প্যালেস্তাইনের জন্য গ্রাফিতি এঁকে গ্রেফতার কাশ্মীরি মুরাল আর্টিস্ট

দ্য ওয়াল ব্যুরো: যুদ্ধ আবহ এখন গাজার আকাশে। গোটা দুনিয়া ফের একবার প্যালেস্তিনীয়দের বিরুদ্ধে চলা ইজরায়েলের যুদ্ধ নীতিতে সরব। কিন্তু এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে রোষের মুখে পড়েছেন কাশ্মীরি মুরাল আর্টিস্ট মুদাসির গুল। ৩২ বছরের তরুণ শিল্পীর গ্রাফিতি ফুটে উঠেছিল গাজাবাসীর ওপর চলা ইজরায়েলের অত্যাচারের বর্ণনায়। প্রকাশ্যে এমন প্রতিবাদ জানানোয় গ্রেফতার করা হয়েছে মুদাসিরকে। তবে প্যালেস্তিনীয়দের জন্য প্রতিবাদ জানিয়ে মুদাসিরের ছাড়া এখনও পর্যন্ত ২০ জন গ্রেফতার হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে একজন মুসলিম ধর্মগুরুও রয়েছেন।

শুধু ছবি এঁকে ছেলে গ্রেফতার হওয়ায় হতবাক হয়ে গিয়েছেন মুদাসিরের পরিবার। তাঁর বোন মুজামিল ফিরদৌসের প্রশ্ন, ” যখন গোটা বিশ্ব ইজরায়েলের নৃশংস অত্যাচারের বিরুদ্ধে সরব, তখন আমরা কথা বলতে পারি না, আমরা শিল্প অনুশীলন করতে পারি না, আমরা এ কোন ধরণের গণতন্ত্রে বাস করি? আমরা কি প্যালেস্তাইনের জন্য দুঃখ প্রকাশ করতে পারি না? ” বিষয়টি নিয়ে অনেকেই দেশের বাক স্বাধীনতার অধিকার নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

ইতিমধ্যে, কাশ্মীরিরা প্যালেস্তিনীয়দের জন্য রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তাঁরা শুক্রবারের নামাজের জমায়েতে প্যালেস্তাইনকে সমর্থন করে সেদেশের পতাকা উড়িয়েছেন। ইজরায়েলের বিমান হামলায় শহীদের শান্তি কামনায় দোয়া করেছেন।

ফিরদৌস জানিয়েছেন, গত শুক্রবার কয়েকজন স্থানীয় মুদাসিরকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়েছিলেন। তাকে প্যালেস্তাইনের সমর্থনে কিছু গ্রাফিতি এঁকে দিতে বলেন। কিন্তু সেখানে ভারতবিরোধী কোনও স্লোগান দেওয়া হয়নি। তবে কেন শুধু প্যালেস্তাইনের সমর্থনে ছবি আঁকার জন্য তাঁর ভাইকে গ্রেফতার করা হল? তানিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ফিরদৌস।

জানা গিয়েছে, মুদাসির তাঁর গ্রাফিতিতে প্যালেস্তিনীয় পতাকা মাথায় জড়ানো এক মহিলার ছবি এঁকে ছিলেন এবং সেখানে লেখা ছিল ‘আমরা প্যালেস্তাইন’। তাতেই বিতর্কের সূত্রপাত হয়। এই ছবি দ্রুত ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেটিই পরে প্রশাসনের নজরে আসতেই গ্রেফতার করা হয় মুদাসিরকে।

মুদাসিরের বোন ফিরদৌসের অভিযোগ, তাঁর ভাই একজন শিল্পী। সে শুধু তার কাজ করেছে। তাঁরা চান না এ ভাবে সরকারের রোষের মুখে পড়ে তাঁর ভাইয়ের জীবন নষ্ট হোক। তিনি আরও জানান, মুদাসিরের শরীরিক কিছু সমস্যা রয়েছে। কোভিড পরিস্থিতির মধ্যে দীর্ঘ দিন জেলবন্দি থাকলে তার স্বাস্থ্যের ক্ষতি হতে পারে।

Leave a comment

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More