করোনার কবলে ‘হিরো নম্বর ১’, আপাতত বাড়িতেই রয়েছেন গোবিন্দা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বি-টাউনে একের পর এক তারকা আক্রান্ত হচ্ছেন করোনাতে। রবিবার সকালে করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়েছিলেন অক্ষয় কুমার। আর একটু বেলা গড়াতেই ফের আরও এক বলি সেলেব শিকার হন করোনার। কোভিড পজিটিভ ধরা পড়ে অভিনেতা গোবিন্দার। আপতত চিকিত্সকদের সমস্ত পরামর্শ মেনে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন তারকা। সরকারের তরফে জারি সমস্ত করোনাবিধি মেনে চলছেন অভিনেতা। রবিবার সকালেই গোবিন্দার কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে। গত কয়েকদিনে তাঁর সংস্পর্শে আসা সকলকে করোনা পরীক্ষা করিয়ে নেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন অভিনেতা।

গোবিন্দার বাড়ির প্রত্যেকেরই রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। শুধুমাত্র এক কর্মীর পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। আহুজা পরিবারের মুখপাত্র জানিয়েছেন, “সব রকম সতর্কতা নেওয়া সত্ত্বেও দুর্ভাগ্যবশত গোবিন্দা আহুজা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। খুব সামান্য উপসর্গ রয়েছে তাঁর। বাড়িতেই কোয়ারান্টিনে রয়েছেন অভিনেতা। শ্রীমতী সুনীতা আহুজা গোবিন্দার সংস্পর্শে আসা সকলকে কোভিড পরীক্ষা করানোর আবেদন করেছেন। গোটা দেশ ও বিদেশের সব ফ্যানেদের শুভেচ্ছা ও আশীর্বাদ প্রয়োজন গোবিন্দার।”

গোবিন্দার স্ত্রী সুনীতা আহুজা জানিয়েছেন, তিনি কয়েক সপ্তাহ আগেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। কলকাতা থেকে মুম্বই ফিরেই করোনার উপসর্গ দেখা দেয় সুনীতার শরীরে। এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে সুনীতা জানান, “আমার মনে হয় আমি কলকাতায় গিয়েই করোনা আক্রান্ত হয়েছি। আমি এবং গোবিন্দা সেখানে একটি চ্যানেলের শোয়ের জন্য গিয়েছিলাম। ওখানে বেশ জন সমাগম ছিল এবং ছবি তোলবার ধুম পড়ে গিয়েছিল। মানুষজন খুব কাছে চলে আসছিল। মুম্বই এসেই আমার শরীরে বেশ কিছু উপসর্গ দেখা দিয়েছিল এবং আমি নিজের পরীক্ষা করাই। তখন রিপোর্ট পজিটিভ আসে। আমি এখন এখন ঠিক আছি এবার ও (গোবিন্দা) পড়ল করোনার কবলে।”

কলকাতার একটি চ্যানেলের অ্যাওয়ার্ড শোয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতেই শহরে এসেছিলেন গোবিন্দা ও সুনীতা। গোবিন্দার শরীরে আপতত যন্ত্রণা ও সর্দি রয়েছে। সুনীতা বলেন, “ওর সর্দি হয়েছিল এবং আমরা ভাবলাম কোভিড পরীক্ষা করিয়ে নেওয়াই ভাল। তবে খাবারে স্বাদ কিংবা গন্ধ পাচ্ছে। জ্বরও নেই। পাশাপাশি ও খাওয়াদাওয়া ঠিক মতো করছে।”

৫৭ বছরের অভিনেতাকে কাজের দিক থেকে ২০১৯ সালে শেষ দেখা গিয়েছিল ‘রঙ্গিলা রাজা’ ছবিতে। তবে সম্প্রতি বেশ কয়েকটি রিয়ালিটি শো-তে তাঁকে দেখা গিয়েছে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More