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কোভিড ১৯ মোকাবিলায় ভারতের পাশে ফ্রান্স। অক্সিজেন জেনারেটর, লিকুইড অক্সিজেন কন্টেনার, ভেন্টিলেটর ও অন্যান্য মেডিকেল সামগ্রী সমুদ্রপথে, বিমানে পাঠাচ্ছে বলে জানাল তারা। ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমান্যুয়েল মাক্রঁ শুধু অতিমারী মোকাবিলায় ভারতকে সাহায্যের আশ্বাস দিয়েই ক্ষান্ত হননি, হিন্দিতে ফেসবুকে করা পোস্টে সহমর্মিতার বার্তাও দিয়েছেন।


লিখেছেন, আমরা যে অতিমারী পর্বে রয়েছি, তা কাউকে রেয়াত করছে না। ভারত একটা কঠিন সময়ের মধ্যে আছে জানি। ফ্রান্স ও ভারত সবসময়ই ঐক্যবদ্ধ থেকেছে, কঠিন সময়ে পরস্পরের পাশে থেকেছে। আমরা সাহায্য পাঠাতে তৈরি। আমাদের দেশের হৃদয়ে আছে সংহতিবোধ। আমাদের দুটি দেশের বন্ধু্ত্বের কেন্দ্রে আছে এই বোধ। আমরা একসঙ্গে জিতব। ফরাসি প্রেসিডেন্টের ভারতের জনগণের পাশে দাঁড়ানোর ডাকে সাড়া দিয়ে ফ্রান্সের ইউরোপ ও বৈদেশিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রক বলেছে, তারা ভারতের মানুষকে সহায়তা দিতে ‘ব্যতিক্রমী সংহতি অভিযান’ চালাচ্ছে।
করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে জেরবার ভারতকে পরিস্থিতি মোকাবিলায় সাহায্য করতে আমেরিকা, জার্মানি, ব্রিটেন, অস্ট্রেলিয়া, সিঙ্গাপুর, ইজরায়েলের পাশাপাশি আরও কিছু দেশ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন ইতিমধ্যেই জরুরি মেডিকেল পরিষেবা পাঠানোর কথা ঘোষণা করেছে।
ফ্রান্স এক বিবৃতিতে বলেছে, বিদেশমন্ত্রকের সঙ্কট মোকাবিলা ও সহায়তা কেন্দ্রের সমন্বয় ও ভারতে ফরাসি দূতাবাসের উদ্যোগে চলতি সপ্তাহের শেষে বিমান ও জাহাজের মাধ্যমে এই অভিযান চলবে। ফরাসি বিদেশমন্ত্রক বলেছে, তারা আটটি অক্সিজেন জেনারেটর পাঠাবে, যেগুলির প্রতিটি প্রায় দশ বছর একটি ২৫০ শয্যার হাসপাতালে বাধাহীন অক্সিজেন সরবরাহ করতে সক্ষম। ৫টি লিক্যুইড মেডিকেল অক্সিজেন কন্টেনার প্রথম দফায় পাঠানো হচ্ছে। সেগুলি দিনে ১০ হাজার পর্যন্ত রোগীকে মেডিকেল অক্সিজেন সরবরাহে সক্ষম। ২৮টি ভেন্টিলেটর, ২০০টি ইলেকট্রিক সিরিঞ্জ পাম্প পাঠাচ্ছে ফ্রান্স।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More