সন্তান জন্মের পরে তীব্র অবসাদ? বিরক্তি, অস্থির লাগছে? ‘পোস্টপার্টাম ব্লু’ থেকে সাবধান সদ্য মায়েরা

1

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সন্তানের জন্ম দেওয়ার পরেই কেমন বদলে গিয়েছিলেন মা। মাস দুয়েকের মেয়েটা কেঁদে উঠলেই মারতে যেতেন। নিজেও বিরক্তিতে চিৎকার করতেন (Postpartum Depression)। একদিন শিশুকন্যার কান্নায় বিরক্ত হয়ে তার মুখে-গলায় সেলোটেপ পেঁচিয়ে দিয়েছিলেন মা। নৃশংসভাবে শ্বাসরোধ করে মেয়েকে খুন করে ম্যানহোলে ফেলে দিয়ে এসেছিলেন। পরে পুলিশের কাছে অপহরণের গল্প ফেঁদেছিলেন। বেলেঘাটার এই হাড় হিম করা ঘটনা নাড়িয়ে দিয়েছিল শহরকে।

তদন্তকারীরা বলেছিলেন, একজন ঘরোয়া বধূ যাঁর অপরাধের কোনও পূর্ব রেকর্ড নেই, তিনি কীভাবে নিজের সন্তানকে এমন নির্মমভাবে খুন করতে পারেন! মহিলার মানসিক স্থিরতা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছিল। সে সময় সন্তান জন্মের পরে মায়ের অবসাদ বা পোস্টপার্টাম ডিপ্রেশন থিওরিকেই মেনে নিয়েছিলেন তদন্তকারীরা।

Postpartum Depression: Symptoms, Risk Factors, Get Help

পোস্টপার্টাম ডিপ্রেশন বা পোস্টন্যাটাল ডিপ্রেশন সন্তান জন্মের দিনকয়েক বা মাস দুয়েকের মধ্যে হতে পারে। সন্তান গর্ভে থাকার সময় আনন্দ, ভয়, ট্রমা, অবসাদ একই সঙ্গে হতে পারে মায়ের। শিশু জন্মের পরে অতিরিক্ত চিন্তাভাবনা থেকে ফের অবসাদ জন্ম নিতে পারে। এই অবসাদের ধরন হয় কিছু আলাদা। মাতৃত্বের ক্লান্তি ও অধিক স্ট্রেস মিলেমিশে একধরনের অদ্ভুত মানসিকতা জন্ম নেয় মায়ের মধ্যে। সবকিছুতেই বিরক্ত লাগতে শুরু করে। নিজের সন্তানকেও সহ্য করতে পারেন না মা। সন্তানকে ‘বোঝা’ মনে করতে শুরু করেন অনেকে। এমনও দেখা গেছে, শিশুর কান্নায় বিরক্ত হয়ে তাকে খুন করতেও গিয়েছেন মা।

An Entirely New Type of Antidepressant Targets Postpartum Depression -  Scientific American


পোস্টপার্টাম ডিপ্রেশন বুঝলেই সতর্ক হন মায়েরা

পোস্টপার্টাম ডিপ্রেশন বা পোস্টপার্টাম ব্লু হতে পারে মস্তিষ্কের ভারসাম্যহীনতার জন্য। যদি দেখা যায়, শিশু জন্মের পরে মা সবসময় বিরক্ত হচ্ছেন, শিশুর দেখাশোনা করছেন না, তাহলে বুঝতে হবে লক্ষণ ভাল নয়।
এই সময় প্রচণ্ড বিরক্তি দেখা দিতে পারে মায়ের। কথায় কথায় রাগ হতে পারে। বাচ্চার ওপর তীব্র বিতৃষ্ণা জন্ম নিতে পারে। অনিদ্রা, অধিক স্ট্রেস এগুলোর কারণে ক্লান্তিও আসবে। নিজের সন্তানকে কোলে নিতে চাইবেন না মা, আদরও করবেন না। এমন মনোভাব থেকে যে কোনও নৃশংস ঘটনা ঘটাতেও দু’বার ভাববেন না মা। প্রসবের সপ্তাহ দুয়েকের মধ্যে নতুন মায়ের মধ্যে এমন লক্ষণ দেখা দিলে সঙ্গে সঙ্গেই মনোবিদের পরামর্শ নিতে হবে। এই সময় নতুন মায়েরা নানারকম ভুল চিন্তা করবেন, অন্ধবিশ্বাস দানা বাঁধবে।

