কাঁচা বাদামের গুণাগুণ, বাদাম গান ভাইরাল হওয়ার পর ফিরে দেখা

0

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ‘আমার কাছে নাইকো বুবু ভাজা বাদাম, আমার কাছে আছে শুধু কাঁচা বাদাম! বাদাম বাদাম দাদা, কাঁচা বাদাম!’ সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে ভাইরাল হয়েছে বাদামওয়ালার এই গান। এই গান গেয়েই বাদাম বিক্রি করেন তিনি। সারা বিশ্বের কয়েক মিলিয়ন মানুষ ইতিমধ্যেই দেখে ফেলেছেন সেই বাদামওয়ালার ভিডিও। ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার খুললেই বেজে উঠছে সেই গান। এমনকী নেটে ‘কাঁচা বাদাম’ লিখে সার্চ করলেও শুরুতেই আসবে এই ভিডিও।

বীরভূম জেলার দুবরাজপুর ব্লকের অন্তর্গত লক্ষ্মীনারায়ণপুর পঞ্চায়েতের কুড়ালজুড়ি গ্রামের বাসিন্দা ভুবন বাদ্যকরের অনবদ্য গায়কীতে কাঁচা বাদামের মাহাত্ম্য যেন আরও বেশি করে বোঝা যায়।

চিকিৎসকরা কিন্তু বলছেন, গান শুনে যতই মজা লাগুক, কাঁচা বাদাম নিয়ে কোনও রকম মজার অবকাশ নেই, এতই তার গুণাগুণ। একনজরে দেখে নেওয়া যাক, কাঁচা বাদামের কী কী গুণাগুণ রয়েছে।

১. হাড় ও পেশি মজবুত: বাদামের প্রোটিন দেহের স্ট্রাকচার গঠন করতে ও মাংসপেশি তৈরি করতে সাহায্য করে বাদাম। এতে আছে ফসফরাস। রোজ একমুঠো বাদাম খেলে হাড়ের অনেক সমস্যাই এড়ানো যেতে পারে।

২. মস্তিষ্কের ক্ষমতা বাড়ায়: নিয়মিত বাদাম খেলে তা মস্তিষ্ক সচল রাখে, এমনই বলছে অ্যামেরিকার অ্যান্ড্রস ইউনিভার্সিটির একটি গবেষণা।

৩. ক্যানসার প্রতিরোধী: কাঁচা বাদামে থাকে অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট, যা ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে। এছাড়াও বাদাম নিয়মিত খেলে রোখা যায় কোষের ক্ষত, কম রাখা যায় ত্বকের বয়স।

৪. পুষ্টি বাড়ায় শরীরে: বাদামে প্রোটিন ও অনেক মিনারেলস থাকে, যা শরীরের জন্য উপকারী।

৫. ত্বক ও চুলের ঔজ্জ্বল্য: বাদামের ভিটামিন ই এবং ক্যারোটিন ত্বক ও চুল সুন্দর রাখে।

৬. খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়: অনিয়ন্ত্রিত কোলেস্টেরলের কারণে হার্টের অসুখ বেড়ে যাওয়ার সমস্যা এখন ঘরে-ঘরে। মুক্তির উপায় লুকিয়ে আছে নিয়মিত একমুঠো কাঁচা বাদামে। এটি ভাল কোলেস্টেরলের পরিমাণ বাড়িয়ে খারাপ কোলেস্টেরল কমায়। ফলে হৃদরোগের সম্ভাবনা কমে।

৭. রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে: কাঁচা বাদামে আছে ম্যাগনেসিয়াম। এই ম্যাগনেসিয়ামের অভাবে রক্তচাপ বেড়ে যেতে পারে। একটানা উচ্চ রক্তচাপ স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাকের মতো বড় অসুখেরও কারণ হয়। তাই নিয়মিত বাদাম খেলে ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতি এড়িয়ে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখা যেতে পারে।

৮. ওবেসিটির শত্রু বাদাম: কাঁচা বাদাম খেলে অল্পে পেট ভরে, খিদে কম পায়। বাদামে বেশি ক্যালরিও থাকে না, যা জমে ওজন বাড়তে পারে।

৯. ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে বাদাম: ডায়াবেটিক রোগীদের নিয়মিত বাদাম খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। এর ফলে টাইপ টু ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কমতে পারে ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত।

১০. কোষের ক্ষমতা বৃদ্ধি: বাদামে থাকে ভিটামিন ই, যা শরীরের প্রতিটি কোণায় কোণায় ছড়িয়ে পড়ে কোষের ক্ষমতা বাড়ায়।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.