‘বাহুবলী মুহূর্তম’-এ তেলঙ্গানায় শপথ কে সি আরের

দ্য ওয়াল ব্যুরো :  বৃহস্পতিবার দুপুর ঠিক ১ টা বেজে ২৫ মিনিটে তেলঙ্গানায় মুখ্যমন্ত্রীর পদে শপথ নিলেন কে চন্দ্রশেখর রাও। শপথ নেওয়ার জন্য ওই সময়টি স্থির করেছিলেন লক্ষ্মীনরসিংহ মন্দিরের বৈদিক পণ্ডিতরা। ওই মন্দির ভোঙ্গির জেলায় ইয়াদাগিরি অঞ্চলে অবস্থিত। তা তেলঙ্গানায় এক বড় তীর্থস্থান।

মন্দিরের প্রধান পুরোহিত লক্ষ্মী নরসিংহাচার্য বলেন, চন্দ্রশেখর রাওয়ের পক্ষে শপথ নেওয়ার ভালো সময় শুরু হয়েছে বেলা ১ টা ২৪ মিনিট থেকে। তা চলবে আধ ঘণ্টা। ওই সময় মার্গশিরা ষষ্ঠী শুরু হচ্ছে। তখন শপথ নিলে চন্দ্রশেখর ‘রাজযোগ’-এর অধিকারী হবেন। তাঁর হাতে যথেষ্ট ক্ষমতা থাকবে। রাজ্য শাসনের পথে কোনও বাধাই আসবে না। তাঁর কথায়, ওই সময় তাঁর জন্য সব গ্রহই ছিল অনুকূল। এর ফলে তাঁর জীবনে সৌভাগ্য আসবে। তিনি যা করবেন, তাতেই সফল হবেন।

অপর এক পুরোহিত বলেছেন, ‘বাহুবলী মুহূর্তম’-এ শপথ নিয়েছেন চন্দ্রশেখর। নিয়মমতো তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করান রাজ্যপাল ই সি এল নরসিংহন। তাঁর সঙ্গে শপথ নেন মহম্মদ মাহমুদ আলি। তিনি এর আগে উপমুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। ৬৪ বছরের চন্দ্রশেখর শপথ নেন তেলুগুতে। মহম্মদ মাহমুদ আলি শপথ নিয়েছেন উর্দু ভাষায়।

এই নিয়ে দ্বিতীয়বার তেলঙ্গানায় ক্ষমতায় এলেন চন্দ্রশেখর। ১১৯ আসন বিশিষ্ট বিধানসভায় তাঁর দল তেলঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতি পেয়েছে ৮৮ টি আসন। তাঁর প্রতিপক্ষ কংগ্রেস, তেলুগু দেশম, সিপিআই এবং তেলঙ্গানা জন সমিতির জোট পেয়েছে ২১ টি আসন। বিজেপি পেয়েছে মাত্র একটি আসন। অল ইন্ডিয়া মজলিস ই ইত্তেহাদুল মুসলিমিন পেয়েছে সাতটি আসন। নির্দলরা পেয়েছেন তিনটি।

রাজ্যে ভোট হওয়ার কথা ছিল ২০১৯ সালের এপ্রিল-মে মাসে। দেশে লোকসভা ভোটের সঙ্গে তেলঙ্গানায় নির্বাচন হবে বলে স্থির হয়েছিল। কিন্তু চন্দ্রশেখর আট মাস আগেই বিধানসভা ভেঙে দেন। আগের ভোটে তাঁর দল ৬৩ টি আসন পেয়েছিল। এবার পেয়েছে তার থেকে বেশি। দলের মুখপাত্র টি হরিশ রাও বলেন, আমাদের মুখ্যমন্ত্রী বিরোধীদের সম্পর্কে অপপ্রচার করেন না। মানুষ দ্বিতীয়বার তাঁর ওপরে আস্থা রেখেছেন।

চন্দ্রবাবু নাইডুর সঙ্গে জোট করতে গিয়ে ক্ষতি হয়েছে কংগ্রেসের। কারণ, তেলঙ্গানার বহু মানুষ মনে করেন, চন্দ্রবাবুর তেলুগু দেশম পৃথক রাজ্য গঠনের বিরোধী ছিল। পর্যবেক্ষকদের ধারণা, কংগ্রেস একা ভোটে লড়াই করলে এর চেয়ে বেশি আসন পেত।

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More