আমি তো কোভিড ১৯ পজিটিভ, কুম্ভমেলায় গিয়েছি! ভাইরাসের সঙ্গে লড়বে ‘গঙ্গা মা’, চাঞ্চল্যকর দাবি উত্তরপ্রদেশের বিজেপি বিধায়কের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ যখন বেলাগাম, তখন কী করে উত্তরপ্রদেশের হরিদ্বারে কুম্ভমেলার মতো অনুষ্ঠানে লাখ লাখ লোকের জমায়েতে অনুমতি মিলছে, এই প্রশ্ন সব মহলের। কিন্তু উত্তরপ্রদেশের বিজেপি নেতা সুনীল বারলার বক্তব্য শুনলে মনে হবে,  এমন প্রশ্নের কোনও মানেই হয় না যেন!

হরিদ্বারে যাবতীয় কোভিড-১৯ প্রটোকলকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়ে চলছে স্নান। একের পর এক রাজ্য ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে কড়া নিয়ন্ত্রণবিধি চালু করছে, কিন্তু হরিদ্বারে সম্পূর্ণ উল্টো ছবি। দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যেই কাতারে কাতারে মানুষের ঢল হরিদ্বারে। জনসমুদ্রের চেহারা নিয়েছে পূণ্যের শহর। আর এই ব্যাপক জনসমাগমের সমর্থনে বারলার সওয়াল, কুম্ভ কী আস্থা করোনাভাইরাস সে বহুত বড়ি হ্যায়!  অর্থাত কুম্ভের মাহাত্ম্য করোনাভাইরাসের চেয়ে বড়। এমনকী সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে তিনি টেস্ট করিয়ে করোনাভাইরাস পজিটিভ জানার  পরও কুম্ভমেলায়  গিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বারলা। ১৩ এপ্রিল করোনাভাইরাস পজিটিভ হন তিনি। কিন্তু বিন্দুমাত্র সংশয়, দ্বিধা না রেখে বারলা জানিয়েছেন, কোভিডকে দূরে ঠেকিয়ে রাখাই এত বিপুল সংখ্যক মানুষের জড়ো হওয়ার উদ্দেশ্য, ‘গঙ্গা মা’-ই ভাইরাসের সঙ্গে লড়বে। পাশাাশাশি হরিদ্বারে যাবতীয় প্রটোকল মানা হচ্ছে বলে দাবি করে তিনি বলেন, মহাকুম্ভের সঙ্গে মারকাজের কোনও তুলনাই হয় না।

কিন্তু বাস্তব এটাই যে, হরিদ্বারে ভক্তি পালনের নামে মহা সমারোহে কুম্ভ মেলার আয়োজন দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর ওপর চাপ বাড়িয়ে তুলছে।  কিন্তু উদাসীন আচরণের মাধ্যমে কোভিড-১৯ সংক্রমণ ছড়ানো কি শাস্তিযোগ্য অপরাধ?  ঘটনাচক্রে আইন বলে, যে কোনও রোগ, অসুখই শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর। আর যিনিই ইচ্ছে করে তা ছড়়াবেন, তিনি ফৌজদারি ও দায়রা- দুধরনের আইনেই অন্যায় করছেন। ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৭১ ধারায় বলা হয়েছে, যিনিই জেনেশুনে এমন কোনও  কাজ  করবেন যাতে জীবনের পক্ষে বিপজ্জনক কোনও সংক্রমণ ছড়াতে পারে, তাঁর  সাজা কারাবাস  যার মেয়াদ দু বছর পর্যন্ত হতে পারে বা জরিমানা বা একসঙ্গে দুটোই হতে পারে। ২৭৮ ধারায় বলা আছে, যিনিই স্বেচ্ছায়  কোনও স্থানের পরিবেশ দূষিত করবেন যা সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে, তাঁর ৫০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা হবে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More