সত্যজিতের পছন্দের মেন্যু নিয়ে ফুডফেস্ট, নয়া চমক দক্ষিণ কলকাতার রেস্তরাঁর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শুধুমাত্র বাংলা চলচ্চিত্র নয়, পুরো উপমহাদেশের চলচ্চিত্রকে এক ভিন্ন মাত্রায় পৌঁছে দিয়েছিলেন বিশ্বজনীন পরিচালক সত্যজিৎ রায়। তাঁর যেকোনো সৃষ্টিকেই আপামর বাঙালি নিজেদের কৃষ্টি ও কল্পনার সঙ্গে এক করে ফেলেছে। বাঙালির মনে প্রাণে সত্যজিৎ রায়।সুদীর্ঘ বছর ধরে ‘এক্ষণ’ ম্যাগাজিনে তিনি যে প্রচ্ছদ ডিজাইন করেছিলেন, তা ঠিক কতটা উচ্চমানের ছিল তা যদি দেখে না থাকেন একবার চাক্ষুষ করতে ইচ্ছে করে কী? জানতে ইচ্ছে করে, সত্যজিৎ বাবুর প্রিয় খাবার কী ছিল? কিংবা শ্যুটিংয়ে কী খেতেন বিশ্ববরেণ্য পরিচালক?এইসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে আসতে হবে দক্ষিণ কলকাতার গোলপার্কের কাছে ট্রাইব ক্যাফে রেস্তরাঁয়। এই কিংবদন্তি পরিচালকের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে এই রেস্তরাঁর তিন কর্ণধার একসঙ্গে সংঘবদ্ধ হয়ে আয়োজন করেছেন এক ভিন্ন স্বাদের প্রদর্শনী কাম ফুড ফেস্টের। তাতে রয়েছে বাঙালির গৌরব সত্যজিৎ রায়ের স্বতন্ত্র কর্মকাণ্ডকে তুলে ধরার অপূর্ব প্রয়াস। সত্যজিৎ রায়ের নামের আদ্যক্ষর নিয়ে রেস্তরাঁর কর্ণধারেরা নিজেদের মতো বিশ্লেষণ করে তা ‘স্টোরি বোর্ডে’ তুলে ধরেছেন। যা সত্যিই অনন্য মাত্রা যোগ করে। বুক-শেলফে সারিবদ্ধভাবে সুসজ্জিত সত্যজিৎবাবুর লেখা বই। শুধু কী তাই? তাঁর সৃষ্ট ছবি থেকে চরিত্রদের পোস্টার, বিজ্ঞাপনের মতো আর্ট জায়গা করে নিয়েছে রেস্তরাঁর দেওয়ালে। তিনি অনেক বইয়ের নামকরণ থেকে প্রচ্ছদ ডিজাইন করতেন। যা সচরাচর দেখা বা শোনা যায় না। সেইসব দুর্লভ বইয়ের প্রচ্ছদ এখানে ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছে। সত্যজিৎ সৃষ্ট ফেলুদা-কাহিনিতে জটায়ুকে একজন ঔপন্যাসিক হিসেবে পাই। কিন্তু তাঁর লেখা কোনও বই আমরা পাইনা। যদি জটায়ুর লেখা বই প্রকাশিত হত, তবে তার প্রচ্ছদ কেমন হত সেরকমই কাল্পনিক প্রচ্ছদ ‘ফ্যান আর্ট’এর মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে এখানে। রেস্তরাঁর ত্রয়ী কর্ণধার পিনাকী রঞ্জন ঘোষ, সঞ্জয় রায়চৌধুরী ও শিল্পা চক্রবর্তী দ্য ওয়ালকে জানালেন, বেশ দীর্ঘ সময় ধরে সুপরিকল্পিতভাবে গবেষণা করে ‘অচেনা রে’ নামে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করেছেন তাঁরা। যেখানে সত্যজিৎ রায়ের অচেনা সৃষ্টিকে তুলে ধরা হয়েছে। এমন কি মানিকবাবুকে নিয়ে গবেষক দেবাশিস মুখোপাধ্যায়ের লেখা এখানে বিশেষ মাত্রা পেয়েছে। সত্যজিৎ রায়ের এই স্বর্গরাজ্য তাঁর প্রিয় খাবার ছাড়া পরিপূর্ণ হয় নাকি? আর তাই সত্যজিৎবাবুর সুপুত্র পরিচালক সন্দীপ রায়ের গাইডলাইনে সত্যজিৎ রায়ের প্রিয় খাবারও হাজির।সত্যজিৎ বাবু শ্যুটিংয়ে চিকেন কাটলেট, চিকেন স্যান্ডউইচ এবং টক দই খেতেন। এছাড়াও তাঁর অন্যান্য প্রিয় খাবারের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল ফিশ ফ্রাই, হ্যাম স্যান্ডউইচ, ভেটকি মুনিয়া ইত্যাদি।সত্যজিৎ বাবুর এইসব প্রিয় খাবার যদি একবার চেখে দেখতে চান তবে এই মাসের মধ্যেই এখানে একবার অন্তত আসতেই হবে আপনাকে। পকেট ফ্রেন্ডলি এই রেস্তরাঁয় দুজনের খাওয়াদাওয়ার খরচ ৬০০ টাকা+কর।

ঠিকানা- ৬৭ বালিগঞ্জ গার্ডেনস, গড়িয়াহাট, কলকাতা ১৯
যোগাযোগ- ৭০৪৪১৫৯১২১।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More