নিজেকে ‘অবাঞ্ছিত শিশুকন্যা’ বলে দাবি করেও আত্ম প্রশংসায় পঞ্চমুখ কঙ্গনা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আজকাল বিতর্কের কেন্দ্রেই থাকেন তিনি। সবকিছুতেই বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা যায় তাঁকে বারবার। এবার অবশ্য অন্য কারও প্রতি আগ্রাসী মনোভাব নয়, এবার নিজেকেই ‘অবাঞ্ছিত শিশুকন্যা’ বলে দাবি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় ফেলে দিলেন কঙ্গনা রানাউত।

অবশ্য কেবল এইটুকুই নয়, কঙ্গনা টুইট করে বলতে চেয়েছেন, অবাঞ্ছিত শিশুকন্যা হওয়া সত্ত্বেও তিনি নিজের প্রতিভার জোরে, কাজের মধ্যে দিয়ে নিজেকে গুরুত্বপূর্ণ করে তুলতে পেরেছেন বলিউডে।

আজ, রবিবার সকালে টুইটারে তিনি লেখেন, “আমি ছিলাম একজন অবাঞ্ছিত শিশুকন্যা। আজ আমি সেরা ফিল্ম নির্মাতা, শিল্পী ও টেকনিশিয়ানদের সঙ্গে কাজ করি। অর্থ নয়, খ্যাতি নয়, আমি আমার কাজ ভালবাসি। যখন দুনিয়া আমার দিকে তাকিয়ে বলে ‘এটা একমাত্র তুমিই করতে পারো’, আমি বুঝতে পারি আমি অবাঞ্ছিত হতে পারি, কিন্তু আমাকে দরকার ছিল। খুবই দরকার ছিল।”

অনেকেই মনে করছেন, এই বার্তার মাধ্যমে কঙ্গনা নিজের জীবনের কোনও তিক্ত দিকের ইঙ্গিত দিলেন। এতদিন এই ব্যক্তিগত সত্য তিনি কখনওই সামনে আননেনি। আজ বিবেক অগ্নিহোত্রীর একটি প্রশংসামূলক টুইট শেয়ার করে সেই সত্যটি সকলের সামনে প্রকাশ করলেন কঙ্গনা।

তবে কঙ্গনা বরাবরই স্পষ্টবক্তা। সোশ্যাল মিডিয়ায় করা তাঁর বহু পোস্টই বিতর্কের শীর্ষে পৌঁছেছে। তাও নিয়মিত নানা কিছু পোস্ট করেন কঙ্গনা। সমালোচনা বা ট্রোলিংয়ের পরোয়া করেন না কখনও।

ফিল্ম জগতের লোকজন বলছেন, এই মুহূর্তে নিজের কেরিয়ারের খুব ভাল জায়গায় রয়েছেন কঙ্গনা। সোমবারই জীবনের চতুর্থ জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন অভিনেত্রী। এসবের মাঝেই বেরিয়েছে তাঁর আসন্ন ছবি ‘থালাইভি’র ট্রেলার। সেখানে তামিলনাডুর ‘আম্মা’ জয়ললিতার ভূমিকায় দেখা যাবে তাঁকে। এই ট্রেলারও দর্শকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে পুরোদমে।

এসবের মধ্যেই নিজেকে ‘অবাঞ্ছিত শিশুকন্যা’ বলে দাবি করে বসলেন কঙ্গনা।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More