আখের রস কি ওজন কমাতে সাহায্য করে! কী বললেন সেলেব্রিটি নিউট্রিশনিস্ট রুজুতা দিয়েকর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আখের রসের প্রসঙ্গ উঠলেই নস্টালজিয়ায় ভোগেন বহু মানুষ। যেন চোখের সামনে ভেসে ওঠে স্কুলবেলার দৃশ্য। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে ছোটবেলার নানা স্মৃতি। অনেকেই ছোটবেলায় স্কুল ছুটির পরে বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে, বা মা-বাবার সঙ্গে ছুটে যেতেন আখের রসের দোকানে। এতটাই সুস্বাদু, যে এক গ্লাস ঠান্ডা আখের রস এক চুমুকে শেষ করে দেয় বাচ্চারা। শুধু সুস্বাদুই নয়, এমনকি পুষ্টিগুণেও ভরপুর এই আখের রস, জানালেন সেলেব্রিটি নিউট্রিশনিস্ট রুজুতা দিয়েকর।

আখের রস প্রাকৃতিকভাবেই মিষ্টি স্বাদের হয়। যেকারণে ডায়াবেটিক রোগীদের আখের রস খেতে মানা করেন ডাক্তাররা। কিন্তু সার্বিকভাবে শরীর সুস্থ রাখতে আখের রস ভীষণ সাহায্য করে বলেই জানাচ্ছেন রুজুতা। তাছাড়াও রোজকার ব্যস্ততার জীবনে হাজারটা কাজের চাপে অনেকেই ক্লান্তিবোধ করেন, তাঁদের জন্য মোক্ষম দাওয়াই হল আখের রস। আরও যে যে কারণে তিনি আখের রস খেতে বলছেন, জেনে নিন।

১. সপ্তাহে তিন দিন আখের রস খাওয়ার পরামর্শ দিলেন রুজুতা। জানিয়েছেন আখের রস ডিটক্স করতে সাহায্য করে। এতে শরীরের অতিরিক্ত টক্সিন বের হয়ে যায়।

২. আখের রস মেটাবলিজম বুস্ট করতে সাহায্য করে। ফলে সারাদিন কাজ করার এনার্জি পাওয়া যায়।

৩. আখের রস ওজন কমাতেও সাহায্য করে। সেক্ষেত্রে দুপুরের আগে, বসে, রিল্যাক্সড হয়ে আখের রস খেতে বলছেন তিনি।

৪. পিরিয়ডের দ্বিতীয় দিনে পেটের যন্ত্রণায় বহু মেয়েই ভোগেন। পিরিয়ড সংক্রান্ত যাবতীয় সমস্যা মেটাতে সাহায্য করে আখের রস।

৫. তাড়াহুড়োতে নয়, আস্তে আস্তে আখের রস খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন রুজুতা।

৬. বিশেষ করে শীতকালে, জল খেতে ভুলে যান অনেকেই।‌ সেক্ষেত্রে আখের রস খেলে ভীষণ উপকার পাবেন।‌ সারাদিন শরীর হাইড্রেটেড রাখতে সাহায্য করে আখের রস।

৭. উত্তেজনায়, বা শারীরিক কারণে শরীর ভিতর থেকে গরম হয়ে ওঠে অনেকের। তাঁদেরকে আখের রস খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন রুজুতা। এতে শরীর ঠান্ডা থাকে বলে জানিয়েছেন তিনি।

৮. কিনডির স্বাস্থ্য ভাল রাখতেও সাহায্য করে আখের রস। তাছাড়াও জন্ডিস রোগীদের জন্য এটি হল মোক্ষম দাওয়াই।

৯. স্কিনকেয়ারেও সাহায্য করে আখের রস। এর মধ্যে রয়েছে আলফা হাইড্রোক্সি অ্যাসিড। যা ব্রণ, ব্রেকআউটসের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।

১০. কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করতেও ভীষণ উপকারী আখের রস।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More