Normalizing Postpartum Depression: Mental Health For New Mothers

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অনেক সময অনভিজ্ঞতা বা পরিবারের পূর্ব ইতিহাস থেকে এমন উপসর্গ দেখা দিতে পারে। সন্তান ধারণে মনের দিক থেকে মা প্রস্তুত না থাকলেও এমন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাছাড়া অনেক পরিবারেই আজও পুত্র সন্তানকে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়। সেক্ষেত্রে কন্যাসন্তান জন্মালে মায়ের হতাশা, আতঙ্ক ইত্যাদি নানা কারণ থেকে পোস্টপার্টাম ব্লু হতে পারে।

লকডাউনে অবসাদ বাড়ছে, নতুন মায়েরা মনের খেয়াল রাখুন

একদিকে ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়াচ্ছে অন্যদিকে স্বাস্থ্য সঙ্কটের এই জটিল সময় আতঙ্কও বেড়ে চলেছে। এই দুইয়ের প্রভাবে মানুষের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য নানা বদল আসছে।

Dealing with Postpartum Depression

ভাইরাসের সংক্রমণ সারিয়ে উঠছেন যে রোগীরা পরবর্তী পর্যায়ে গিয়ে অর্থাৎ পোস্ট-কোভিড ফেজে তাঁদের শরীরে ও মনে নানা রোগ বাসা বাঁধছে। আবার সংক্রামিত হননি যাঁরা, ভাইরাসের আতঙ্কে তাঁরাও মানসিক উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠায় ভুগছেন। যার থেকে তীব্র মানসিক চাপ, অবসাদ, এমনকি ইনসমনিয়ার লক্ষণও দেখা যাচ্ছে। মানসিক অবসাদে বেশি ভুগছেন মহিলা ও কমবয়সী ছেলেমেয়েরা। গর্ভবতী মায়েরা ও সদ্য সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এম মায়েরাও অবসাদের শিকার। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ৮৯ শতাংশ ছেলেমেয়ে জানিয়েছে তারা করোনা নিয়ে মেন্টাল ট্রমায় ভুগছে। ভাইরাস তাদের শরীরেও ঢুকবে এই ভাবনা থেকেই তৈরি হচ্ছে প্রচণ্ড মানসিক চাপ। ৪৬ শতাংশ ছেলেমেয়ে যাদের বয়স ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে এক অজানা অতঙ্কে ভুগতে শুরু করেছে। স্বাস্থ্য আধিকারিকরা বলছেন, ২৪% পুরুষ ও ২২% মহিলা বলেছেন তাঁরা নানাভাবে মানসিক চাপে ভুগছেন। ২৯ শতাংশের মধ্যে মৃত্যুভয় তৈরি হয়েছে। ভাইরাসের সংক্রমণে তাঁদের তীব্র শ্বাসকষ্ট শুরু হবে, সেখান থেকে মৃত্যু হবে এমন আতঙ্ক তৈরি হয়েছে অনেকের মনেই।

Postpartum depression, here's what to say to someone going through it |  Health - Hindustan Times

স্বাস্থ্য আধিকারিকরা বলছেন, অন্তত ৫৫ শতাংশ রোগী নিজে থেকেই বলেছেন তাঁরা মানসিক রোগে ভুগছেন। হয় তীব্র অবসাদ, না হলে সোশ্যাল ফোবিয়া। তাছাড়া ভুল বকা, ভুলে যাওয়া, স্লিপিং ডিসঅর্ডার তো রয়েছেই। এমন কঠিন পরিস্থিতিতে নতুন মায়েদের আরও বেশি সাবধান থাকতে হবে। মানসিক স্থিরতা বিগড়ে গেলে পোস্টপার্টাম ব্লু হওয়ার ঝুঁকি আছে, তাছাড়া লকডাউনের এই দীর্ঘ সময় স্ট্রেস থেকেও মানসিক ভারসাম্যহীনতা তৈরি হতে পারে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা সুখপাঠ

You might also like
1 Comment
  1. […] […]

Leave A Reply

Your email address will not be published.