সোনার দাম কমল টানা পাঁচ দিন ধরে, সস্তা হল রুপোও

দ্য ওয়াল ব্যুরো : মার্কিন ডলারের দাম বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভারতে দাম কমছে সোনা ও রুপোর। বৃহস্পতিবার এদিন মাল্টি কমোডিটি এক্সচেঞ্জ বা এমসিএক্সে গোল্ড ফিউচারের দাম কমেছে ০.৩৩ শতাংশ। ১০ গ্রাম সোনার দাম এখন দাঁড়িয়েছে ৪৮৭০২ টাকা। রুপোর দামও কমেছে এক শতাংশ। এখন এক কেজি রুপোর দাম ৬৫৮৬৬ টাকা। এর আগে সোনার দাম কমেছিল ০.১১ শতাংশ। রুপোর দাম কমেছিল ০.৬৪ শতাংশ। গত অগাস্টে সোনার দাম হয়েছিল সর্বাধিক। তখন ১০ গ্রাম সোনার দাম হয়েছিল ৫৬৩০০ টাকা। এখন তা থেকে দাম কমেছে ৭৫০০ টাকা।

আন্তর্জাতিক বাজারেও এদিন সোনার দাম কমেছে। স্পট গোল্ড অর্থাৎ শেয়ার বাজারে কোনও নির্দিষ্ট সময়ে যে দামে সোনা কেনাবেচা হয়, তা কমেছে ০.৩ শতাংশ। এখন এক আউন্স সোনার দাম হয়েছে ১৮৩৯.২১ ডলার।

এদিন ডলার সূচক উঠেছে ০.১২ শতাংশ। মার্কিন ফেডারাল রিজার্ভ রাতারাতি সুদের হার কমিয়ে প্রায় শূন্যের কাছাকাছি নিয়ে গিয়েছে।

আন্তর্জাতিক বাজারে সোনা বাদে অন্যান্য মূল্যবান ধাতুরও দাম কমেছে। রূপোর দাম ০.২ শতাংশ বা ২৫.১৮ ডলার কমেছে। প্ল্যাটিনামের দাম ০.২ শতাংশ বা ১০৬৩.৭৬ ডলার কমেছে।

যাঁরা সোনা কেনাবেচা করেন, তাঁরা আমেরিকার জিডিপির চতুর্থ ত্রৈমাসিকের রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছেন। বৃহস্পতিবারই ওই রিপোর্ট প্রকাশিত হওয়ার কথা আছে। কোটাক সিকিউরিটি জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের জন্য এমনিতেই আন্তর্জাতিক বাজারের ক্ষতি হয়েছে। তাঁর ওপরে ধনী দেশগুলির অর্থনীতিও খুব চাঙ্গা নেই। আমেরিকা আর্থিক স্টিমুলাস ঘোষণা করবে কিনা ঠিক নেই। যদি অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার জন্য বাইডেন প্রশাসন কোনও প্যাকেজ ঘোষণা করে, তাহলে তা কখন করা হবে, কী পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ করা হবে, তা নিয়েও অনিশ্চয়তা রয়েছে।

চলতি মাসে আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম কমেছে তিন শতাংশ। ২০১১ সালের পরে আর কোনও বছরের জানুয়ারি মাসে সোনার দাম এত কমেনি। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আর কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই বাড়তে পারে সোনার দাম।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More