হার্টের বিরল অসুখ নিয়ে ইরাক থেকে ভারতে ১১ বছরের ইব্রাহিম, সারিয়ে দিল গুড়গাঁওয়ের হাসপাতাল

 দ্য ওয়াল ব্যুরো: হার্টের বিরল অসুখে ভোগা ইরাকি শিশুর সফল অস্ত্রোপচার করল গুড়গাঁওয়ের হাসপাতাল। গত কয়েক মাস ধরেই শ্বাসকষ্টে ভুগছিল সে। বহু ডাক্তার দেখিয়েও সারেনি তার অসুখ। শেষমেশ পথ দেখাল ভারতের চিকিতসা ব্যবস্থা। অস্ত্রোপচারের পরে বুকে পেসমেকার বসানো হয়েছে তার। এখন সুস্থ আছে ১১ বছরের ইব্রাহিম ইসমাইল হুসেন।

ডাক্তাররা জানিয়েছেন, ডায়ালেটেড কার্ডিওমায়োপ্যাথিৃতে ভুগছিল ইব্রাহিম। এই অসুখ সাধারণত প্রাপ্তবয়স্কদের হয়ে থাকে। কিন্তু ইব্রাহিমের মতো বয়সি বাচ্চাদের এমন অসুখ বিরল। জানা গেছে, জন্মের পর থেকেই তার বয়সি আর পাঁচটি শিশুর তুলনায় একটু দুর্বল ছিল সে। ১১ বছর বয়সে তার শরীরের ওজন ৩০ কেজি। তার হার্টটি বেশ বড় হয়ে গেছিল এবং তার কার্যক্ষমতাও ক্রমে কমে আসছিল। গত কয়েক মাস ধরেই সে ভুগছিল শ্বাসকষ্ট ও বুকে ব্যথায়।

গুড়গাঁওয়ের পরস হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের প্রধান ডক্টর ঝাম্ব বলেন, “ওর প্রধান ভালভে বড়সড় লিক ছিল। এর ফলে হার্টে পাম্প হওয়া রক্ত ঠিকমতো চলাচল করছিল না। বড়দের ক্ষেত্রে এমনটা হলে অ্যাঞ্জিওগ্রাফি করা হয়, তার পরে বসানো হয় পেসমেকার। একে বলে কার্ডিয়াক রিসিঙ্ক্রোনাইজেশন ট্রিটমেন্ট। কিন্তু এত ছোট ও কম ওজনের বাচ্চার হার্টে পেসমেকার বসানো খুবই ঝুঁকির ব্যাপার ছিল।”

শেষমেশ অসাধ্য সাধন করেন চিকিতসকরা। ছোট্ট ইব্রাহিমের বুকে বসানো হয় আইসিডি যন্ত্র। উচ্চমানের এই মেসমেকার যে শুধু তার হার্টের ছন্দ ফেরাল তাই নয়, এটা তার হার্টের ছন্দকে সর্বক্ষণ মনিটরও করবে।

ডাক্তাররা জানিয়েছেন, সাধারণ অ্যানাস্থেশিয়া করে, ইনকিউবেশনে রেখে ইব্রাহিমের বুকে বসানো হয় পেসমেকার। হার্ট ঠিকমতো কাজ করতে শুরু করলে, তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে হাসপাতাল থেকে।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More