এবার আইসিসের টার্গেট হতে পারে ভারত, শ্রীলঙ্কা, সতর্ক করলেন গোয়েন্দারা

দ্য ওয়াল ব্যুরো : সিরিয়া ও ইরাকে বিরাট ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে জঙ্গি সংগঠন আইসিস। সেখান থেকে সরে এসে জঙ্গিরা এবার নজর দিতে পারে ভারত ও শ্রীলঙ্কায়। কয়েক মাস আগেই ইস্টার সানডেতে ধারাবাহিক বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল শ্রীলঙ্কা। তারপরেই এই সতর্কবার্তা দিয়েছেন গোয়েন্দারা।

আইসিসের বিপদ নিয়ে সতর্ক করে কেন্দ্রীয় সরকারের গোয়েন্দারা এখনও পর্যন্ত তিনটি চিঠি দিয়েছেন কেরল পুলিশকে। একটি চিঠিতে বলা হয়েছে, ইরাক ও সিরিয়াতে বিরাট এলাকা হাতছাড়া হয়েছে আইসিসের। তারা এখন জেহাদিদের বলছে, যে যার দেশেই হামলা চালাও। আরও একটি চিঠিতে বলা হয়েছে, কোচির কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ভবন জঙ্গিদের টার্গেট হতে পারে। তাঁর মধ্যে একটি বড় শপিং মলও রয়েছে।

গোয়েন্দারা লক্ষ করেছেন, ভারতে ইন্টারনেটে খুব সক্রিয় হয়ে উঠেছে জঙ্গিরা। তাঁদের ধারণা, শীঘ্রই হামলা চালানোর ছক কষছে আইসিস। গোয়েন্দাদের মতে, আইসিস যে রাজ্যগুলিতে সক্রিয় হয়ে উঠতে পারে, তাদের মধ্যে রয়েছে কেরল, তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ এবং কাশ্মীর।

একটি চিঠিতে গোয়েন্দারা লিখেছেন, টেলিগ্রাম মেসেঞ্জারের মাধ্যমে আইসিস খবর লেনদেন করে। তবে পুলিশ মাঝে মাঝে সেই খবর জেনে ফেলে। সেজন্য তারা এখন চ্যাটসিকিওর, সিগন্যাল এবং সাইলেন্ট টেক্সটের মতো অ্যাপ ব্যবহার করছে।

কেরল পুলিশের এক উচ্চপদস্থ কর্তার মতে, গত কয়েক বছরে ওই রাজ্য থেকে অন্তত ১০০ জন আইসিসে যোগ দিয়েছে। এছাড়া মোট ২১ টি কাউন্সেলিং সেন্টারে প্রায় ৩ হাজার জনকে বুঝিয়ে জঙ্গিবাদের পথ থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। তাদের ওপরে অবশ্য এখনও নজর রাখা হচ্ছে। তাদের বেশিরভাগই উত্তর কেরলের বাসিন্দা।

কেরলে বিভিন্ন জেলা পুলিশের প্রধানদের বলা হয়েছে, ইন্টারনাল সিকিউরিটি সেলকে শক্তিশালী করে তুলতে হবে। পুলিশকর্মীদের কেউ জঙ্গি সংগঠনকে সমর্থন করে কিনা, জানার জন্য ফাঁদ পাততে হবে। ২১ এপ্রিল শ্রীলঙ্কায় ধারাবাহিক বিস্ফোরণের পরে কেরলে অন্তত ৩০ জনের ওপরে নজর রাখা শুরু হয়েছে। তারা সকলেই বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More