করোনা ভ্যাকসিনের ডোজ দেওয়ায় সবার আগে ভারত, পিছনে আমেরিকা, চিন, বিস্তারিত পড়ুন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশের একের পর এক রাজ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বাড়ছে। তবে পাশাপাশি চলছে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ। প্রায় যুদ্ধকালীন তত্পরতায়।  কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রকের পরিসংখ্যান জানাচ্ছে, ভারতেই সারা বিশ্বে সবচেয়ে দ্রুত চলছে ভ্যাকসিনের ডোজ দেওয়ার প্রক্রিয়া। সংখ্যা, সময়ের বিচারে সবার আগে রয়েছে ভারত। ১০০ মিলিয়ন বা ১০ কোটি ভ্যাকসিন ডোজ দেওয়ায় ভারত নিয়েছে মাত্র ৮৫ দিন। আমেরিকা ও চিন ১০ কোটি মানুষকে ডোজ দিতে নিয়েছে যথাক্রমে ৮৯ ও ১০২ দিন। এটা করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ভারতের লড়াইয়ে নিঃসন্দেহে বাড়তি মাত্রা যোগ করবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ১০০ কোটির বেশি জনসংখ্যার দেশে দ্রুত ভ্যাকসিন দেওয়ার কর্মসূচি সম্পন্ন করার চ্যালেঞ্জ রয়েছে সামনে।

এখনও পর্যন্ত ঘোষিত সরকারি রীতি অনুসারে সামনের সারির স্বাস্থ্যকর্মীরা, ৬০ ও তার ওপরের প্রবীণ নাগরিকরা এবং ৪৫ বছর ও তার বেশি বয়সের লোকজনকে (যাদের কোমর্বিডিটি আছে) ভ্যাকসিন প্রদানের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। তবে এবার যে এখনকার চেয়ে দ্বিগুণ বাড়তি উদ্যম প্রয়োজন সেটা প্রথম অনুভূত হয়েছে শনিবারই। কেননা সারা দেশে নতুন করে লাখের বেশি লোকের মধ্যে মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে। বেড়েছে মৃত্যুও। স্বাস্থ্যমন্ত্রকেরই তথ্য, গতকাল ৭৯৪ জনের মৃত্যু ধরলে মোট করোনার বলি হয়েছেন ১ লাখ ৬৮ হাজার ৪৩৬ জন।

নতুন সংক্রমণ ছড়ানোর খবর বেশি আসছে মহারাষ্ট্র থেকে। সেখানে সোমবার শেষ হবে সাপ্তাহিক লকডাউন। সংক্রমণের রাশ টানতে বন্ধ রাখা হয়েছে রেস্তোরাঁ, মল, ধর্মস্থান। সেখানে সংক্রমণ বর্তমান গতিতে অব্যাহত থাকলে একটা সময়ে গোটা মেডিকেল পরিকাঠামোই ভেঙে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। পাশাপাশি ভ্যাকসিনেরও ঘাটতি দেখা দিয়েছে ইতিমধ্যেই।

 

 

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More