বড় আগুন কলকাতার অফিসপাড়ায়! পৌঁছেছে দমকলের ১০টি ইঞ্জিন, নামানো হয়েছে আটকে পড়া বাসিন্দাদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভরসন্ধেয় হঠাৎ আগুন অফিসপাড়ায়! হেয়ার স্ট্রিট থানা এলাকার পোলক স্ট্রিটের একটি বহুতলে বিধ্বংসী আগুনের খবর পেয়ে পৌঁছেছে দমকলের ১০টি ইঞ্জিন। এখনও নিয়ন্ত্রণে আসেনি আগুন। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র তথা পুরসভার প্রশাসনিক বোর্ডের প্রধান ফিরহাদ হাকিম।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ওই বহুতলের একটি ফ্লোর থেকে গলগল করে কালো ধোঁয়া বেরোতে দেখা গেছে। আগুনের শিখাও স্পষ্ট। ওই বহুতলের একেবারে গায়ে লেগে রয়েছে আরও একাধিক অফিস, বাড়ি।

দমকলকর্মীরা জানিয়েছেন, আগুন যাতে ছড়িয়ে না পড়ে, সে জন্য প্রাণপণ চেষ্টা চলছে। গোটা বাড়িটির এবং আশপাশের বিদ্যুৎ পরিবহণ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে। আগুনের উৎসস্থলে এখনও পৌঁছনো যায়নি।

অগ্নি নির্বাপণের কাজে গিয়ে উদ্ধারকর্মীরা জানতে পারেন, ওই বহুতলের পাঁচতলার ছাদে আটকে পড়েছেন এক ব্যক্তি। তাঁকে নিরাপদে উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়েছে বলে জানা গেছে। বাড়িটির দোতলা এবং তিনতলাতেও বেশ কয়েক জন আটকে পড়েছিলেন, তাঁদেরও উদ্ধার করেছেন দমকলকর্মীরা।

স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, ওই বহুতলে কালো ধোঁয়া দেখেই তাঁরা খবর দেন দমকলে। প্রথমে পাঁচটি ইঞ্জিন আসে। তার পরে আরও পাঁচটি এসে পৌঁছয়। ততক্ষণে আগুন ছড়াতে শুরু করে দ্রুত। ঘিঞ্জি এলাকায় আতঙ্ক বাড়তে থাকে। কলকাতা পুলিশের বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যেরাও ঘটনাস্থলে পৌঁছন। হাইড্রলিক ল্যাডার নিয়ে এসে জল স্প্রে করা হয়।

তবে কী ভাবে বা কোথা থেকে আগুন লাগল, তা এখনও বোঝা যায়নি। সম্ভবত বৈদ্যুতিন শর্ট সার্কিট থেকেই ঘটেছে এমনটা। অগ্নিকাণ্ডের জেরে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ব্রেবোর্ন রোডে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More