ট্রেনের জানলা থেকে ঝুলছেন বৃদ্ধ! ছুটে গিয়ে বাঁচালেন পুলিশ, কুর্নিশ রেলমন্ত্রীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফাঁকা স্টেশন, ঘড়ির কাঁটা ধরে রোজকার মতোই ঢুকছিল ট্রেনটা। কিন্তু তাল কাটল হঠাৎই। দরজায় ঝুলতে গিয়ে আচমকাই পা ফসকে গেল বয়স্ক ভদ্রলোকের।

রাজস্থানের সাওয়াই মাধোপুর স্টেশনে এদিন যদি পুলিশকর্মী না থাকতেন, তাহলে হয়তো আর সুস্থ অক্ষত শরীরে বাড়ি ফেরা হতো না ওই বৃদ্ধের। আর ঠিক সেই কারণেই স্বয়ং রেলমন্ত্রীও কুর্নিশ জানিয়েছেন এই সাহসী পদক্ষেপকে।

ঠিক কী ঘটেছিল? এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়াল। আর তাতেই দেখা গেছে এক চমকপ্রদ ঘটনা। উপস্থিত বুদ্ধি, বিচক্ষণতা আর বিপদের সময় মাথা ঠান্ডা রাখার দুর্লভ ক্ষমতা দেখিয়ে এক বৃদ্ধকে বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে বাঁচিয়েছেন রেলে কর্মরত এক পুলিশ কর্মী। সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ভাইরালও হয়েছে এই ভিডিও।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, স্টেশনের ধার বরাবর রোজকার মতোই হেঁটে চলেছেন কর্তব্যরত ওই রেল পুলিশ। কিন্তু আচমকাই দৌড়োতে শুরু করেন তিনি। সেসময় তাঁর ঠিক গা ঘেঁষেই এগিয়ে যাচ্ছিল একটি লোকাল ট্রেন। খুব বেশি স্পিড তখনও নেয়নি ট্রেনটি।

কিছুক্ষণের মধ্যেই দেখা যায়, এক হাতে কোনওরকমে ট্রেনের জানলা ধরে প্রাণপণে ঝুলছেন এক বৃদ্ধ। হয়তো চলন্ত ট্রেনে উঠতে গিয়েই হাত ফসকে গিয়েছে তাঁর। ততক্ষণে তাঁকে বাঁচাতে ট্রেনের পাশে পাশে ছুটে চলেছেন পুলিশ কর্মীও। যে করেই হোক, লোকটা চাকার তলায় চলে যাওয়ার আগেই উদ্ধার করতে হবে তাঁকে। অবশেষে হাত ছিটকে পড়ে যান বৃদ্ধ। কিন্তু বড় কোনও ক্ষতি হওয়ার আগেই নিরাপদ দূরত্বে তাঁকে সরিয়ে নিয়ে যান পুলিশকর্মী।

এই ঘটনার ভিডিও ট্যুইটারে শেয়ার করে এদিন রেলমন্ত্রী লিখেছেন, “আমাদের নিরাপত্তা কর্মীদের জন্য আমরা গর্বিত, যাঁরা নিষ্ঠার সঙ্গে সবসময় নিজেদের দায়িত্ব পালন করেন।”

ট্যুইটারের দেওয়ালে ইতিমধ্যে ৬ হাজার ৫০০-র বেশি লাইক পড়ে গেছে রেলমন্ত্রীর ওই ভিডিওতে। সোমবার বিকেল পর্যন্ত ৮৮৮ বার ট্যুইটটি রিট্যুইট করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, ওই পুলিশ কর্মীকে তাঁর দুর্দান্ত কাজের জন্য পুরস্কৃত করার দাবিও জানিয়েছেন কেউ কেউ। এতে ডিপার্টমেন্টের অন্যান্যরাও উদ্বুদ্ধ হবেন বলে মনে করেছেন নেটিজেনরা।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More